৯ মাসের মধ্যে সকল বিভাগীয় শহরে ফোরজি

মার্চের মধ্যেই জনগণের কাছে ফোরজি সেবা পৌঁছে দেয়া যাবে বলে জানিয়েছেন বিটিআরসি চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ।

রোববার বিটিআরসি কার্যালয়ে ফোরজি নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, অপারেটরগুলো ফোরজি সেবা দেয়ার জন্য প্রস্তুত হয়েই আছে। সে হিসেবে এটি চালু করতে সময় লাগবে না।রোববার দুপুর ১২ছিল ফোরজি আবেদনের শেষ সময়।

এরপর বিকাল ৪টায় সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ফোরজি লাইসেন্সের জন্য সিটিসেল, গ্রামীণফোন, বাংলালিংক, রবি এবং টেলিটক আবেদন করেছে। তবে স্পেকট্রামের জন্য টেলিটক আবেদন করেনি। রাষ্ট্রায়ত্ত্ব অপারেটর টেলিটকসহ যে চারটি অপারেটর এখন থ্রিজি সেবা দিচ্ছে তারা প্রত্যেকেই ফোরজির লাইসেন্স পাবে যদি তাদের আবেদন এবং সংশ্লিষ্ট কাগজপত্র ঠিক থাকে।

তবে ফোরজির জন্যে সিটিসেলকে নতুন অপারেটর হিসেবে ধরা হবে। আর সে কারণে সিটিসেল কোনো স্পেকট্রাম কিনলেই কেবল তাকে ফোরজির লাইসেন্স দেওয়া হবে।

অপারেটরদেরকে কিছু নিয়ম দেয়া হয়েছে। যেদিন ৪জি লাইসেন্স প্রদান করা হবে সেদিন থেকে ৯ মাসের মধ্যে সকল বিভাগীয় শহরে সেবা প্রদান করতে হবে। যেদিন ৪জি লাইসেন্স প্রদান করা হবে সেদিন থেকে ১৮ মাসের মধ্যে ৩০% জেলা শহরে সেবা প্রদান করতে হবে। ৪জি লাইসেন্স প্রদান করা হবে সেদিন থেকে ৩৬ মাসের মধ্যে সকল জেলা শহরে সেবা প্রদান করতে হবে।

সিনিউজভয়েস//ডেস্ক/

Please Share This Post.