শিক্ষার্থীদের দক্ষতা বৃদ্ধির প্রশিক্ষণ দিতে বাংলালিংক ও নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর

দেশের অন্যতম ডিজিটাল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান বাংলালিংক ও নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি (এনএসইউ)-এর মধ্যে একটি সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। এই চুক্তি অনুসারে, এনএসএউ-এর শিক্ষার্থীরা বাংলালিংক-এর অভিজ্ঞ পেশাজীবীদের প্রশিক্ষণ ও বিভিন্ন প্রোগ্রামের মাধ্যমে নিজেদের দক্ষতা বৃদ্ধির সুযোগ পাবে।

করোনা মহামারীর কারণে অনলাইনে আয়োজিত এই সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে বাংলালিংক-এর চিফ হিউম্যান রিসোর্সেস অ্যান্ড অ্যাডমিনিস্ট্রেশন অফিসার মনজুলা মোরশেদ, হেড অফ ট্যালেন্ট ম্যানেজমেন্ট আয়েশা সাঈদ, হেড অফ কর্পোরেট কমিউনিকেশন্স অ্যান্ড সাস্টেনিবিলিটি আংকিত সুরেকা উপস্থিত ছিলেন। এনএসইউ-এর পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন প্রতিষ্ঠানটির ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর আতিকুল ইসলাম, প্রফেসর, ডিন ড. আব্দুল হান্নান চৌধুরী, মোহাম্মদ খসরু মিয়া , পিএইচডি , প্রফেসর  এন্ড ডিরেক্টর, ক্যারিয়ার এবং প্লেসমেন্ট সেন্টার, এনএসইউ ও ক্যাথেরিন লি, পিএইচডি, ডিরেক্টর, অফিস অফ এক্সটার্নাল অ্যাফেয়ার্স অ্যান্ড অ্যাডভাইজার, সেন্টার ফর পিস স্টাডিজ, এসআইপিজি, এনএসইউ।

এই চুক্তির আওতায় এনএসইউ-এর শিক্ষার্থীরা বাংলালিংক-এর লার্ন ফ্রম দ্যা লিডারস, লার্ন ফ্রম দ্যা স্টার্টআপস, ক্যাম্পাস টু কর্পোরেট, ক্যারিয়ার বুটক্যাম্প, ওমেনটর, ইনোভেটর্স, স্ট্র্যাটেজিক অ্যাসিসটেন্ট প্রোগ্রাম, অ্যাডভান্সড ইন্টার্নশিপ প্রোগ্রাম ও ক্যাম্পাস অ্যামব্যাসেডরসহ তরুণদের ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে পরিচালিত বিভিন্ন কর্মসূচিতে অংশগ্রহণের সুযোগ পাবে। এছাড়া তাদের পাঠ্যক্রমে বাংলালিংক-এর বিভিন্ন কেইস স্টাডি অন্তর্ভুক্ত করা হবে।

এনএসইউ-এর ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর আতিকুল ইসলাম বলেন, “বাংলালিংক-এর মতো স্বনামধন্য একটি টেলিকম প্রতিষ্ঠানের সাথে চুক্তিবদ্ধ হতে পেরে নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি আনন্দিত। আমি নিশ্চিত যে, এর ফলে টেলিযোগাযোগে যৌথ গবেষণার আরও সুযোগ সৃষ্টি হবে। শিক্ষানবিশ হিসেবে বাংলালিংক-এ আমাদের শিক্ষার্থীদের যোগ দেওয়ার এই সুযোগকে আমরা স্বাগত জানাই। এর পাশাপাশি আমরা আশা করি, বাংলালিংক-এর শীর্ষ কর্মকর্তা ও বিশেষজ্ঞরা অতিথি শিক্ষক হিসেবে আমাদের শ্রেণীকক্ষে এসে শিক্ষার্থীদের বাস্তবজগত সম্পর্কে ধারণা দেবেন। আমি নিশ্চিত যে, আমাদের যৌথ প্রচেষ্টা ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে।“

বাংলালিংক-এর চিফ হিউম্যান রিসোর্সেস অ্যান্ড অ্যাডমিনিস্ট্রেশন অফিসার মনজুলা মোরশেদ বলেন, “তরুণদের জন্য বিভিন্ন নতুন সুযোগ সৃষ্টি করাকে আমরা সবসময় অগ্রাধিকার দিয়ে থাকি। কারণ, আমরা তাদের অনুসন্ধিৎসা, উৎসাহ ও অভিনব চিন্তাকে গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করি। এনএসইউ-এর সাথে আমাদের এই অংশীদারিত্বের ফলে প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষার্থীরা আমাদের বিভিন্ন প্রোগ্রামের মাধ্যমে উপকৃত হওয়ার পাশাপাশি বাংলালিংক-এর অভিজ্ঞ পেশাজীবীদের কাছ থেকে সঠিক দিকনির্দেশনা পাবে। এই সুযোগগুলি অবশ্যই ভবিষ্যতে তাদের সফলভাবে ক্যারিয়ার গড়তে সাহায্য করবে।”

তরুণদের ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে বাংলালিংক ভবিষ্যতেও এই ধরনের উদ্যোগ গ্রহণ করবে।