সিটি ইউনিভার্সিটিতে প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

সিটি ইউনিভার্সিটির ১৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিপার্টমেন্ট অব কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং এর উদ্যোগে ২ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার, নিজস্ব স্থায়ী ক্যাম্পাসে (খাগান, বিরুলিয়া, সাভার ) সিএসই ফেস্টিভ্যাল: আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতার আয়োজন করে।

দেশের ৪০টি সরকারী ও বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪০টি টিমে ১২০ জন ছাত্র-ছাত্রী এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক শিপলু হাওলাদার এর নেতৃত্বে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ১০ সদস্যের একটি বিচারক দল দায়িত্ব পালন করেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির আসন অলংকৃত করেন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) এর ইলেকট্রিকাল ও ইলেকট্রনিকস ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ডিন ও আইটি বিশেষজ্ঞ প্রফেসর ড. মো. কায়কোবাদ। প্রধান অতিথির বক্তৃতায় প্রফেসর কায়কোবাদ বাংলাদেশের সকল সরকারী ও বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আগত মেধাবী শিক্ষার্থীদের প্রোগ্রামিং কন্টেস্ট/প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করার জন্য সাধুবাদ জানান ও সিটি ইউনিভার্সিটির ১৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিপার্টমেন্ট অব কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং এ ধরনের প্রতিয়োগিতা আয়োজন করার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানান।

city2

সিএসই ফেস্টিভ্যালে সফটওয়্যার অ্যান্ড হার্ডওয়্যার প্রজেক্ট ফেয়ার স্টলে ২২টি দল প্রকল্প প্রদর্শন করে। ওয়ালটন ল্যাপটপ, টেকশপ বিডি, আইটি বাংলা, সফটেক্স প্রতিষ্ঠান তাদের প্রকল্প প্রদর্শন করে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক এন আর এম বোরহান উদ্দিন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপিস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ; ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালযের অতিরিক্ত সচিব পার্থপ্রতিম দেব।

তিনি বলেন, ‘বর্তমান সরকার আইসিটি সেক্টরকে গুরুত্বের সঙ্গে হাতে নিয়েছে, বাংলাদেশকে পুরোপুরিভাবে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার জন্য সরকার প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছে। আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের দক্ষ জনশক্তিতে পরিণত হয়ে বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে আরো উন্নতির দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে।’

আরো বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (প্রস্তাবিত) ড. এসএম আবু রায়হান, ট্রেজারার মজিবুর রহমান মিয়া, রেজিস্ট্রারার ও কন্ট্রোলার অব এক্সামিনেশনস মো. শাখাওয়াত হোসেন, ফেকাল্টি অব সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং এর ডিন প্রফেসর ড. মো. মতিউর রহমান মিয়া, বিভাগীয় প্রধান মো. সাফায়েত হোসেন এবং প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতার বিচার পরিচালক শিপলু হাওলাদার। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল স্তরের শিক্ষক, ছাত্র-ছাত্রী, প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও অতিথিবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ডিপার্টমেন্ট অব কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং এর বিভাগীয় প্রধান মো. সাফায়েত হোসেন। তিনি প্রোগ্রামিং কনটেস্ট/প্রতিযোগিতার লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য বিস্তারিত তুলে ধরেন।দেশের উন্নতির জন্য বাংলাদেশি তরুণদের মেধাসম্পদের যোগ্য ব্যবহারের ওপর গুরুত্ব দেন।

প্রতিযোগিতায় প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থান অধিকার করে যথাক্রমে ইসলামিক ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজির IUT_O(1), ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিকের UAP_random_shuffle, ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির EWU_Avengers।

প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের (প্রথম স্থান অধিকারীর মাঝে তিন হাজার টাকা, দ্বিতীয় স্থান অধিকারীর মাঝে আড়াই হাজার টাকা ও তৃতীয় স্থান অধিকারীর মাঝে দেড় হাজার টাকা) গিফট ভাউচার টেক শপ এর সৌজন্যে প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠান শেষে অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীদের সনদ প্রদান করা হয়।

– সিনিউজভয়েস ডেস্ক

Please Share This Post.