১৮০ ডিগ্রি বাঁকানো দশম প্রজন্মের নতুন ল্যাপটপ ছাড়লো ওয়ালটন

তিন মডেলের সাশ্রয়ী মূল্যের নতুন ল্যাপটপ বাজারে ছাড়লো দেশীয় প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন। ‘ট্যামারিন্ড ইএক্সটেন প্রো’ সিরিজের ওই ল্যাপটপগুলোর ডিসপ্লে ১৮০ ডিগ্রি পর্যন্ত বাঁকানো বা ভাঁজ করা যায়। মডেলভেদে ল্যাপটপগুলোতে ব্যবহৃত হয়েছে ইন্টেলের দশম প্রজন্মের কোরআই থ্রি থেকে কোরআই সেভেন প্রসেসর, ৮ গিগাবাইট র‌্যাম, ৫১২ গিগাবাইট সলিড স্টেট ড্রাইভসহ অত্যাধুনিক সব ফিচার।

ওয়ালটন সূত্রে জানা গেছে, কোর আই থ্রি প্রসেসরযুক্ত ট্যামারিন্ড ইএক্স৩১০জি প্রো মডেলের ল্যাপটপটির দাম মাত্র ৪২,৭৫০ টাকা। আর কোর আই ফাইভ প্রসেসরযুক্ত ট্যামারিন্ড ইএক্স৫১০জি প্রো মডেলের ল্যাপটপটির মূল্য ৫৪,৫৫০ টাকা। অন্যদিকে, কোর আই সেভেন প্রসেসরযুক্ত ট্যামারিন্ড ইএক্স৭১০জি প্রো মডেলের ল্যাপটপটির দাম পড়ছে মাত্র ৬৪,৫৫০ টাকা। দেশের সব ওয়ালটন প্লাজা, ডিস্ট্রিবিউটর শোরুম, আইটি ডিলার এবং মোবাইল ডিলার শোরুমে নগদ মূল্যের পাশাপাশি এই ল্যাপটপগুলো কিস্তিতে কেনা যাবে। রয়েছে ১০০ শতাংশ পর্যন্ত নিশ্চিত ক্যাশব্যাক পাওয়ার সুযোগ। তাছাড়া ক্রেডিট কার্ডে বিনা ইন্টারেস্টে ইএমআই সুবিধা দিচ্ছে দেশের ৩৭২টি ওয়ালটন প্লাজা। অনলাইনের ই-প্লাজা (https://eplaza.waltonbd.com) থেকে অর্ডার করলে থাকছে নগদ মূল্যে ১০ শতাংশ ছাড়। এছাড়া, শিক্ষার্থীদের জন্য ওয়ালটন ল্যাপটপ কেনায় রয়েছে বিশেষ সুবিধা।

ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ডস্ট্রিজ লিমিটেডের ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর এবং কম্পিউটার পণ্যের সিইও মো. লিয়াকত আলী বলেন, ক্রেতাদের চাহিদা ও প্রয়োজনীয়তা অনুযায়ী আমরা প্রতিনিয়ত সর্বাধুনিক প্রযুক্তির উন্নতমানের ডিজিটাল ডিভাইস উৎপাদন এবং সাশ্রয়ী মূল্যে বাজারজাত করছি। এরই ধারাবাহিকতায় ইন্টেলের দশম প্রজন্মের প্রসেসরযুক্ত ট্যামারিন্ড সিরিজের ওই তিন মডেলের ল্যাপটপ বাজারে ছাড়া হয়েছে। মাল্টিটাক্সিং সুবিধা ও উন্নত ফিচারসমৃদ্ধ উচ্চমানের এই ল্যাপটপ প্রয়োজনীয় কাজ, গেম খেলা কিংবা বিনোদনে ব্যবহারকারীদের দেবে আরো বেশি গতিময় অভিজ্ঞতা। সাশ্রয়ী মূল্যের নতুন এই ল্যাপটপগুলোর বিশেষ বৈশিষ্ট্য হলো সুদৃশ্য ডিজাইন, উন্নত ফিচার, দারুণ পারফরমেন্স, দীর্ঘস্থায়িত্বতা এবং বাংলা ফন্টযুক্ত মাল্টি ল্যাঙ্গুয়েজ কি-বোর্ড। মূলত প্রযুক্তিপ্রেমীদের প্রয়োজনীয়তা ও চাহিদার কথা বিবেচনা করেই নতুন এই ল্যাপটপগুলো বাজারে ছাড়া হয়েছে।

ওয়ালটন কম্পিউটার বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, নতুন এই সিরিজের কোরআইথ্রি ল্যাপটপে ব্যবহার করা হয়েছে ১৪ ইঞ্চির এইচডি (১৩৬৬ বাই ৭৬৮ পিক্সেল) ম্যাট আইপিএস এলইডি ব্যাকলিট ডিসপ্লে। আর কোরআই ফাইভ ও সেভেন ল্যাপটপে ব্যবহার করা হয়েছে ১৪ ইঞ্চির ফুল এইচডি (১৯২০ বাই ১০৮০ পিক্সেল) ম্যাট আইপিএস এলইডি ব্যাকলিট ডিসপ্লে। ফলে এতে স্পষ্ট ও প্রাণবন্ত ছবি দেখার অভিজ্ঞতা মিলবে। গেম খেলা, কাজ করা বা মুভি দেখায় পাওয়া যাবে অসাধারণ অনুভূতি। এর ম্যাট ডিসপ্লে প্যানেল আলোর প্রতিফলন রোধ করবে। যা চোখকে আরাম দেবে। দীর্ঘক্ষণ গেম খেলা বা কাজ করায় চোখের ওপর বিরূপ প্রভাব পড়বে না।

কোর আই সেভেন ল্যাপটপের গ্রাফিক্স হিসেবে আছে ইন্টেল আইরিস প্লাস। আর কোর আই থ্রি ও ফাইভে রয়েছে ইন্টেলের আল্ট্রা এইচডি গ্রাফ্রিক্স। দীর্ঘক্ষণ পাওয়ার ব্যাকআপের নিশ্চয়তায় উভয় ল্যাপটপে ব্যবহৃত হয়েছে শক্তিশালী ৩ সেলের স্মার্ট লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারি। যা প্রায় ৭ ঘন্টা ব্যাটারি ব্যাক-আপ দিতে সমর্থ। স্পষ্ট ভিডিও কল ও আকর্ষণীয় সেলফির জন্য রয়েছে ১ মেগা পিক্সেলের এইচডি ক্যামেরা।

ল্যাপটপগুলোর অন্যান্য ফিচারের মধ্যে রয়েছে হাই ডেফিনেশন অডিও, বিল্ট ইন অ্যারে মাইক্রোফোন, দুইটি ২ ওয়াটের স্পিকার, মাল্টি ল্যাঙ্গুয়েজ ফুল সাইজ কি-বোর্ড। কানেকটিভিটি ফিচারের মধ্যে আছে ১টি ইউএসবি ৩.২ টাইপ এ পোর্ট, ১টি ইউএসবি ৩.২ টাইপ সি পোর্ট, ১টি ইউএসবি ২.০ পোর্ট, মাইক্রো এসডি কার্ড রিডার, ডুয়াল ব্যান্ড ওয়াইফাই, ব্লুটুথ ৫.১, ২টি এম.২ কার্ড স্লট, এইচডিএমআই, মিনি ডিসপ্লে পোর্ট ইত্যাদি।

এতসব ফিচার থাকা সত্ত্বেও আকর্ষণীয় ডিজাইনের ল্যাপটপটি বেশ হালকা। ব্যাটারিসহ ওজন মাত্র ১.৩ কেজি। ফলে যে কোনো স্থানে সহজেই বহন করা যাবে। এর দৈর্ঘ্য ৩২৪.৯ মিমি, ২১৯ মিমি চওড়া এবং পুরুত্ব ১৯.৪ মিমি।

‘ট্যামারিন্ড ইএক্সটেন প্রো’ সিরিজের এই ল্যাপটপগুলোতে গ্রাহকরা ওয়ালটন সার্ভিস সেন্টার থেকে ২ বছরের বিক্রয়োত্তর সেবা পাবেন।

ওয়ালটন সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে তারা বিভিন্ন কনফিগারেশনের ৭ সিরিজের মোট ১৬ মডেলের ডেস্কটপ উৎপাদন ও বাজারজাত করছে। যার মূল্য ২৬,৯৯০ টাকা থেকে ১০৫,০৫০ টাকার মধ্যে। আছে ৩ মডেলের অল-ইন-ওয়ান পিসি। যার মূল্য ৪৬,৯৫০ থেকে ৫৫,৫০০ টাকার মধ্যে। এছাড়া ওয়ালটনের রয়েছে প্রিলুড, প্যাশন, ট্যামারিন্ড, কেরোন্ডা এবং ওয়াক্সজ্যাম্বু সিরিজের ২১ মডেলের ল্যাপটপ। যেগুলো পাওয়া যাচ্ছে মাত্র ২৮,৭৫০ টাকা থেকে ১৬৮,৫০০ টাকায়।

এছাড়া বিভিন্ন মডেলের মনিটর, মেমোরি কার্ড, র‌্যাম, এসএসডি ড্রাইভ, মাউস, কিবোর্ড, পেন ড্রাইভ, ইয়ারফোন, ওয়াই-ফাই রাউটার, ইউএসবি ক্যাবল, স্পিকার, পাওয়ার সাপ্লাই ইউনিট, ইউপিএস ইত্যাদি উৎপাদন ও বাজারজাত করছে ওয়ালটন।

Please Share This Post.