সাইবার নিরাপত্তায় ‘ট্রেন্ড মাইক্রো’ আনলো কম্পিউটার সোর্স

সাইবার জগতে নিশ্চিন্তে বিচরণ করতে গত ২৬ বছর ধরে ভার্চুয়াল বিশ্ব শাসন করছে জাপানি ব্র্যান্ড ‘ট্রেন্ড মাইক্রো’। নিয়ত রঙ পাল্টানো সাইবার অপরাধের ধরন ও প্রকৃতি বিশ্লেষণ করে জটিলতর সব সাইবার অপরাধ মোকাবেলায় ধারাবাহিক ভাবে সফলতার সাক্ষর রেখে চলেছে এই সিকিউরিটি সফটওয়্যারটি। ফলশ্রুতিতে গবেষণা প্রতিষ্ঠান গার্টনারের প্রতিবেদনে চলতি বছরেও সাইবার নিরাপত্তায় শীর্ষে রয়েছে।

দেশের সাইবার নিরাপত্তা ব্যবস্থা অটুট রাখতে সোমবার সময়ের সবচেয়ে সফল এই নিরাপত্তা সফটওয়্যারটি আনুষ্ঠানিক ভাবে দেশের বাজারে অবমুক্ত করলো প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান কম্পিউটার সোর্স। রাতে বিসিএস ইনোভেশন সেন্টারে অনুষ্ঠিত এই আয়োজনে উপস্থিত ছিলেন ট্রেন্ড মাইক্রো’র ন্যাশনাল সেলস ম্যানেজার আনন্দ শ্রিঙ্গি ও রিজিওনাল অ্যাকাউন্ট ম্যানেজার কাঞ্চন মল্লিক। স্ট্যান্ডআপ পারফরমার সোলায়মান সুখনের উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন কম্পিউটার সোর্স পরিচালক এইউ খান জুয়েল এবং আসিফ মাহমুদ।

স্বাগত বক্তব্যে কম্পিউটার সোর্স পরিচালক আসিফ মাহমুদ বলেন, দেশের শীর্ষ প্রযুক্তি সেবা প্রতিষ্ঠান হিসেবে গ্রাহকদের আস্থা ধরে রাখতেই কম্পিউটার সোর্স কোনো এন্টি-ভাইরাস বাজারজাত করতে একটু সময় নিয়েছে। কেননা এই সময়ে আমরা গ্রাহকদের সমস্যা ও চাহিদা অনুসন্ধানের মধ্য দিয়ে গবেষণা ও উন্নয়নের মাধ্যমে তা ট্রেন্ড মাইক্রো কর্র্তৃপক্ষের কাছে দিয়েছি। এরপরই বাংলাদেশের গ্রাহকদের জন্য  উপযোগী করেই অনলাইন দুনিয়ার সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করেই আমরা এই সল্যুশন সফটওয়্যারটি গ্রাহকদের হাতে হাতে পৌঁছে দিচ্ছি। সরকারের পাশাপাশি আমরাও দেশের সাইবার আকাশকে নিরাপদ রাখতে বদ্ধপরিকর। আমাদের বিশ্বাস, ট্রেন্ড মাইক্রো সেই জায়গাটিতে গ্রাহককে নিশ্চিন্ত রাখবে।

ট্রেন্ড মাইক্রো’র ন্যাশনাল সেলস ম্যানেজার আনন্দ শ্রিঙ্গি বলেন, নিরাপত্তা হচ্ছে এক ধরনের মানসিক স্বস্তি। আর এই স্বস্তির জন্য দরকার হয় আগে থেকেই হুমকী মোকাবেলার সক্ষমতা।

তিনি আরও বলেন, ট্রেন্ড মাইক্রো’র সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ব্যবস্থা অলাইনের বিপদজনক ওয়েবসাইট, সোশ্যাল নেটওয়ার্ক, ই-মেইল, বর্ণোচরা ওয়েব লিংক ও গুপ্ত-বার্তা যেনো ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত, পেশাগত এবং আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে না। এর পাশাপাশি আগামীর সম্ভাবনাময় প্রজন্ম- শিশুরাও যেনো অনলাইনে নিরাপদ থাকে সেজন্য এতে রয়েছে অভিভাবকদের জন্য পর্যবেক্ষণ ব্যবস্থা।

মি: আনন্দ শ্রিঙ্গি বলেন, সাইবার জগতে নিরাপদ থাকতে ল্যান বা সার্ভারে ফায়রাওয়াল ব্যবহার করাই যথেষ্ট নয়। কেননা যে সার্ভার অ্যাডমিন বিষয়টি দেখভাল করবেন তিনিও গুরুত্বপূর্ণ তথ্য চুরি করতে পারেন। অথবা তার শিথিলতার কারণেও সমস্যা দেখা দিতে পারে। বিষয়টির গুরুত্ব অনুধাবন করেই স্বংক্রিয় ভাবে পিসির জাংক ফাইল মুছে দিয়ে কাজে গতি বাড়াতে ট্রেন্ড মাইক্রো-তে রয়েছে অটোমেটিক পিসি অপ্টিমাইজেশন সিস্টেম (এপিআই ফিচার)।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, এভিজি টেস্টের পাশাপাশি এনএসআই ডাটা ব্রিচ রিপোর্টেও সর্বোচ্চ সক্ষমতার পরিচয় দিয়েছে ‘ট্রেন্ড মাইক্রো’। আর গবেষণা প্রতিষ্ঠান গার্টনারের পর্যবেক্ষণ অনুযায়ী, লাগাতার ১২ বছর ধরে গার্টনার ম্যাজিক কোয়াডরেন্ট লিডারশিপ পজিশন ধরে রেখেছে। লাইসেন্সের মেয়াদ ও ব্যবহারকারী ভিন্নতায় ট্রেন্ড মাইক্রোর রয়েছে একক ও থ্রি ইউজারস প্যাকেজ। এক এবং সর্বোচ্চ তিন বছরের ‘ট্রেন্ড মাইক্রো’ ল্যাইসেন্স সফটওয়্যারটি পিসি, ট্যাব এবং মুঠোফোনেও ব্যবহার করা যায়। এন্টি-ভাইরাসটি সম্পর্কে অনুষ্ঠানে আরও জানানো হয়, অনন্য ক্লাউড ভিত্তিক প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে প্রতিদিন ২ কোটি ৫০ লাখেরও বেশি অনলাইন হুমকী থেকে ব্যবহারকারীকে নিরাপদ রাখে ‘ট্রেন্ড মাইক্রো’। ব্যবহারকারীর অজ্ঞতার সুযোগ নিয়ে তাকে ফাঁকি দিয়ে যেনো সর্বনাশ করতে না পারে সে জন্য ট্রেন্ড মাইক্রো ইন্টারনেট সিকিউরিটি, ম্যাক্সিমাম সিকিউরিটি এবং মোবাইল সিকিউটির রয়েছে সাইবার ক্রাইম প্রোটেকশন ফিচার। এর মধ্যে ইন্টারনেট সিকিউরিটি উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহারকারী, ম্যাক্সিমাম সিকিউরিটিটি উইন্ডোজ, ম্যাক, অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস অপারেটিং সিস্টেমে চলবে। এছাড়া ট্রেন্ড মাইক্রো ম্যাক্সিমাম সিকিউরিটিতে ৫ জিবি ফ্রি ক্লাউড স্টোরেজ রয়েছে। আর ট্রেন্ড মাইক্রো’র তিন ব্যবহারকারীদের প্যাকেজে রয়েছে আলাদা আলাদা সিডি যার ফলে ব্যবহারকারীরা স্বাধীন ভাবে যে কোনো ডিভাইসেই এটি ব্যবহার করতে পারবেন।

সিনিউজভয়েস/ডেক্স

Please Share This Post.