রিভার ক্রুজে ডেলের নতুন ইন্সপাইরন৭০০০ ল্যাপটপ উম্মোচন 

দেশের বাজারে ইন্সপাইরন ৭০০০ সিরিজের নতুন দুটি ল্যাপটপ এনেছে ডেল।

গত ২৮শে অক্টোবর, শনিবার, সুন্দরবনে আয়োজিত রিভার ক্রুজে ল্যাপটপ দুটির আনুষ্ঠানিক উম্মোচন করেন ডেল বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার আতিকুর রহমান

আতিকুর রহমান বলেন, পেশাদার ব্যবহারের জন্য ল্যাপটপ দুটিতে দুদার্ন্ত সব সুবিধা রয়েছে। বিশেষ করে দীর্ঘ সময় ধরে যারা ব্যাটারি ব্যাপআপে কাজ করতে চান তাদের জন্য এটি দারুণ।

উম্মোচন অনুষ্ঠানে জানানো হয়, ১৩ ইঞ্চি স্ক্রিনের ৭৩৭০ এবং ১৫ ইঞ্চির ৭৫৭০ মডেলের ল্যাপটপ দুটিতে হাই রেজ্যুলেশনের ডিসপ্লে, ভিডিও এডিটিং, ফটো এডিটিং, বাফারিং মুক্ত ভিডিও স্ট্রিমিং, দুর্দান্ত অডিও উপভোগ করা যাবে।

যারা ল্যাপটপ থেকে সর্বোচ্চ পরিমাণ সেবা বা পারফর্ম্যান্স খুঁজছেন তাদের কথা ভেবেই ইন্সপাইরন৭০০০ সিরিজের এই ল্যাপটপগুলো তৈরি করা হয়েছে।

অসাধারণ পারফরমেন্সের প্রতিশ্রুতির সঙ্গে ল্যাপটপ দুটিতে রয়েছে উচ্চমানের ফিচার ও প্রযুক্তিগত উদ্ভাবন। হালকা, পাতলা, শৌখিন ডিজাইন ও সর্বশেষ প্রযুক্তির সমন্বয়ে তৈরি সুন্দর এই ডিভাইসগুলো সবার নজর কাড়বে।

ফুল এইচডি (১৯২০ x ১০৮০) রেজ্যুলেশনের আইপিএস এলসিডি ও প্রায় বেজেলবিহীন টাচস্ক্রিন চোখ জুড়ানো ছবি দেখাতে সক্ষম। প্রখর আলোতেও কাজ করার জন্য ১৩ ইঞ্চি মডেলে রয়েছে ৩০০ নিট ঔজ্জ্বল্য।

এরপর যাদের আরও অসাধারণ ডিসপ্লে প্রয়োজন তাদের জন্য ১৫ ইঞ্চি মডেলে রয়েছে প্রিমিয়াম ৪কে আল্ট্রা এইচডি ডিসপ্লে। এটি ১০০ শতাংশ এডোবিআরজিবি কালার দেখাতে সক্ষম। এর সঙ্গে থাকছে ৩৫০ নিট পর্যন্ত উজ্জ্বলতা।

Dell Bangladesh Country Manager 

প্রতিটি ল্যাপটপে রয়েছে পেশাদার টিউনিং সফটওয়্য়ার ওয়েভস ম্যাক্সঅডিও দ্বারা টিউন করা স্পিকার। যেখানে পেছনে রয়েছে উন্নতমানের প্রসেসিং। সব মিলিয়ে পাওয়া যাবে পেশাদার মানের সাউন্ড। তাই গান ও সকল প্রকার শব্দ সঠিকভাবে উপভোগ্যতায় শোনা যাবে।

ভিডিও স্ট্রিম করার সময় ল্যাগ দূর করার জন্য রয়েছে স্মার্টবাইট, যা ইন্টারনেট কানেকশনকে অপটিমাইজ ব্যান্ডউইডথের মাঝে ভিডিওকে প্রাধান্য দেবে। এর ফলে ব্রাউজ করার সময়ও ভিডিওতে বাফারিং হবে না।

নির্ভরযোগ্য পারফরমেন্সের জন্য দেয়া হয়েছে সর্বশেষ ইন্টেল কোর সিরিজের প্রসেসরসমূহ (যথাক্রমে কোর আই৫ ও আই৭)। থাকছে ১৬ গিগাবাইট ডিডিআর৪ র‌্যাম ও সর্বোচ্চ ৫১২গিগাবাইট পর্যন্ত এসএসডি (প্রয়োজনে এনভিএমই পিসিআই-ই এসএসডিও রয়েছে)।

আর এ সকল কম্পোনেন্ট মিলিয়েই তৈরি হয়েছে এক অসম্ভব দ্রুততগামী ল্যাপটপ, যা প্রতি সেকেন্ডেই দুদার্ন্ত।

গ্রাফিক্সের পারফরমেন্স আরও বাড়াতে ১৫ ইঞ্চি মডেলে রয়েছে এনভিডিয়া গ্রাফিক্স ব্যবহারের সুবিধা। সর্বোচ্চ ৪ গিগাবাইট জিডিডিআর৫ ভিডিও মেমরি সমৃদ্ধ জিপিউ নিশ্চিত করবে গ্রাফিক্স নির্ভর সকল অ্যাপ্লিকেশনের দ্রুত পারফরমেন্স।

ল্যাপটপগুলোতে রয়েছে প্রয়োজনীয় সবগুলো পোর্ট। দু’পাশে সজ্জিত রয়েছে ইউএসবি ৩.১ জেনারেশন ১ টাইপ সি পোর্ট, যা ডিসপ্লেপোর্ট ও পাওয়ার দু’ভাবেও ব্যবহার করা যাবে। সঙ্গে থাকছে এইচডিএমআই ২.০ পোর্ট, ৩:১ কার্ড রিডার, দুটি ইউএসবি ৩.১ জেনারেশন ১ পোর্ট, যার একটি অন্য ডিভাইস চার্জে ব্যবহার করা যাবে। ১৫ ইঞ্চি মডেলে এর বাইরে রয়েছে আরও একটি ইউএসবি ৩.১ জেনারেশন ১ পোর্ট।

খুবই হালকা পাতলা ল্যাপটপটিতে রয়েছ ১৮০ ডিগ্রি হিঞ্জ, যা স্ক্রিন টেবিলে সমানভাবে রেখে অন্যদের কিছু দেখাতে, ডেল অ্যাকটিভ পেনের মাধ্যমে স্কেচ বা নোট নিতে সাহায্য করবে। স্বল্প আলোতে কাজ করার জন্য রয়েছে ব্যাকলাইট সমৃদ্ধ কিবোর্ড।

সবগুলো ফিচার আবদ্ধ করা হয়েছে অনিন্দ্য সুন্দর, পাতলা, ব্রাশড অ্যালুমিনিয়াম শ্যাসির মাঝে। ল্যাপটপগুলো পাওয়া যাবে দুটি রঙে, পিঙ্ক শ্যাম্পেন ও প্লাটিনাম সিলভার। আকর্ষনীয় ও সহজেই বহনযোগ্য এই ডিভাইসগুলো সহজেই হাতের সাথে মানিয়ে যাবে।

সেরা অভিজ্ঞতা পাওয়া যাবে উইন্ডোজ ১০ ব্যবহারে। পাসওয়ার্ড ছাড়াই সহজ ও নিরাপদভাবে লগ ইন করার জন্য রয়েছে উইন্ডোজ হ্যালো সমর্থিত ইনফ্রারেড ক্যামেরা, যা চেহারার মাধ্যমেই ব্যবহারকারীকে শনাক্ত করতে পারবে। এছাড়াও ১৩ ইঞ্চি মডেলে রয়েছে পাওয়ার বাটনের মাঝে অবস্থিত ফিংগার প্রিন্ট রিডার।

ল্যাপটপদুটিতে রয়েছে সর্বশেষ অফিস অ্যাপ্লিকেশনসমূহ, ওয়ার্ড, এক্সেল, পাওয়ারপয়েন্ট ও ওয়াননোটের অফিস ২০১৬। অ্যাওয়ার্ডপ্রাপ্ত সিকিউরিটি সলিউশন ম্যাকেফে সকল প্রকার ক্ষতিকর সফটওয়্যার নিরসনের জন্য সদা প্রস্তুত এতে।

পিডিএফ কোনও ঝামেলা ছাড়াই ওয়ার্ড, পাওয়ারপয়েন্ট ও এক্সেলে পরিণত করার জন্য ও মোবাইল ডিভাসের সাথে পিডিএফ শেয়ার করার জন্য এডোবি সফটওয়্যার রয়েছে।

নেটওয়ার্কের গতি ভিডিও দেখার জন্য অপটিমাইজ করতে রয়েছে স্মার্টবাইট। এটি ব্যবহারে ভিডিওতে ল্যাগ বা বাফারিং সমস্যা দূর হয়ে যাবে।

প্রফেশনাল মানের সাউন্ড পেতে রয়েছে ওয়েভস ম্যাক্স অডিও প্রো। সঙ্গীত থেকে সিনেমা, সব ধরনের সাউন্ডেই নতুন মাত্রা যোগ করবে এটি।

ল্যাপটপটির প্রসেসরগুলো ৮ম প্রজন্মের। গ্রাফিক্স চিপ টি জিফোর্স ৯৪০এমএক্স মডেলের। ১৩ ইঞ্চি ল্যাপটপটির ওজন ১ দশমিক ৪ কেজি ও ১৫ ইঞ্চিটির ১ দশমিক ৯ কেজি। দীর্ঘ সময় কাজ করার জন্য ১৩ ইঞ্চি মডেলে ৯ ঘন্টা ৩১ মিনিট ও ১৫ ইঞ্চি মডেলে ৮ ঘন্টা ৫৬ মিনিট পর্যন্ত ব্যাটারি সক্ষমতা রয়েছে।

-সুন্দরবন থেকে ফিরে-গোলাম দাস্তগীর

Please Share This Post.