সাইবার নিরাপত্তা নিয়ে ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটিতে সেমিনার

ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির সফটওয়্যার বিভাগের আয়োজনে ‘সাইবার নিরাপত্তা উদ্যোগ’ শীর্ষক এক সেমিনার ১৯ নভেম্বর রোববার, বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭১ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সেমিনারে প্রধান আলোচক হিসেবে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সাইবার নিরাপত্তা বিষয়ক আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান বিজনেস ডেভেলপমেন্ট এর ভাইস প্রেসিডেন্ট লুক ম্যারি। ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উপচার্য অধ্যাপক ড. ইউসুফ এম ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সেমিনারে অন্যান্যের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন আন্তর্জাতিক সাইবার সিকিউরিটি প্রতিষ্ঠান সিপটর এর প্রধান নির্বাহী মাইকেল জামান রডিন, সিটিও ফোরামের প্রেসিডেন্ট তপন কান্তি সরকার ও সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রধান ড. তৌহিদ ভুইয়া। সেমিনারটির সহ আয়োজক ছিল সিপটর ও সিটিও ফোরাম।

প্রধান আলোচক হিসেবে প্রবন্ধ উপস্থাপনকালে লুক ম্যারি বলেন, সারা পৃথিবী জুড়েই সাইবার অপরাধ বাড়ছে। এজন্য সাইবার অপরাধ সংক্রান্ত ব্যয়ও বাড়ছে। আগামী ২০১৯ সালের মধ্যে বিশ্বজুড়ে সাইবার নিরাপত্তার পেছনে ব্যয় হবে কমপক্ষে ১৯ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলার। লুক ম্যারি বলেন, বাংলাদেশে সাইবার নিরাপত্তা নিয়ে সচেতনতা বাড়ছে। এটা নিঃসন্দেহে আশাব্যঞ্জক। ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি সাইবার সিকিউরিটি নিয়ে উল্লেখযোগ্য কাজ করছে বলে মন্তব্য করেন তিনি। লুক ম্যারি আশা প্রকাশ করেন, ভবিষ্যতে বাংলাদেশ তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে সরা পৃথিবীতে পরিচিতি লাভ করবে।

সভাপতির বক্তব্যে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উপচার্য অধ্যাপক ড. ইউসুফ এম ইসলাম বলেন, বাংলাদেশ তথ্যপ্রযুক্তিতে খুব দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। পাশাপাশি সাইবার অপরাধও বাড়ছে। এখনই সময় সাইবার নিরাপত্তা নিয়ে কাজ করার। এ সময় তিনি বাংলাদেশ ব্যাংকের সাইবার হ্যাকিংয়ের উদাহরণ টেনে বলেন, ভবিষ্যতে এরকম অপরাধ যেন না ঘটে সে জন্য সাইবার নিরাপত্তা বাড়ানো ছাড়া কোনো বিকল্প নেই। এরকম সভা সেমিনার সাইবার নিরাপত্তা সম্পর্কে সচেতনতা বাড়াবে বলে মন্তব্য করেন অধ্যাপক ড. ইউসুফ এম ইসলাম।

 

– সিনিউজভয়েস ডেস্ক

Please Share This Post.