ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীরা পেল বিনামূল্যে ২২০০ ল্যাপটপ

একটি কম্পিউটার ব্যবহার করে বিশ্ব জয় করার মত যে কোন উদ্যোগ নেয়া সম্ভব বলে জানিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। কম্পিউটারের সঠিক ব্যবহার করে তা থেকে নতুন কিছু আবিষ্কার করতে শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

রবিবার ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ৭১ মিলনায়তনে তথ্য প্রযুক্তির ক্রমবিকাশমান ধারার সঙ্গে প্রতিটি শিক্ষার্থীকে যুগোপযোগী করে তুলতে এবং প্রতিযোগিতামূলক চাকরি বাজারে দক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে বিনামূল্যে ২ হাজার ২০০টি ডিসিএল ল্যাপটপ বিতরণী অনুষ্ঠানে এইসব কথা বলেন প্রতিমন্ত্রী ।

পলক বলেন, ‘চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের ফলে আমাদের কর্ম যে ধরনের আছে তার প্রত্যেকটি জায়গায় আমুল পরিবর্তন আমরা লক্ষ্য করছি। কর্মক্ষেত্রে প্রতিটি জায়গায় এখন রোবট, আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স, বিগ ডাটা,মেশিন এখন ব্যাপক ব্যবহার শুরু হয়েছে। আর তার জন্য আমাদের দক্ষতারও নতুন ধরনের চাহিদা লক্ষ্য করছি। আর এই জন্য আমাদের দরকার ক্রিটিক্যাল এবং প্রবলেম সলভিং জেনারেশন।’

ড্যাফোডিলের উদ্যোগের প্রশংসা করে পলক বলেন, ‘ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি থেকে অনেক ইনোভেশন দেশে এবং বিদেশে পুরস্কৃত হয়েছে। আমারা আশা করি, ড্যাফোডিল থেকে এমন আবিষ্কার আসবে যা দিয়ে বাংলাদেশের মানুষের সমস্যা সমাধান করবে এবং সারা পৃথিবীর মানুষের সমস্যা সমাধান করবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টিবোর্ডের চেয়ারম্যান ড. মোঃ সবুরখানের সভাপতিত্বে¡  বক্তব্য রাখেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যপ্রফেসর ড.ইউসুফ এম ইসলাম, উপ- উপাচার্য প্রফেসর ড. এস এমমাহাবুবুল হক মজুমদার ও ড্যাফোডিল পরিবারের প্রধান নির্বাহীকর্মকর্তা মোহাম্মদ নুরুজ্জামান।

সিনিউজভয়েস//ডেস্ক/

Please Share This Post.