শিশুদের রোবট বানানো শেখালো ইনোভেশন ফোরাম

৩০ মার্চ, শুক্রবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নভো থিয়েটারে ইউনিসেফ ও ফেসবুকের সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত হলো শিশু-কিশোরদের জন্য নিরাপদ ইন্টারনেট বিষয়ের ওপর বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো সর্ববৃহৎ সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন। আয়োজনস্থলে বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরাম প্রায় ১০০ শিশু-কিশোর নিয়ে আয়োজন করেছে রোবট বানাই শীর্ষক ওয়ার্কশপ। এছাড়াও ছিল রোবট শো। সমগ্র আয়োজনে প্রায় ১০ হাজার শিশু-কিশোর উপস্থিত ছিল।

দিনব্যাপী এই আয়োজনে, সকাল ১০টা থেকে শুরু হয় রোবট শো। এখানে শিশুরা বিভিন্ন রোবটের সঙ্গে সরাসরি কথা বলা, খেলা সহ বিভিন্ন কর্মকান্ডে যুক্ত হওয়ার সুযোগ পায়। রোবট শোতে বিভিন্ন রোবট এর পাশাপাশি, ড্রোন, ভার্চুয়াল রিয়েলিটি প্রজেক্ট সহ ছিল আরো অনেক আয়োজন।

বিকাল ৩টা থেকে ৫টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয় রোবট বানাই শীর্ষক ওয়ার্কশপ। ওয়ার্কশপটিতে শিশুদের ২টি গ্রুপে (১ম শ্রেণী থেকে ৪র্থ শ্রেণী এবং ৫ম শ্রেণী থেকে ৮ম শ্রেণী) ভাগ করে পরিচালনা করা হয়। ওয়ার্কশপটিতে শিশুরা নিজেরাই রোবট বানায়, যেখানে ১০ জন অভিজ্ঞ মেনটর শিশুদের রোবট বানানোর জন্য যাবতীয় দিক-নির্দেশনা দিয়েছেন।

বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরামের প্রতিষ্ঠাতা আরিফুল হাসান অপু বলেন, আমাদের দেশের শিশুদের মেধার বিকাশ এবং উদ্ভাবনী চিন্তার ধারাবাহিকতায় আনার জন্য আমরা এমন উদ্যোগ নিয়েছি। শিশুদের নিয়ে নিজে হাতে রোবট বানানোর এমন একটি ওয়ার্কশপে অনেকেই ইতোমধ্যে আগ্রহ প্রকাশ করেছে। প্রাথমিকভাবে ঢাকাতে শুরু করলেও, আমরা সমগ্র দেশব্যাপী শিশুদের নিয়ে এমন আয়োজন করতে চাই।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরামের আয়োজনে ‘রোবট বানাই’ ওয়ার্কশপটি সারা দেশব্যাপী আয়োজনের অংশ হিসাবে ঢাকায় ২য় পর্ব অনুষ্ঠিত হলো। এর আগে ২০ জানুয়ারি রাজধানীর সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কে ‘রোবট বানাই’ শীর্ষক ওয়ার্কশপটির প্রথম পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।

ইউনিসেফ ও ফেসবুকের সহযোগিতায় বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরামের এই আয়োজনে সহযোগিতায় ছিল রেভারি, বাইল্যাব, কো অর্গানাইজার হিসেবে বাংলাদেশ আইপি ফোরাম এবং ভিজুয়াল পার্টনার হিসাবে ছিল সিটিএফডি।

 

– সিনিউজভয়েস ডেস্ক

Please Share This Post.