স্মার্টফোনের বাজার অগ্রগতিতে বাংলাদেশে এগিয়ে হুয়াওয়ে

সদ্য বিদায়ী বছর ২০১৬ সালের বার্ষিক হিসাব-নিকাশের ফলাফল সম্প্রতি বের করেছে হুয়াওয়ে। আর বাংলাদেশের স্মার্টফোন বাজারে প্রবৃদ্ধির দিক থেকে হুয়াওয়ে ক্রমবর্ধমান দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলা একটি ব্র্যান্ডে পরিণত হয়েছে। তথ্য অনুযায়ী, বিক্রির ক্ষেত্রে স্থানীয় বাজারে ২০১৫ সালের তুলনায় ২০১৬ সালে ২৩২ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হয়েছে।

মেইট এইট এবং পি নাইন-এর মতো প্রিমিয়াম ফ্ল্যাগশীপ ডিভাইস ২০১৬ সালে বাজারে এনেছে হুয়াওয়ে যার ফলে প্রতিষ্ঠানটির এই প্রবৃদ্ধি। গত বছরের জুন মাসে পি নাইন ডিভাইসটি বাংলাদেশের বাজারে বের হওয়ার পর তা ব্যাপক সাফল্য বয়ে আনে হুয়াওয়ের জন্য। দৃষ্টি-নন্দন ডিজাইন এবং বিশেষ করে ডুয়েল লেন্স ক্যামেরার জন্য অল্প দিনের মধ্যেই বাংলাদেশ এবং বিশ্ব বাজারে জনপ্রিয়তার শীর্ষে চলে আসে পি নাইন। বছর শেষে স্বল্প বাজেটের ডুয়েল লেন্স ক্যামেরার জিআর ফাইভের ২০১৭ সংস্করণ বাংলাদেশের বাজারে অবমুক্ত করেছে হুয়াওয়ে।

গত বছরের নভেম্বরে বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান জিএফকে’র তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশে মোট স্মার্টাফোন ইউনিট বিক্রির ক্ষেত্রে ১৪.৫ শতাংশ বাজার দখলে করে আছে হুয়াওয়ে যার আর্থিক মূল্য হিসেব করলে আসে ১৯.১ শতাংশ। আর এ হিসেব অনুযায়ী, বাংলাদেশের তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে হুয়াওয়ে।

হুয়াওয়ে টেকনলোজিস (বাংলাদেশ) লিমিটেড-এর ডিভাইস বিজনেসের ডিরেক্টর ইংমার ওয়্যাং বলেন, “বিশ্ব বাজারে চলমান প্রবৃদ্ধির পাশাপাশি বাংলাদেশেও উল্লেখযোগ্য প্রবৃদ্ধির ধারা অব্যাহত রেখেছে হুয়াওয়ে। ক্রেতাদের চাহিদার উপর নির্ভর করে স্মার্টফোনে বৈচিত্রের পাশাপাশি প্রিমিয়াম ব্র্যান্ড, গ্লোবাল চ্যানেল এবং সেবার পরিধি দ্রুতগতিতে বৃদ্ধি পাওয়ায় বাংদেশের বাজারে এই সফলতা অর্জনে সক্ষম হয়েছে হুয়াওয়ে। ২০১৭ সালেও আমরা প্রিমিয়াম ডিভাইস বাংলাদেশের বাজারে অবমুক্ত করার ক্ষেত্রে অভিনব প্রযুক্তি এবং উন্নতমান বজায় রাখার চেষ্টা করব। বাংলাদেশের মানুষরা যেনো নতুন প্রযুক্তির স্মার্টফোন ব্যবহার করতে পারে যে লক্ষ্যে আমরা নিত্য-নতুন পণ্য এ দেশে অবমুক্ত করার ব্যাপারে দৃঢ়-প্রতিজ্ঞ। গবেষণা ও উন্নয়ন কেন্দ্র, অভিনব ফিচার এবং আন্তর্জাতিক মান নিশ্চিৎ করব যাতে করে বাংলাদেশের মানুষ সেরা পণ্য ব্যবহার করতে পারে।”

গত ২০১৬ সালে হুয়াওয়ে কনজ্যুমার বিজনেস গ্রুপ ২৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলার পরিমাণ পণ্য বিক্রি করেছে বলে ধারণা করছে যা গত ২০১৫ সালের তুলনায় ৪২ শতাংশ বেশি। গত পাঁচ বছর ধরে প্রবৃদ্ধির এই ধারা বজায় রাখছে প্রতিষ্ঠানটি। আইডিসি-এর তথ্য অনুযায়ী, হুয়াওয়ে ১৩৯ মিলিয়ন ইউনিট স্মার্টফোন রপ্তানী করেছে যা আগের বছরের তুলনায় ২৯ শতাংশ বেশি যেখানে বিশ্বব্যাপি মোট স্মার্টফোন রপ্তানীতে প্রবৃদ্ধি হয়েছে মাত্র ০.৬ শতাংশ। ফলে দেখা যাচ্ছে সবধরনের পণ্য মিলিয়ে হুয়াওয়ে আন্তর্জাতিক বাজারে আধিপত্য ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছে।

-সিনিউজভয়েস ডেক্স

Please Share This Post.