চট্টগ্রামকে স্মার্ট সিটি বানাতে যৌথভাবে কাজ করবে রবি ও সিটি কর্পোরেশন

সিনিউজ ডেস্ক: স্মার্ট সিটি গড়ে তোলার লক্ষ্যে একযোগে কাজ করার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে দেশের শীর্ষস্থানীয় ডিজিটাল সেবা প্রদানকারী কোম্পানি রবি আজিয়াটা লিমিটেড এবং চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক)। এ উপলক্ষ্যে আজ, ১৫ জুন রবি ও সিসিসি’র মধ্যে একটি সমঝোতা স্মারক সই হয়েছে।

 

বন্দর নগরের টাইগার পাসে অবস্থিত নগর ভবনে মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী’রর উপস্থিতিতেৃ চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক এবং রবি’র ম্যানেজিং ডিরেক্টর অ্যান্ড সিইও মাহতাব উদ্দিন আহমেদ নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে সমঝোতা স্মারকটি সই করেন।

 

চুক্তির আওতায় নিয়ন্ত্রক সংস্থার নীতিমালা অনুযায়ী প্রাথমিকভাবে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের ১শ’টি ল্যাম্পপোস্টে সক্রিয় নেটওয়ার্ক অবকাঠামো স্থাপনের পরিকল্পনা রয়েছে। আরো পরিকল্পনা রয়েছে নাগরিক নিরাপত্তার জন্য স্মার্ট সিটি সার্ভাইলেন্স বা ডিজিটাল নজরদারির ব্যবস্থা স্থাপন করা।

 

রবি স্মার্ট সিটি ইন্টারনেট অব থিংস’র (আইওটি প্রযুক্তি) আওতায় গড়ে তোলার পরিকল্পনা রয়েছে স্মার্ট এনভায়রনমেন্ট, স্মার্ট স্ট্রিট ল্যাম্প, স্মার্ট বর্জ্য ব্যবস্থাপনা এবং শব্দ দূষণ কমিয়ে আনার পরিকল্পনা রয়েছে। নাগরিক সুবিধার জন্য রবি স্মার্ট পার্কিং সুবিধা, শিক্ষার্থীদের জন্য রবি শাটল সেবা এবং ডিজিটাল ডিসপ্লে স্থাপন করার পরিকল্পনাও রয়েছে।

 

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি সিসিসি’র মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, “বর্তমান সরকার যখন ডিজিটাল বাংলাদেশের কথা বলেছেন, তখন অনেকের এটি সম্পর্কে কোনও ধারণাই ছিল না। কিন্তু এখন সেটি বাস্তবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। একটি সুন্দর নগরী প্রতিষ্ঠা করতে হলে- শব্দ দূষণ, বর্জ ব্যবস্থাপনা, সৌন্দর্য বর্ধন এগুলোর আধুনিকায়ণ দরকার। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ যেভাবে তাদের নগরগুলোকে স্মার্ট নগরীতে রূপান্তর করছে, আমাদরও সেইভাবে এগিয়ে যাওয়া উচিত। এই ক্ষেত্রে রবি সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেয়ায় আমি তাদের ব্যক্তিগতভাবে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। চট্টগ্রামকে স্মার্ট সিটিতে রূপান্তর করতে রবির সাথে আজ আমাদের একটি সমঝোতা স্মারক চুক্তি সই হয়েছে। তারাই মূলত কাজটি করবে, আমরা সেগুলো রক্ষণা-বেক্ষণ করব। ”

 

অনুষ্ঠানে রবি’র ম্যানেজিং ডিরেক্টর অ্যান্ড সিইও মাহতাব উদ্দিন আহমেদ বলেন, “চট্টগ্রাম শহরকে একটি স্মার্ট সিটিতে পরিণত করতে এবং এর নাগরিক সুবিধা বৃদ্ধির লক্ষ্যে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের এই উদ্যোগকে আমরা স্বাগত জানাই। বৈশ্বিক প্রযুক্তিগত অগ্রগতির সাথে তাল মিলিয়ে আমাদের শহরগুলোকে স্মার্ট সিটিতে রূপান্তরের বিকল্প নেই। সেই প্রেক্ষিতে এবং স্মার্ট সিটি গড়ে তোলার উদ্যোগে নিজেদের সম্পৃক্ত করতে পেরে আমরা গর্বিত। দেশজুড়ে বিভিন্ন উদ্ভাবনী সল্যুশনের মাধ্যমে ডিজিটাল সেবা পৌঁছে দিতে বদ্ধপরিকর রবি এবং ডিজিটাল অগ্রগতিতে নেয়া যে কোন তাৎপর্যপূর্ণ পদক্ষেপে আমরা সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিতে প্রস্তুত।”

 

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার কাজী মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক, চিফ রেভিনিউ অফিসার নজরুল ইসলাম, সেক্রেটারি খালেদ মাহমুদ, চিফ ইঞ্জিনিয়ার রফিকুল ইসলাম, মেয়রের পিএস মোহাম্মদ আবুল হাসেম এবং সুপারিনটেনড ইঞ্জিনিয়ার (পাওয়ার) ঝুলন কুমার দাশ।

 

আরো উপস্থিত ছিলেন রবি আজিয়াটা লিমিটেড’র চিফ কর্পোরেট অ্যান্ড রেগুলেটরি অফিসার সাহেদ আলম, চিফ এন্টারপ্রাইজ বিজনেস অফিসার মো. আদিল হোসেন নোবেল, কর্পোরেট বিজনেস’র ভাইস প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ ফাহমিদুল হাসান এবং চট্টগ্রাম এন্টারপ্রাইজ বিজনেস’র জেনারেল ম্যানেজার আরিফ আহমেদ চৌধুরী।