১২তম স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলার সফল সমাপ্তী

শনিবার রাত সাড়ে আটটার দিকে শেষ হয় এবারের ১২তম গ্রীষ্মকালীন স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলার ক্রয়-বিক্রয়। প্রায় সবগুলো স্টলই মেলার শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত ছিল দর্শনার্থীদের ভিড়। গতমেলা গুলোর চেয়ে এবারে মেলায় অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানের সবগুলোই ব্যাপক সারা পেয়েছে।

রাজধানী আগারগাঁওয়ের বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) গত বৃহস্পতিবার শুরু হয়েছিল স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলা।

মেলায় অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা বলছেন, নতুন সব উদ্ভাবন ও প্রযুক্তির হ্যান্ডসেট ও স্মার্ট ডিভাইসে ছাড় আর অফারের মাধ্যমে ক্রেতাদের সন্তুষ্ট  করতে পেরেছি। ফলে বেচাবিক্রিও হয়েছে অনেক বেশি।

ক্রেতারাও অফার আর ছাড়ে স্মার্টফোন ও ট্যাব কিনতে পেরে মহাখুশি। তারা একই ছাদের নিচে পছন্দের সব ধরনের স্মার্টফোন দেখে যাচাই বাচাই করে ভাল ফোনটি  কিনতে পারার জন্য ধন্যবাদ জানান আয়োজক ও অংশগ্রহণকারীদের।

এবারের মেলায় স্যামসাং, হুয়াওয়ে, মটোরোলা, অপ্পো, ভিভো, ডিএক্স টেল তাদের শাওমি, আইফোন, নকিয়া, ম্যাক্সিমাস, ইউমিডিজি, ডিটেল, মোবাইল আউটফিটারস এবং সুরভী এন্টারপ্রাইজ অংশ নিয়ে স্মার্টফোন, অ্যাক্সেসরিজ এবং বিভিন্ন স্মার্ট গ্যাজেট বিক্রি করে।

মেলায় ছিল স্যামসাংয়ের গেইমিং জোন।

মেলার সমন্বয়কারী এক্সপো মেকারের এজিএম সিরাজুল ইসলাম সার্থক সিনিউজকে বলেন, ক্রেতারা যাতে এক ছাদের নিচে সব ধরনের নতুন হ্যান্ডসেট ও গ্যাজেট পান এবং সেটা যেন বিভিন্ন ছাড় আর উপহারের মাধ্যমে পান সে জন্যই এমন আয়োজন। ভবিষ্যতে আরও বড় আকারে এমন আয়োজন করা হবে এবং বিভাগীয় শহরগুলোতেও এমন আয়োজন করার পরিকল্পনা রয়েছে।

ফোন কিনতে আসা একজন ক্রেতা বলেন, “মেলায় অনেক ভিড়ের কারনে আমার একাটা ফোন কিনতেই প্রায় আধ ঘন্টা সময় লেগেছে। এই সময়টা আরো কম হওয়া উচিত ছিল। তারপরও পছন্দের ফোনটি ছাড়ে কিনতে পেরে আমার ভাল লাগছে।”

-সিনিউজভয়েস/জিডিটি/জ/০৭জুলাই /২০১৯

Please Share This Post.