বশ্বি উদ্যোক্তা সম্মলনেে মুগ্ধতা ছড়ালনে অ্যানালাইজনরেে রদওিয়ান

বশ্বি উদ্যোক্তা সম্মলনেরে (জইএিস) এবাররে আসর বসছলেি মরক্কোতে ১৯-২০ নভম্বরে। প্রথম বাংলাদশীে হসািবে ৬ হাজার উদ্যোক্তার এ সম্মলনেে যোগ দওয়োর সুযোগ পান তথ্যপ্রযুক্তি বষয়িক উদ্যোগ অ্যানালাইজনরেে উদ্যোক্তা রদওিয়ান হাফজ।ি

সম্মলনেে যোগ দওয়োর শুরু থকেে শষের্ পযন্ত বশে কছুি নাটকীয়তার মুখোমুখি হয়ছনেে তরুন এ উদ্যোক্তা। ফরেি আসার পর টকশেহরডটকমকে সে গল্পই বলছনেে তন।িি
যভোবে উদ্যোক্তা সম্মলনেে
বশে কছুি দনি আগে আগে নটে ঘঁটেঘুেঁটে বশ্বি উদ্যোক্তা সম্মলনেরে সাইটে যান রদওিয়ান। সম্মলনেে যোগ দয়োর লালতি স্বপ্ন নয়েি আবদনে করতইে সাইটটতেি ঢুঁ মারা। কন্তুি যখন দখলেন,ে আবদনে করতে লাগবে ১০০ ডলার, তখন দ্বধািয় পড়ে গলনে।ে কননো অলাইনে পমন্টেে করার জন্য ভসাির্ কাড নই।ে এত অল্প সময়ে তা সংগ্রহও করা যাবে না। তখনই উবে গলে সইে স্বপ্ন।

তবে এর পররে ঘটনা তরুণ এ উদ্যোক্তার কাছে স্বপ্নরে মতো, নাটকীয়ও বট।ে কননো সম্মলনেরে ঠকি তনি দনি আগে ঢাকায় যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস থকেে রদওিয়ানরে নাম্বারে ফোন ‘আপনাকে মারকশে যতেে হব’!ে

হঠাৎ মারকশ!ে তরুন এ উদ্যোক্তা যনে আকাশ থকেে পড়লন।ে মরক্কোর এ শহরটা সম্বন্ধে খানকটিা জানতনে তন।িি তবুও কৌতূহল বশত নটেের্ সাচ দলনি।ে ভাবলন,ে যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসরে কোনো কাজরে জন্য হয়ত এ প্রস্তাব। কন্তুি যখন শুনলন,ে তনিি বশ্বি উদ্যোক্তা সম্মলনেে অংশগ্রহণরে সুযোগ পাচ্ছনে তখন তার চোখ ছানাবড়া হওয়ার অবস্থা।

-বদরুদ্দোজা মাহমুদ তুহিন

[feather_share]

Please Share This Post.