ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয় ও জাতিসংঘ বাংলাদেশ-এর যৌথ আয়োজনে ‘মানবাধিকার দিবস-২০২০’ উদযাপিত

মানবাধিকার দিবস উপলক্ষে গত বৃহস্পতিবার (১০ ডিসেম্বর, ২০২০) জাতিসংঘ বাংলাদেশ এবং ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির যৌথ আয়োজনে এক আলোচনা অনুষ্ঠান ও মানবাধিকার বিষয়ক নাটক মঞ্চস্থ হয়েছে। কোভিড-১৯ জনিত মহামারীর কারণে অনুষ্ঠানটি অনলাইনের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হয়। এবছর মানবাধিকার দিবসের প্রতিপাদ্য “শক্তভাবে ঘুরে দাঁড়ান: মানবাধিকারের জন্য সোচ্চার হোন” (Recover Better – Stand Up for Human Rights)।
আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান নাসিমা বেগম, এনডিসি, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশস্থ জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারী কার্যালয়ের সিনিয়র মানবাধিকার বিষয়ক উপদেষ্টা হুমা খান এবং আদিবাসী ফোরামের সাধারণ সম্পাদক সঞ্জীব দ্রং। বিশেষ বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশস্থ জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারী কার্যালয়ের সিনিয়র মানবাধিকার বিষয়ক কর্মকর্তা মোঃ জাহিদ হোসেন। সভাপতিত্ব করেন ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহবুব উল হক মজুমদার এবং সঞ্চালনা করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের স্টুডেন্টস অ্যাফেয়ার্স এর পরিচালক সৈয়দ মিজানুর রহমান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান নাসিমা বেগম বলেন, মানবাধিকার হচ্ছে মানুষের সম্মানজনকভাবে বেঁচে থাকার অধিকার। এর মধ্যে শিক্ষা, স্বাস্থ্য, বাক স্বাধীনতা সবকিছুই রয়েছে। আমাদের স্বাধীনতার ঘোষণাপত্রে মানবাধিকারের কথা রয়েছে। সংবিধানেও মানবাধিকারকে প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে। তারপরও সমাজে মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা দিন দিন বাড়ছে। শিশু ধর্ষণ ও কিশোর গ্যাংদের অপরাধ উদ্বেগজনকভাবে বেড়েছে। এসব ব্যাপারে এখনই সোচ্চার হতে হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

আলোচনা শেষে ‘ঠুসি’ শিরোনামে নাটিকা পরিবেশন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের অল স্টার ড্যাফোডিল ক্লাবের শিক্ষার্থীরা। নাটিকাটি রচনা করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক মোঃ খায়রুল ইসলাম (সুজন নাজির) ।

Please Share This Post.