সাইবার নিরাপত্তা নিয়ে কাজ করবে বাংলাদেশ-রাশিয়া

রাশিয়া সফররত বাংলাদেশের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের সাথে গত রাতে রাশিয়ার মস্কোয় রুশ ফেডারেশনের যোগাযোগ ও গণমাধ্যম মন্ত্রী নিকোলাই নিকিফরেভ এর এক দ্বিপাক্ষিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠকে সাইবার নিরাপত্তা নিশ্চিতে প্রতিমন্ত্রী পলক রাশিয়ান মন্ত্রী নিকিফরভের সহযোগিতা চেয়ে বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক ডিজিটাল বাংলাদেশ ঘোষণার পর থেকেই প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের নেতৃত্বে আমরা অত্যন্ত গতিশীলতার সাথে ডিজিটাল বাংলাদেশ কার্যক্রমকে এগিয়ে নিতে সক্ষম হয়েছি এবং আগামী দিনেও এই কার্যক্রম অব্যাহতভাবে বৃদ্ধি পাবে। ফলে বিগত ৯ বছরে বাংলাদেশে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যাও বেড়েছে ১০০ গুণের চাইতে বেশী। বেড়েছে সরকারি সেবা প্রদানের হার, ডিজিটাল প্লাটফর্মে আর্থিক লেনদেনসহ ডিজিটাল কার্যক্রমের কলেবরও। আবার এরই সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে সাইবার ঝুঁকি। সারা বিশ্বের মত বাংলাদেশও এই ঝুঁকির বাইরে নয়। এই ঝুঁকি মোকাবেলায় আমাদের কার্যক্রম চলমান রয়েছে কিন্তু রাশিয়ার মত বন্ধু রাষ্ট্রের সাথে পারস্পরিক সহযোগিতার ভিত্তিতে সাইবার ঝুঁকি মোকাবেলায় আমরা বিশ্বমানের সক্ষমতা অর্জন করতে চাই।”

প্রতিমন্ত্রীর এই প্রস্তাবে ইতিবাচক সাড়া দিয়ে নিকিফরেভ সাইবার ঝুঁকি মোকাবেলায় সম্ভাব্য সাইবার আক্রমণের আন্ত:রাষ্ট্রীয় আগাম তথ্য বিনিময়ে একমত পোষণ করেন ও সাইবার নিরাপত্তায় পারস্পরিক সহযোগিতার ক্ষেত্র বৃদ্ধিতে উপযুক্ত পদক্ষেপ গ্রহণের ওপর জোর দেন। এ সময় প্রতিমন্ত্রী পলক বাংলাদেশে রাশিয়ার সহযোগিতায় ‘সেন্টার অব এক্সিলেন্স ইন সাইবার সিকিউরিটি’ প্রতিষ্ঠার আহবান জানালে রাশিয়ান মন্ত্রী নিকিফরভ সম্মতি দেন এবং এই লক্ষ্যে একটি জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপ গঠনে উভয়পক্ষ ঐকমত্য পোষণ করেন। এছাড়াও প্রতিমন্ত্রী পলক রাশিয়াকে বাংলাদেশের হাইটেক পার্কগুলোতে রাশিয়ান বিনিয়োগ বৃদ্ধি, তথ্যপ্রযুক্তি-ভিত্তিক উদ্ভাবন ও স্টার্ট-আপ ইকো-সিস্টেম প্রতিষ্ঠা, ই-গভার্নেন্স ও ই-সার্ভিস প্রদান আর কার্যকর করতে রাশিয়ান মন্ত্রীকে একান্ত সহযোগিতার আহবান জানান। বৈঠকে ই-গভার্নেন্স কার্যক্রম আরও ফলপ্রসূ করতে উভয়পক্ষ একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন।

প্রতিমন্ত্রীর সাথে উক্ত বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন মস্কোস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত ড. এস এম সাইফুল হক, সিলেট ইলেকট্রনিকস সিটির প্রকল্প পরিচালক ব্যারিস্টার মো. গোলাম সরওয়ার ভূঁইয়া প্রমুখ।

উল্লেখ্য যে গত ৪-৮ ডিসেম্বর স্কোলকোভো ফাউন্ডেশনের হেড অব ইন্টারন্যাশনাল এক্সিলারেশন প্রোগ্রাম দারিয়া লিপাতোভার নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিদল যশোরের শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, কালিয়াকৈরের বঙ্গবন্ধু হাইটেক সিটি পরিদর্শন করেন। প্রতিনিধি দল ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড ২০১৭-তে অংশগ্রহণ করেন এবং ৭ ডিসেম্বর প্রতিমন্ত্রী পলকের সাথে এক সৌজন্য স্বাক্ষাতে মিলিত হন এবং প্রতিমন্ত্রীকে রাশিয়া সফরের আহবান জানালে প্রতিমন্ত্রী গত ১২ মার্চ রাশিয়া সফর করেন।

-সিনিউজভয়েস

Please Share This Post.