স্মার্ট আইসিটির গুরুত্ব নিয়ে প্যানেল আলোচনা

আজ গ্রামীণফোনের আয়োজনে চট্টগ্রাম মহানগরীর আগ্রাবাদে ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে অনুষ্ঠিত ‘অ্যাডভান্সিং চট্টগ্রাম থ্রু স্মার্ট আইসিটি সার্ভিসেস’ শীর্ষক এক প্যানেল আলোচনায় এমনই মতবাদ ব্যক্ত করেন বক্তারা। ‘চট্টগ্রাম আইটি ফেয়ার ২০১৯’ – এর অংশ হিসেবেই এ প্যানেল আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। এবং ‘সোসাইটি অব চিটাগং আইটি প্রফেশনালস’ এবং ‘চিটাগং চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির’ যৌথ আয়োজনে অনুষ্ঠিত হচ্ছে ‘চিটাগং আইটি ফেয়ার ২০১৯’।

অগ্রসরমান অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ও সামগ্রিকভাবে ডিজিটাইজেশনের মাধ্যমে দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। এক্ষেত্রে, দেশের অগ্রযাত্রায় বিশেষত, বাণিজ্যিক নগরী চট্টগ্রামের ভবিষ্যতের সম্ভাবনার দিকে এগিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ প্রভাবক হিসেবে কাজ করবে স্মার্ট আইসিটি সেবাসমূহ।

প্যানেল আলোচনার শুরুতেই মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন গ্রামীণফোনের প্রধান নির্বাহী মাইকেল ফোলি। এ সময় তিনি চতুর্থ শিল্পবিল্পবের সময়ে ডিসরাপশন (নতুন পণ্য ও সেবা নিয়ে আসা) এবং উদ্ভাবনের ভূমিকার বিভিন্ন প্রেক্ষিতের ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

অনুষ্ঠানে গ্রামীণফোনের প্রধান নির্বাহী মাইকেল ফোলি বলেন, ‘চট্টগ্রামকে ডিজিটাইজেশনের মধ্যমণিতে রূপান্তর শুধুমাত্র দেশের অর্থনীতির জন্যই গঠনমূলক হবে না পাশাপাশি, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ভবিষ্যতের বিনিয়োগকারীদের জন্যও এটা উৎসাহজনক বিষয় হিসেবে বিবেচিত হবে।

প্যানলে আলোচনায় বক্তব্য রাখেন চিটাগং চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি মাহবুবুল আলম সিআইপি, গ্রামীণফোনের চিফ বিজনেস অফিসার মাহমুদ হোসেন, ডাটাসফট ম্যানুফ্যাকচারিং অ্যান্ড অ্যাসেম্বলি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হাসান রহমান রতন, চুয়েটের সিএসই বিভাগের অধ্যাপক ও আইইইই বাংলাদেশের ভাইস চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ মশিউল হক এবং চুয়েট আইইইই উইমেন- এর চেয়ারপারসন শিমন মেহজাবীন।

এর আগে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, এমপি তিন দিনব্যাপী ‘চিটাগং আইটি ফেয়ার ২০১৯’ উদ্বোধন করেন।

–সিনিউজভয়েস/

Please Share This Post.