সাইবার অপরাধ রিপোর্টিংয়ে ফেলোশিপ পেলেন চার সাংবাদিক

শুক্রবার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি হলে অনুষ্ঠিত হল সাইবার অপরাধ ও সহিংস উগ্রবাদ বিষয়ক সাংবাদিকতা ফেলোশিপ-২০১৯’। সাইবার অপরাধ ও সহিংস উগ্রবাদ বিষয়ক সাংবাদিকতা ফেলোশিপ-২০১৯’ এ অংশ নিয়ে পুরস্কৃত হলেন চার সাংবাদিক।বিজয়ী সাংবাদিকদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন প্রেস ইনস্টিটিট বাংলাদেশের (পিআইবি) ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক অতিরিক্ত সচিব মীর মো. নজরুল ইসলাম।

সমাজে সাইবার সচেতনতায় নেতৃত্ব তৈরিতে বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের পৃষ্ঠপোষকতায় এই কর্মসূচি বাস্তবায়ন করে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন সাইবার ক্রাইম অ্যাওয়ারনেস (সিসিএ) ফাউন্ডেশন। সম্মাননা প্রদানের আগে ‘সাইবার অপরাধ ও সহিংস উগ্রবাদ: জনসচেতনতার গুরুত্ব’ বিষয়ক আলোচনায় পাওয়ারপয়েন্ট উপস্থাপনা দেন অনুষ্ঠানের সভাপতি ও সিসিএ ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা একেএম নজরুল হায়দার। আলোচক ছিলেন ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সোহেল হায়দার চৌধুরী, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি ইলিয়াস হোসেন, মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের মিডিয়া অ্যান্ড কমিউনিকেশন বিভাগের কো-অর্ডিনেটর শাহানা হুদা ও কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক কাজী এম. আনিছুল ইসলাম। স্বাগত বক্তব্য দেন সিসিএ ফাউন্ডেশনের সভাপতি কাজী মুস্তাফিজ এবং সাধারণ সম্পাদক আবদুল্লাহ হাসান ছিলেন সঞ্চালক। আরো ছিলেন মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের সম্প্রীতি প্রকল্পের প্রোগ্রাম ম্যানেজার শাহরিয়ার মান্নান ও সিসিএ ফাউন্ডেশনের অফিস সম্পাদক মমিনুল ইসলাম।

‘সামাজিক মাধ্যম: আপনি নিজে গুজব ছড়াচ্ছেন না তো?’ শীর্ষক প্রতিবেদনের জন্য বিবিসি বাংলার সাংবাদিক ফয়সাল মো. তিতুমীর, ‘প্রতি সেকেন্ডে সাইবার অপরাধের শিকার হচ্ছে হাজারো মানুষ’ প্রতিবেদনের জন্য নিউজ২৪ এর স্টাফ রিপোর্টার সিউল আহমেদ, ‘আইনের আশ্রয় নিতে অনিহার কারণে বাড়ছে সাইবার ক্রাইম’ এর জন্য এনটিভির সিনিয়র রিপোর্টার আরাফাত সিদ্দিকী এবং ‘সাইবার অপরাধ বাড়ছে: প্রতিরোধে দৃশ্যমান কার্যক্রম নেই’ প্রতিবেদনের জন্য দৈনিক সমকালের স্টাফ রিপোর্টার সাজিদা ইসলাম পারুলকে এই ফেলোশিপ প্রদান করা হয়। পুরস্কার হিসেবে প্রত্যেক সাংবাদিককে সনদ, সম্মাননা স্মারক ও ২৫ হাজার টাকা সম্মানি দেয়া হয়।

-সিনিউজভয়েস/জিডিটি/২০এপি/১৯

Please Share This Post.