হাতের মুঠোয় চিকিৎসা তথ্য

অনেক পুরোনো একটা কৌতুক মনে পড়ে গেল। ছেলের মহাজ্বর। কিন্তু তিতা স্বাদের কুইনাইন খেতে চাইছে না। বাবা ছেলেকে মিষ্টি খেতে দিলেন। আর মিষ্টির মধ্যে ট্যাবলেটটা ঢুকিয়ে দিলেন। পরে ছেলেকে জিজ্ঞেস করলেন, মিষ্টিটা খেয়েছ? ছেলের জবাব, হ্যাঁ বাবা। কিন্তু মিষ্টির বিচিটা ফেলে দিয়েছি।

ছেলেবেলায় ওষুধ খেতে অনেকেরই অনীহা থাকে। আর বড় হয়ে সেই অনীহা হয়তো কেটে যায়, কিন্তু ডাক্তারের বিধান মেনে নিয়ম করে ওষুধ খাওয়া হয়ে ওঠে না। কিংবা নিয়মিত রক্তচাপ মাপা, রক্তের চিনি মাপাটাও হয় না। ডাক্তার যখন বলেন, কেন ওষুধ খাননি? বা কেন সুগার মাপেনি? উত্তর একটাই ভুলে গিয়েছিলাম। এই ব্যস্ত সময়ে একজন প্রাপ্তবয়ষ্ক মানুষকে কেইবা এসব মনে করিয়ে দিবে।

তবে স্মার্টফোনে দেশীয় অ্যাপ ‘মেডিসিফাই’ ব্যবহার করলে কিন্তু মনে রাখার বিষয়টা এখন হাতের মুঠোয়। মেডিসিফাই অ্যাপ এমনভাবে তৈরি করা হয়েছে যাতে যেকেউ তার ওষুধ সেবনের সব তথ্য এতে সংরক্ষণ করতে পারবেন। কবে কোন চিকিৎসকের সঙ্গে অ্যাপয়নমেন্ট রয়েছে সে তথ্যও রাখা যাবে। রক্তচাপ ও রক্তের শর্করার পরিমাণ নিয়মিত মেপে সে তথ্যও রাখা যাবে। পাশাপাশি যখন যে তথ্যের দরকার হবে তখন সময়মতো স্মার্টফোনের স্বয়ংক্রিয় অ্যালার্ম দিয়ে তা জানিয়ে দেবে মেডিসিফাই।

অ্যান্ড্রয়েড ও আইওএস দুই অপারেটিং সিস্টেমেই চলে এই অ্যাপ। মেডিসিফাইয়ের স্ক্রিনটি সহজবোধ্য ও সুন্দর। ইংরেজিতে মেন্যু হলেও প্রতিটি আইকনে আছে ছবি। ফলে সহজে যেকেউ বুঝতে পারবে কোনটায় কোন তথ্য রয়েছে কিংবা কোনটার কী কাজ। শুধু নিজের বা প্রিয়জনের স্বাস্থ্য ও চিকিৎসাবিষয়ক তথ্য যে রাখা যাবে এতে তা নয়, পোষা প্রাণীর চিকিৎসার সব তথ্যও এতে সংরক্ষণ করা যাবে।

মেডিসিফাইয়ের মূল মেন্যু সাতটি। ছোট বৃত্তে সাতটি মেন্যু বৃত্তাকারভাবে সাজানো আছে। ফলে এটা ব্যবহার করা সহজ। যে সাতটি মেন্যু রয়েছে সেগুলো হলো- ১. ডক্টরস অ্যাপয়েন্টমেন্ট অ্যালার্ম, ২. ভ্যাকসিনেশন অ্যালার্ম, ৩. মেন্যুস্ট্রেয়েশন অ্যালার্ম, ৪. ল্যাব টেস্ট ডেট অ্যালার্ম, ৫. মনিটরিং, ৬. ইমার্জেন্সি কল ও ৭. মেডিসিন অ্যালার্ম।

দৈনন্দিন যেটা প্রয়োজন সেই মেডিসিন অ্যালার্মকে কেন্দ্র করে অন্য মেন্যুগুলো সাজানো রয়েছে। প্রতিটি মেন্যুই বলে দিচ্ছে কোনটার কী কাজ। মেডিসিফাইয়ে আপনার কাজ হচ্ছে প্রতিটি মেনুতে তথ্য যোগ করা। আর সবগুলো মেনুতে তথ্য যোগ করার নিয়মটা প্রায় একরকমেরই। তথ্য লেখার বা ইনপুট দেওয়ার স্ক্রিনগুলো একরকম চেহারার হওয়ায় ব্যবহারকারীর সুবিধাই হবে বেশি। ইনপুট ইংরেজিতে দেওয়া যাবে। তবে স্মার্টফোন বাংলা লেখার অ্যাপ থাকলে বাংলাতেও লিখে রাখা যাবে।

ডক্টরস অ্যাপয়েন্টমেন্ট অ্যালার্ম
এতে ডাক্তারের সঙ্গে কবে দেখা করতে হবে তার তথ্য লিখে দিতে হবে। রোগীর নাম, ডাক্তারের নাম, তার অভিজ্ঞতা, ঠিকানা, ফোন নম্বর লেখার ঘর রয়েছে। এসব ঘরে তথ্য ইনপুট দিতে হয়। নোট নামে যে ঘর আছে তাকে দরকারি কোনো তথ্যও যোগ করা যাবে। রিমাইন্ডার অংশে গিয়ে কবে কখন অ্যাপয়েন্টমেন্ট সেই তারিখ ও সময় ক্যালেন্ডারের সাহায্যে শুধু আঙুল ছুঁয়ে নির্ধারণ করা যাবে। ডেট অংশে ঠিক করা যাবে প্রতিদিন নাকি নির্দিষ্ট কোন দিন সেই তথ্য। এরপর অ্যালাম সেট করলেই মূল কাজ শেষ। এই তথ্য সেভ, রিসেট (নতুন করে তথ্য দেওয়া) ও ডিলিট (মুছে ফেলা) করার অপশন আছে নিচের বারে।
একাধিক ডাক্তারের অ্যাপয়েন্টমেন্ট এই একটি জায়গাতেই রাখা যাবে। অ্যাপয়েন্টমেন্টের আগে নির্দিষ্ট সময়ে অ্যালার্ম দিয়ে ব্যবহারকারীকের জানিয়ে দেবে মেডিসিফাই।

ভ্যাকসিনেশন অ্যালার্ম
টিকা দেওয়ার সময়সূচি রাখা যাবে এখানে। রোগীর নাম, টিকার ধরনের নাম, ব্র্যান্ড নাম ও বর্ণনা লেখার ঘর এতে রয়েছে। এরপর অ্যালার্ম সেট করার অপশনগুলো। তথ্য সেভ, রিসেট (নতুন করে তথ্য দেওয়া) ও ডিলিট (মুছে ফেলা) করার অপশন আছে নিচের বারে।

মেন্যুস্ট্রেয়েশন অ্যালার্ম
নারীদের জন্য বিশেষ কাজে লাগবে এই মেনুটি। পিরিয়ডের (ঋতুস্রাব) সঠিক হিসাব রাখা যাবে এটি দিয়ে। সাধারণত মাসের যে সময়ে পিরিয়ড হয়ে থাকে সেই সময়টাতে অ্যালার্ম দিয়ে জানিয়ে দেবে মেডিসিফাই। এই মেন্যুতে ঢুকলেই প্রথম ঘরটিতে পিরিয়ড হওয়ার তারিখ যোগ করে দিতে হবে। এরপরের ঘরে পিরিয়ড শেষের তারিখ। এরপরে রিমাইন্ডারের সময় ও তারিখ নির্ধারণ করে দিতে হবে।
এই তথ্য সেভ, রিসেট (নতুন করে তথ্য দেওয়া) ও ডিলিট (মুছে ফেলা) করার অপশন আছে নিচের বারে।

ল্যাব টেস্ট ডেট অ্যালার্ম
চিকিৎসার প্রধান বিষয় হলো নানারকম পরীক্ষা–নিরীক্ষা। যা নির্দিষ্ট সময়ে ল্যাবে গিয়ে করিয়ে আসতে হয়। আবার টেস্ট করানোর পর নির্দিষ্ট কোনো তারিখে ল্যাব রিপোর্ট সংগ্রহও করা লাগে। এই অপশনে ল্যাব টেস্টের তথ্য দিয়ে রাখলে সময়মতো অ্যালার্মের সাহায্যে তা জানিয়ে দেবে মেডিসিফাই।
এই তথ্য সেভ, রিসেট (নতুন করে তথ্য দেওয়া) ও ডিলিট (মুছে ফেলা) করার অপশন আছে নিচের বারে।

এছাড়া মনিটরিং, ইমার্জেন্সি কল ও মেডিসিন অ্যালার্মের সুবিধাগুলোও আকর্ষণীয়। মেডিসিফাই অ্যাপটি বিনা মূল্যে অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনে https://goo.gl/84RuKQ লিংক ডাউনলোড করা যাবে এবং আইফোনে ডাউনলোড করা যাবে https://goo.gl/V6FhoQ লিংক থেকে।

 

– সিনিউজভয়েস ডেস্ক

Please Share This Post.