শুরু হচ্ছে ‘ইনোভেশন এক্সট্রিম’

আবারও শুরু হচ্ছে গ্রামীণফোন এবং এসডি এশিয়া আয়োজিত ‘ইনোভেশন এক্সট্রিম’। মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর বাংলা মোটর বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রে এ কথা জানানো হয়।

‘বাংলাদেশ- দ্যা নেক্সট টেক ফ্রন্টিয়ার’ থিম নিয়ে শুরু হবে এবারের ইভেন্ট। এখানে টেকনোলজি স্টার্ট আপগুলো তাদের প্রজেক্টকে বিনিয়োগকারীদের সামনে তুলে ধরতে পারবে।

গ্রামীণফোনের মার্কেটিং ডিরেক্টর নেহাল আহমেদ ইভেন্ট বিষয়ে বলেন, ‘ইন্টারনেট ফর অল’ প্রত্যয় নিয়ে সবার কাছে ইন্টারনেট পৌঁছে তেবার জন্য কাজ করছে গ্রামীণফোন। আমরা সারাদেশে ইন্টারন্টে ডাটা সেবা বাড়িয়ে দেয়ার প্রয়োজন অনুভব করছি। আমরা সচেতনতা, কমদামী ডিভাইস এবং আকর্ষশণীয় কন্টেন্ট এই তিন বিষয়কে মাথায় রেখে কাজ পরিকল্পনা করছি। এই লাক্ষ্যকে বাস্তবায়িত করতে ‘ইনোভেশন এক্সট্রিমে’র সাথে যুক্ত হয়ে আমরা ভবিষ্যতে ডিজিটাল কানিকটিভিটি আরও বাড়িয়ে দিতে চাই।

এসডি এশিয়ার প্রতিষ্ঠা এবং প্রধান নির্বাহী মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, একদিনের ইনোভেশন ইক্সট্রিম ইভেন্টে বাংলাদেশের সবচেয়ে সম্ভাবময় স্টার্টআপগুলো তাদের প্রজেক্ট তুলে ধরার সুযোগ পাবে। একই ছাদের নিচে একই ইভেন্টে উদ্যোক্তা, বিনিয়োগকারীদের নিয়ে আসবে।

ইনোভেশন এক্সট্রিম বিষয়ে এসডি এশিয়ার সহ-প্রতিষ্ঠা সামাদ মিরালি বলেন, টেক নিয়ে সবারই আগ্রহ আছে। ইনোভেশন এক্সট্রিম বাংলাদের টেক ব্যবসা নিয়ে ধারণা পাওয়ার সবচেয়ে উপযুক্ত ইভেন্ট। ছোট ছোট উদ্যোক্তারা এই ইভেন্টে বড় বিনিয়োগকারীদের সাথে পরিচিত হতে পারবে।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, গ্রামীণফোনকে সাথে নিয়ে ২০১৪ সালে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় স্টার্টআপ ইভেন্ট ‘ইনোভেশন এক্সট্রিম’ আয়োজন করেছিল এসডি এশিয়া। এবছর ডিসেম্বরের ৫ তারিখ রেডিসন হোটেলে আবারও অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় ইন্টারনেট এবং টেক ব্যবসায় নতুন উদ্যোক্তাদের নিয়ে এই ইভেন্ট।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশের মাইক্রোসফটের এমডি সনিয়া বশির কবির, গ্রামীণফোনের মার্কেটিং ডিরেক্টর নেহাল আহমেদ, এসডি এশিয়ার প্রতিষ্ঠা এবং প্রধান নির্বাহী মোস্তাফিজুর রহমান, ইনোভেশন এক্সট্রিম বিষয়ে এসডি এশিয়ার সহ-প্রতিষ্ঠা সামাদ মিরালিসহ প্রমুখ।

সিনিউজভয়েস/ডেক্স

Please Share This Post.