শুরু হচ্ছে ন্যাশনাল ইয়ুথ লিডারশীপ সামিট ২০১৯

আগামী ২২ মার্চ ঢাকার কাকরাইলে আইডিইবি (ইন্সটিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ) মিলনায়তনে ইয়ুথ ক্লাব অব বাংলাদেশের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ‘ন্যাশনাল ইয়ুথ লিডারশীপ সামিট-২০১৯’।
আয়োজকরা জানান, দেশের উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় তরুণ সমাজের গুরুত্ব অপরিসীম। তাই তরুণ সমাজকে তার অংশগ্রহণ ও নেতৃত্ব নিশ্চিত করার লক্ষে কাজ করে যাচ্ছে ইয়ুথ ক্লাব অব বাংলাদেশের তরুণরা। শক্তিশালী তরুণ সংগঠনই পারে উন্নত ও আধুনিক সমাজব্যবস্থা বিনির্মাণ করতে। আর এমন অদম্য স্বপ্নবাজ তরুণদের দ্বারা পরিচালিত হচ্ছে ইয়ুথ ক্লাব অব বাংলাদেশ।
ইয়ুথ ক্লাব অব বাংলাদেশের দপ্তর সম্পাদক আছমা হোসেন মৌ জানান, ‘তারুণ্যের শক্তি একটি সমাজ বা রাষ্ট্রের বড় হাতিয়ার। আর এই রাষ্ট্রকে পরিবর্তন করতে হলে এই তরুণ সমাজকেই এগিয়ে যেতে হবে। সেই সব তরুণদের জন্যই আয়োজন করা হয়েছে ন্যাশনাল ইয়ুথ লিডারশিপ সামিট। এ সামিটের উদ্দেশ্য হলো- শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে তরুণ প্রজন্মকে নেতৃত্বের দীক্ষায় আরও এক ধাপ এগিয়ে নেওয়া। সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্র থেকে উগ্রতা, সহিংসতা প্রতিরোধে ভূমিকা রাখার পাশাপাশি সামাজিক শান্তি ও ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠায়ও তরুণদের এগিয়ে আসার জন্য উদ্ভুত করা, তরুণদের এ ব্যাপারে মত বিনিময়ের সুযোগ প্রদান করা। সুষমসমাজ এবং আধুনিক কল্যাণকামী রাষ্ট্র গঠনের ক্ষেত্রে তরুণ সমাজের দৃষ্টিভঙ্গি, চিন্তাধারা, ও অভিজ্ঞতা বর্ণনা করবে।
আছমা হোসেন মৌ আরো জানান, ‘টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে তরুণদের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা কী হতে পারে সে বিষয়টি নিয়েও ন্যাশনাল ইয়ুথ লিডারশিপ সামিট আলোচনা করা হবে। তরুণরা দেশের জন্য কাজে করবে এবং নানা গঠনমূলক ও মানব কল্যাণকর কর্তব্য সম্পাদনের মাধ্যমে দেশ ও জাতির গৌরব বর্ধন করবে এটাই সবার কাম্য।
১৬ থেকে ৩৫ বছর বয়সী দুই শতাধিক তরুণ রেজিস্ট্রেশনের মাধ্যমে এই সামিটে অংশ নিচ্ছেন বলে জানান তিনি।আর তারুণ্যের শক্তিকে কাজে লাগিয়ে সমাজ পরিবর্তনের জন্য ২০১৩ সাল থেকে নিরলস কাজ করে যাচ্ছে সংগঠনটি।
-সিনিউজভয়েস/জিডিটি/১৬এম/১৯
Please Share This Post.