১০০০ শিক্ষার্থী পেলেন ক্যারিয়ার গাইডলাইন

ঢাকাঃ ১০০০ শিক্ষার্থী অংশগ্রহণে শনিবার বিকেলে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হলো ‘বেসিস আইটি ক্যারিয়ার কনফারেন্স’। বেসিস স্টুডেন্টস ফোরাম, বেসিস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট এবং নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগিতায় বেসিস আয়োজিত এই কনফারেন্সে দেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের বিশেষজ্ঞদের কাছ থেকে সফলতার কথা ও ক্যারিয়ার গাইডলাইন পেলেন অংশগ্রহণকারীরা।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বেসিস সভাপতি ও এফবিসিসিআই পরিচালক শামীম আহসান। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন বেসিসের সিনিয়র সহ-সভাপতি রাসেল টি আহমেদ। উপস্থিত ছিলেন বেসিসের সহ-সভাপতি এম রাশিদুল হাসান, বেসিসের পরিচালক ও বেসিস স্টুডেন্টস ফোরামের আহ্বায়ক আরিফুল হাসান অপু এবং নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড টেলিকমিউনিকেশন বিভাগের সহকারি অধ্যাপক কামাল উদ্দিন।

বেসিস সভাপতি ও এফবিসিসিআই পরিচালক শামীম আহসান তরুণদের স্বপ্ন বাস্তবায়ন, সফলতা ও উজ্জল ভবিষ্যতের জন্য ৭টি বিষয় তুলে ধরেন। তিনি বলেন, জীবনে বড় কিছু হতে হলে নানা প্রতিবন্ধকতা আসবে, সেটাকে নেগেটিভ হিসেবে না নিয়ে পজেটিভ হিসেবে নিয়ে নতুন উদ্যমে এগিয়ে যেতে হবে। সততা, নিষ্ঠতা, পরিশ্রম, একাগ্রতা ইত্যাদি বিষয় মেনে চললে সফলতা আসবেই। তরুণ শিক্ষার্থীদের হাত ধরেই বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাত এগিয়ে যাবে। লক্ষ্যমাত্রার আগেই উন্নত দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হবে বাংলাদেশ।

বেসিসের সিনিয়র সহ-সভাপতি রাসেল টি আহমেদ বলেন, প্রযুক্তির বিকাশের সাথে সাথে গড়ে উঠেছে প্রযুক্তি নির্ভর ক্যারিয়ার। এই ক্যারিয়ার গঠনে শুধুই যে প্রযুক্তি নির্ভর প্রতিষ্ঠানের সার্টিফিকেট থাকা প্রয়োজন, এমনটি নয়। যদি প্রযুক্তির প্রতি ভালোবাসা থাকে তবে যে কোনো ব্যাকগ্রাউন্ডে পড়াশুনা করে তরুণ-তরুণীরা সহজেই তথ্যপ্রযুক্তিতে ক্যারিয়ার গঠন করতে পারবে। এজন্য থাকতে হবে স্বপ্ন ও সে স্বপ্ন বাস্তবায়নের ইচ্ছা।

বেসিসের সহ-সভাপতি এম রাশিদুল হাসান শিক্ষার্থীদের প্রোগ্রামিং পেশায় যুক্ত হতে এবং এই পেশায় সফল হতে করণীয় দিকগুলো সম্পর্কে গাইডলাইন দেন। তিনি বলেন, বর্তমানে বিশ্ববাজারে ভালো প্রোগ্রামারের চাহিদা অনেক। আমাদের তরুণরা নিজেদেরকে উপযোগি করে এই চাহিদা পূরণে ভূমিকা রাখতে ও সফল ভবিষৎ গড়তে পারে।

বেসিস পরিচালক ও বেসিস স্টুডেন্টস ফোরামের আহ্বায়ক আরিফুল হাসান অপু দেশের প্রায় সাড়ে ৩ কোটি শিক্ষার্থীকে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে সম্পৃক্ত করে সহজেই উন্নত বাংলাদেশ গড়ে তোলার সম্ভাবনার কথা তুলে ধরেন।

অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের ক্যারিয়ার বিষয়ে নানা প্রশ্নের উত্তর দেন অতিথিরা। এছাড়া অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড টেলিকমিউনিকেশন বিভাগের সহকারি অধ্যাপক কামাল উদ্দিন, বেসিস আউটসোর্সিং অ্যাওয়ার্ড প্রাপ্ত মুমিতা মেশকাত প্রমুখ।

সিনিউজভয়েস/ডেক্স

Please Share This Post.