হুয়াওয়ে ক্রেতাদের আর্ন্তজাতিক পুরস্কার জয়

স্মার্ট সিটি এক্সপো ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস ২০১৭-তে হুয়াওয়ের চার ক্রেতা পুরস্কার জিতেছেন ও ফাইনালিস্ট হয়েছেন। এ বছরের স্মার্ট সিটি অ্যাওয়ার্ডে প্রায় ৫৮টি দেশের ৩০৯টি প্রতিযোগী অন্যান্য বছরের তুলনায় আরো বেশি প্রতিযোগীতামূলক করে তোলেন।

সারা বিশ্বে সৃজনশীল ও অভিনব উপায়ে স্মার্ট সিটি গড়ে তোলার উপায়ের উপর এ বছরের প্রতিযোগীতা আবর্তিত হয়। এ আয়োজনটি স্পেনের বার্সেলোনায় ৭ম বারের মত নভেম্বরের ১৪-১৬ তারিখ অনুষ্ঠিত হলো।

চীনের শেনঝেন শহর তাদের ‘স্মার্ট ট্রান্সপোর্টেশন’ প্রকল্পের মাধ্যমে ‘সেফ সিটি অ্যাওয়ার্ড’ জিতে নেয়। সৌদি আরবের ইয়ানবু জিতে নেয় ‘ডাটা ও টেকনোলজি’ অ্যাওয়ার্ড। এছাড়া চীনের ওয়েইফ্যাং শহর ফাইনালে ওঠে। ক্যামেরুন ‘ইনোভেশন আইডিয়া অ্যাওয়ার্ড’-এর জন্য নির্বাচিত হয় তাদের সৌরশক্তি প্রকল্পের জন্য। এ সকল শহরগুলো তাদের বিভিন্ন উন্নয়নভিত্তিক চাহিদা মেটানোর জন্য সিটি কর্পোরেশনের প্রয়োজন অনুযায়ী হুয়াওয়ের ‘স্মার্ট সিটি সল্যুশন’ ব্যবহার করেছে। এই সল্যুশনে ডিজিটাল পরিবর্তনের মাধ্যমে প্রশাসন, অর্থনীতি ও জনসেবার মানোন্নয়ন করা হয়।

শেনঝেন শহর ‘সেফ সিটি অ্যাওয়ার্ড’ জিতে নেয়। শেনঝেন শহরের ট্র্যাফিক পুলিশ ও হুয়াওয়ের যৌথপ্রকল্পের আওতায় শহরের ট্র্যাফিক সিস্টেম ও নিরাপত্তা নিয়ে কাজ করা হয়। এই প্রকল্পে শেনঝেন ট্র্যাফিক পুলিশকে শহরের ট্র্যাফিক জ্যাম, দুর্ঘটনা ও চালকের নিরাপত্তাভিত্তিক যাবতীয় উন্নয়নের কাজে হুয়াওয়ে সাহায্য করেছে। এ প্রকল্পে ট্র্যাফিক পুলিশ ‘বিগ ডাটা’ কাঠামোতে কাজ করেছে যেখানে বিশাল সংখ্যক তথ্য-উপাত্তের উপর ভিত্তি করে এক ধরনের স্বয়ংক্রিয় ‘ট্র্যাফিক ব্রেইন’ তৈরি করা হয় যা শহরের যানজট নিয়ন্ত্রণ করে রাস্তার ধারণক্ষমতা বৃদ্ধি করে প্রায় ৮%।

ইয়ানবু শহর ‘ডাটা ও টেকনোলজি’ পুরস্কারটি জিতে নেয়। সৌদি আরব ২০১৬ সালে ‘ভিশন ২০৩০’ নামে একটি প্রকল্প চালু করে। এই প্রকল্পের অন্যতম প্রধান লক্ষ্য ছিল ইয়ানবু শহরের টেকসই উন্নয়ন। শহরের ডিজিটাল পরিবর্তনের মাধ্যমে প্রথম ‘স্মার্ট সিটি’ হিসেবে গড়ে ওঠার পাশাপাশি হুয়াওয়ে একটি অপটিক্যাল নেটওয়ার্ক চালু করে যা সকল বাসগৃহ, ব্যবসাস্থল এবং অন্যান্য এলাকায় প্রযুক্তি পৌঁছে দিচ্ছে।
ওয়েইফ্যাং শহর সিটি অ্যাওয়ার্ডের ফাইনালিস্ট হয়েছে। ‘বিগ ডাটা’, ক্লাউড কম্পিউটিং, মোবাইল ইন্টারনেট ও অন্যান্য প্রযুক্তির মাধ্যমে ‘মানবকেন্দ্রিক প্রযুক্তির উদ্ভাবনের দ্বারা চালিত’ মূলভাবের উপর ভিত্তি করে তারা ওয়েইফ্যাং ৩.০ নামক প্রকল্পটি উপস্থাপন করে।

ক্যামেরুন তাদের সৌরশক্তি প্রকল্পের মাধ্যমে ‘ইনোভেশন আইডিয়া অ্যাওয়ার্ড’-এর জন্য নির্বাচিত হয়। ক্যামেরুন হুয়াওয়ের মাইক্রোগ্রিড সোলার প্ল্যান্টের মাধ্যমে মাঝারি-উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন পাওয়ার গ্রিড ও হাইড্রোপাওয়ার স্টেশনকে কাজে লাগিয়েছে। এই নতুন পাওয়ার প্ল্যান্ট দ্রুত কার্যক্ষমতা সম্পন্ন ও স্বল্প পুঁজির যা সরকারকে গ্রামাঞ্চলে বিদ্যুতায়নে সহায়তা করে।

এ প্রসঙ্গে হুয়াওয়ে এন্টারপ্রাইজ বিজনেস গ্রুপের প্রেসিডেন্ট ইয়ান লিডা বলেন, ‘স্মার্ট সিটি প্রকল্পের মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে উন্নত সরকারী সেবা, শিল্পোন্নয়ন এবং জনগণের জীবনযাত্রার মানোন্নয়ন।’ আমাদের ক্রেতা ও পার্টনারদের নিয়ে সরকারি সেবার মানোন্নয়ন ও সেবাবৃদ্ধি ও অর্থনৈতিক উদ্ভাবনের মাধ্যমে আমরা এই অভিষ্ট লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে যাচ্ছি। এর ফলে এই শহরগুলো দিনে দিনে আরো বাসযোগ্য হয়ে উঠবে।

– সিনিউজভয়েস ডেস্ক

Please Share This Post.