স্মার্টকার্ডের জন্য চোখের আইরিসের ছবি নেবে ইসি

জাতীয় পরিচয়পত্রের (এনআইডি) উন্নতমানের স্মার্টকার্ড বিতরণের সব ধরনের প্রস্তুতি শেষ করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এখন অপেক্ষা শুধু উদ্বোধনের।

আগামী মাসে রাষ্ট্রপতি অথবা প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের পর স্মার্টকার্ড বিতরণের প্রক্রিয়া শুরু হবে।

স্মার্টকার্ড ভুয়া পরিচয়পত্র প্রতিরোধে করবে। কেননা নাগরিকদের ইউনিক নম্বর সংবলিত উন্নতমানের ‘স্মার্টকার্ড’ পেতে মুখের ছবির পাশাপাশি বৃদ্ধা আঙুল ও তর্জনির ছাপ দিলেই হবে না—দুই হাতের ১০ আঙুলের ছাপ দিতে হবে। এছাড়া আইরিশ বা চক্ষুর কনীনিকার ছবিও দিতে হবে। যখন ভোটারদের হাতে এই কার্ড তুলে দেয়া হবে তখন এই সব প্রক্রিয়া সম্পন্ন করবে ইসির সংশ্লিষ্টরা।

এছাড়া নতুন এই স্মার্টকার্ড আধুনিক প্রযুক্তিগত সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন। এই কার্ডে ২৫ ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা রয়েছে, যা নকল করা যাবে না। স্মার্টকার্ডের মেয়াদ হবে ১০ বছর।

স্মার্টকার্ডটি অনলাইনে ও অফলাইনে দু’ভাবেই ভেরিফিকেশন করা যাবে। এতে নাগরিকের তথ্য সংবলিত মাইক্রোচিপস থাকবে। স্মার্টকার্ড ব্যবহারে ২৫ ধরনের সেবা গ্রহণ করা যাবে। তারমধ্যে বিশেষভাবে রয়েছে চাকরির জন্য আবেদন, ভোটার শনাক্তকরণ, ব্যাংক হিসাব খোলা, পাসপোর্ট তৈরি, ই-গভর্নেন্স ও ই-পাসপোর্ট সেবা।

প্রাথমিকভাবে রাজধানী ঢাকা শহরের অর্ধকোটি ভোটার পাবে নতুন কার্ড। ২০১৭ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে পর্যায়ক্রমে সকল ভোটারের হাতে স্মার্টকার্ড তুলে দেবে নির্বাচন কমিশন।

 

– সিনিউজভয়েস ডেস্ক

Please Share This Post.