শ্রেণীকক্ষে বিজ্ঞান, গণিত ও প্রোগ্রামিং শিক্ষাকে আনন্দময় করার আহবান

চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় তরুণ প্রজন্মকে গড়ে তোলার জন্য তাদেরকে ছোটবেলা থেকে বিজ্ঞান, গণিত ও প্রোগ্রামিং শিক্ষায় দক্ষ করে গড়ে তোলা দরকার। আর এজন্য শ্রেণীকক্ষের শিক্ষাকে আনন্দময় করা প্রয়োজন। ঢাকায় হাইস্কুলের শিক্ষকদের জন্য আয়োজিত সত্যেন বসু বিজ্ঞান শিক্ষক ক্যাম্পের সমাপনী দিনে এই অভিমত ব্যক্ত করেন অংশগ্রহণকারী শিক্ষক, অতিথি ও আয়োজকেরা। বাংলাদেশ বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণ সমিতি(এসপিএসবি) ও বাংলাদেশ ফ্রিডম ফাউন্ডেশনের (বিএফএফ) যৌথ উদ্যোগে গত ৫ এপ্রিল থেকে ৭ এপ্রিল ঢাকার আপন উদ্যোগ ফাউন্ডেশনে এই ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৭ এপ্রিল সমাপনী দিনে অংশগ্রহণকারী শিক্ষকদের মধ্যে সনদ বিতরণ করেন বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশনের সাবেক জেষ্ঠ্য বিজ্ঞানী রেজাউর রহমান। উপস্থিত ছিলেন বিএফএফের নির্বাহী পরিচালক সাজ্জাদুর রহমান চৌধুরী, ভাঙ্গুরা জরিনা রহিম বালিকা বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের সদস্য ড. জাহিদ হাসান, এসপিএসবির সহ-সভাপতি মুনির হাসান প্রমূখ।

ক্যাম্পে দেশের বিভিন্ন প্রান্তের ৩৫টি বিদ্যালয়ের ৩৭ জন বিজ্ঞান ও গণিতের শিক্ষক অংশগ্রহণ করেন। শিক্ষার্থীদের মাঝে তাত্ত্বিক ও ব্যবহারিক ভাবে বিজ্ঞান, গণিত ও প্রোগ্রামিংকে উপস্থাপনের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে ক্যাম্পে হাতে কলমে কাজ করা হয়। ক্যাম্পের বিভিন্ন সেশনে ফ্যাসিলিটেটর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের তত্ত্বীয় পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক আরশাদ মোমেন, এসপিএসবির সহ-সভাপতি ও গণিত অলিম্পিয়াডের সাধারণ সম্পাদক মুনির হাসান, বুয়েটের অধ্যাপক ফারসীম মান্নান মোহাম্মদী, ঢাকা শিক্ষক প্রশিক্ষণ কলেজের শিক্ষক রাজিয়া বেগম, শাহীন কলেজের শিক্ষক তানিয়া কামরুন নাহার, গণিত অলিম্পিয়াডের একাডেমিক কোঅর্ডিনেটর তুরাস হক ও জুনাঈদ কামাল। এছাড়া স্বল্প খরচে বিজ্ঞান শিক্ষা উপকরণের কর্মশালা পরিচালনা করেন রংপুর শিক্ষক প্রশিক্ষণ কলেজের রেজাউল করিম। শিক্ষার্থীদের মাঝে ব্লক ভিত্তিক প্রোগ্রামিং স্ক্র্যাচকে জনপ্রিয় করার কলাকৌশল সংক্রান্ত একটি সেশন পরিচালনা করেন দ্বিমিক কম্পিউটিং স্কুলের প্রধান নির্বাহী তাহমিদ রাফি।

ক্যাম্পে অংশগ্রহণকারী বাগেরহাটের বিএসসি মাধ্যমিক বিদ্যালয়োর এর শিক্ষক হোসনেয়ারা খাতুন বলেন, এই প্রোগ্রামটি তাঁর অনেক ভালো লেগেছে। যা আশা করেছিলেন তার চাইতে বেশি পেয়েছেন। তিনি শতভাগ প্রাপ্তির সদ্ব্যহার করতে চান।  তিনি ক্যাম্পের রাজধানীর বাইরেও আয়োজন আশা করেন। ক্যাম্পে অংশগ্রহণকারী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর পাঠাগারের জন্য বই উপহার দেওয়া হয়।

সত্যেন বসু বিজ্ঞান শিক্ষক ক্যাম্প ২০১৮ এর পৃষ্ঠপোষকতা করেছে সেরাজ ফাউন্ডেশনের ফর ডেভেলপমেন্ট এবং সহযোগিতায় ছিল মাকসুদুল আলম বিজ্ঞানাগার (ম্যাসল্যাব), বাংলাদেশ এস্ট্রোনমিক্যাল সোসাইটি, বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্ক এবং ভলান্টিয়ার এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ভিএবি)।

সিনিউজভয়েস//ডেস্ক/

Please Share This Post.