হুয়াওয়ের ২টি স্মার্টফোনে বাংলালিংকের আকর্ষণীয় বান্ডেল অফার

দেশের বাজারে বাংলালিংকের ইন্টারনেট এবং টকটাইম বান্ডেল অফারসহ ওয়াই থ্রি টু এবং ওয়াই ফাইভ টু মডেলের স্মার্টফোন কেনার সুযোগ আনল বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন ব্র্যান্ড হুয়াওয়ে

বাংলাদেশের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় ডিজিটাল কমিউনিকেশনস সেবাপ্রদানকারী মোবাইল অপারেটর বাংলালিংক জনসাধারণের জন্য প্রতিনিয়ত সাধ্যের মধ্যে মোবাইল সেবা দিয়ে থাকে। এরই ধারাবাহিকতায় ৪ আগস্ট বৃহস্পতিবার, গুলশানে বাংলালিংকের প্রধান কার্যালয় ‘টাইগারস ডেন’-এ বিশ্বখ্যাত স্মার্টফোন ব্র্যান্ড হুয়াওয়ে ওয়াই থ্রি টু এবং ওয়াই ফাইভ টু-এর সঙ্গে বান্ডেল অফার উন্মোচন করেছে।

উন্মোচন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন হুয়াওয়ে টেকনোলজিস (বাংলাদেশ) লিমিটেডের ডিরেক্টর অব ডিভাইস বিজনেস ইংমার ওয়্যাং, ডিভাইস বিজনেসের হেড অব বিটুবি আনোয়ার সাদাত কবির, ডিভাইস বিজনেসের হেড অব মার্কেটিং মাশরুর হাসান মীম, ডিভাইস বিজনেসের মার্কেটিং ম্যানেজার বার্নার্ড ওয়্যাং এবং বাংলালিংকের সিইও এরিক অস প্রমুখ। বাংলালিংকের পক্ষে আরো উপস্থিত ছিলেন প্রতিষ্ঠানটির হেড অব ডিভাইস শাহরিয়ার আহমেদ রিমন এবং ডিভাইস সিনিয়র ম্যানেজার শিবলী সাদিক।

হুয়াওয়ের স্মার্টফোন দুটি সকল পুরাতন ও নতুন বাংলালিংক প্রি-পেইড ও কল অ্যান্ড কন্ট্রোল গ্রাহকরা বান্ডেল অফার উপভোগ করতে পারবেন। উল্লেখ্য, সারাদেশে হুয়াওয়ে ও বাংলালিংক আউটলেট থেকে ওয়াই থ্রি টু এবং ওয়াই ফাইভ টু কেনা যাবে।

স্মার্টফোন কেনার শখ কমবেশি সবার তবে বাজেট নিয়ে পড়তে হয় ঝামেলায়। স্বল্প বাজেটে ভালো মানের স্মার্টফোন সবার হাতের নাগালে পৌঁছে দিতেই হুয়াওয়ে দেশের বাজারে ওয়াই থ্রি টু এবং ওয়াই ফাইভ টু বাজারে নিয়ে এসেছে। বাংলালিংক অফার হ্যান্ডসেটগুলোতে যুক্ত করেছে বাড়তি আকর্ষণ।

পছন্দের মূহুর্তগুলো ক্যামেরাবন্দী করতে হুয়াওয়ে ওয়াই থ্রি টু-তে ব্যবহার করেছে ৫ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা এবং ২ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। এছাড়া ১.৩ গিগাহার্জ কোয়াড কোর প্রসেসরের সঙ্গে থাকছে এক জিবি ram ও আট জিবি রম। মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে হ্যান্ডসেটের মেমোরি বাড়ানো যাবে ৩২ জিবি পর্যন্ত। অ্যান্ড্রয়েড ৫.১ ললিপপ অপারেটিং সিস্টেমে চালিত ওয়াই থ্রি টু-তে আছে থ্রিজি নেটওয়ার্ক ব্যবহারের সুবিধা, ওয়াইফাই, হটস্পট এবং জি-সেন্সর প্রযুক্তি। দীর্ঘ সময় ব্যাকআপ দেয়ার জন্য এতে আছে ২১০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি।

৪.৫ ইঞ্চির আপিএস ডিসপ্লের হুয়াওয়ে ওয়াই থ্রি টু ক্রয় করলে ১৮ জিবি ইন্টারনেট ডাটা, ৭৫০ মিনিট টকটাইম (বাংলালিংক-বাংলালিংক) ও ৭৫০ মিনিট টকটাইম (বাংলালিংক- অন্য অপারেটর) তিনমাস মেয়াদে উপভোগ করতে পারবেন ক্রেতারা যা হ্যান্ডসেট সমমূল্যের বোনাস। মোট তিনমাসের প্রতিমাসে ছয় জিবি ইন্টারনেট ডাটা, ২৫০ মিনিট টকটাইম (বাংলালিংক-বাংলালিংক) ও ২৫০ মিনিট টকটাইম (বাংলালিংক- অন্য অপারেটর)। প্রতি বোনাসের মেয়াদ ৩০ দিন। ইন্টারনেট বোনাস পেতে হুয়াওয়ে ওয়াই থ্রি টু-এর জন্য “৩২” টাইপ করে পাঠাতে হবে ৪৩২১ নম্বরে। হ্যান্ডসেটটির দাম ৬,১৯০ টাকা।

অন্যদিকে, পাঁচ ইঞ্চির ডিসপ্লের ওয়াই ফাইভ টু-তে আছে ১.৩ গিগাহার্টজের কোয়াড কোর প্রসেসর, এক জিবি র‌্যাম ও আট জিবি রম। ছবি তোলার জন্য উন্নতমানের আট মেগাপিক্সেল রিয়ার এবং দুই মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। এইচডিতে ভিডিও দেখার পাশাপাশি এতে গেইম খেলা যাবে পাঁচ ইঞ্চির বড় স্ক্রিনে।

হুয়াওয়ে ওয়াই ফাইভ টু ক্রয় করলে ২৪ জিবি ইন্টারনেট ডাটা, ১,৫০০ মিনিট টকটাইম (বাংলালিংক-বাংলালিংক) ও ১,৫০০ মিনিট টকটাইম (বাংলালিংক- অন্য অপারেটর) তিনমাস মেয়াদে উপভোগ করতে পারবেন ক্রেতারা যা হ্যান্ডসেট সমমূল্যের বোনাস। মোট তিনমাসের প্রতিমাসে আট জিবি ইন্টারনেট ডাটা, ৫০০ মিনিট টকটাইম (বাংলালিংক-বাংলালিংক) ও ৫০০ মিনিট টকটাইম (বাংলালিংক- অন্য অপারেটর)। প্রতি বোনাসের মেয়াদ ৩০ দিন। ইন্টারনেট বোনাস পেতে হুয়াওয়ে ওয়াই ফাইভ টু-এর জন্য “৫২” টাইপ করে পাঠাতে হবে ৪৩২১ নম্বরে। উল্লেখ্য, হুয়াওয়ে ওয়াই ফাইভ টু-এর দাম ৮,৯৯০ টাকা।

হুয়াওয়ে টেকনোলজিস (বাংলাদেশ) লিমিটেডের ডিরেক্টর অব ডিভাইস বিজনেস ইংমার ওয়্যাং বলেন, “স্মার্টফোন একটি যুগান্তকারী উদ্ভাবণ। বর্তমানে মানুষের দৈনন্দিন জীবনে স্মার্টফোনের ব্যবহার ব্যাপক অর্থবহ। মূলত, বাংলাদেশের মতো দেশে স্মার্টফোনের ব্যবহার দ্রুত গতিতে বৃদ্ধি পাচ্ছে আর হুয়াওয়ে সবার হাতে স্বল্প দামে স্মার্টফোন পৌঁছে দিতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।”

বাংলালিংকের হেড অব ডিভাইস শাহরিয়ার আহমেদ রিমন বলেন, “ডিজিটাল সেবাপ্রদানকারীর হিসেবে আমরা সবসময় জনসাধারণের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে সেরা ডিভাইসটি নিয়ে আসার লক্ষ্যে কাজ করি। হুয়াওয়ের সঙ্গে মিলে আকর্ষণীয় বান্ডেল অফার আনতে পেরে আমরা উচ্ছসিত।”

 

– সিনিউজভয়েস ডেস্ক

Please Share This Post.