যে কারণে কম্পিউটারে সলিটায়ার

 

বিশ্বে সর্বাধিক সংখ্যাক কম্পিউটার মাইক্রোসফটের উইন্ডোজ চালিত। এবং প্রত্যেকটা উইন্ডোজ কম্পিউটারেই বিল্ট-ইন থাকে সলিটায়ার। সলিটায়ার গেমটির পাশাপাশি মাইনসউইপার, হার্টস এবং ফ্রিকল গেমস ও উইন্ডোজ কম্পিউটারের ঐতিহ্য।

এক যুগ আগে থেকে এসব গেমস অপারেটিং সিস্টেমের সঙ্গে বিল্ট-ইন দিচ্ছে মাইক্রোসফট। দীর্ঘদিন ধরে কম্পিউটার ব্যবহার করেন কিন্তু কখনো বিনোদন উপভোগে সলিটায়ার, মাইনসউইপার, হার্টস কিংবা ফ্রিকল খেলেননি এমন কম্পিউটার ব্যবহারকারীর সংখ্যা খুবই কম।

এসব গেমস কম্পিউটার ব্যবহারকারীদের কাছে বিনোদন হিসেবে পরিচিত হলেও, মজার তথ্য হচ্ছে মাইক্রোসফট কিন্তু বিনোদনের জন্য গেমগুলোর ডিজাইন করেনি।

প্রতিটি গেমই উইন্ডোজে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল সম্পূর্ণ ভিন্ন ভিন্ন কারণে। মাইক্রোসফট ১৯৯০ সালে উইন্ডোজ ৩.০ অপারেটিং সিস্টেমে সলিটায়ার অন্তর্ভুক্ত করে ‘মাউসের ব্যবহার’ শেখানোর উদ্দেশ্যে। ১৭০০ শতাব্দী থেকে পরিচিত এই তাস খেলাটি মাইক্রোসফট মূল ধারার কম্পিউটারে নিয়ে আসে মাউসের ‘ড্রাগ অ্যান্ড ড্রপ’ বোঝানোর উদ্দেশ্যে। কারণ সেসময় নতুন প্রজন্মের কম্পিউটার ব্যবহারকারীদের কাছে তা কঠিন ছিল। অনেকেই মাউসের সঙ্গে পরিচিত ছিলেন না। কিভাবে ড্রাগ অ্যান্ড ড্রপ করতে হয় শেখাতেই সলিটায়ার।

সলিটায়ার যেমন প্রাথমিক শিক্ষায় অন্তর্ভূক্ত হয়, তেমনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালনে যুক্ত হয় মাইনসউইপার গেমটি। এই খেলা যার শেকড় ১৯৬০ সালের, তা ১৯৯২ সালে উইন্ডোজ ৩.১ অপারেটিং সিস্টেমে প্রথম অন্তর্ভূক্ত করা হয়। চতুরভাবে যা শিখেয়েছে লেফট এবং রাইট ক্লিক করা। কারণ সেসময়টা এমন একটা সময় ছিল যখন মানুষকে মাউসের ব্যবহার শিখতে হতো।

হার্টস গেমটিও শুধু একটি খেলা হিসেবে আনা হয়নি। ১৯৯২ সালে যে ধারণা দিতে এটি যুক্ত করা হয় তা হচ্ছে, লোকাল নেটওয়ার্কে অন্যান্য খেলোয়ারদের সঙ্গে যোগাযোগের ভালো ধারণা দিতে। এবং ফ্রিকল গেমটিও উইন্ডোজ ৩.১ অপারেটিং সিস্টেমে আনা হয়, খেলা নয় বরঞ্চ মাইক্রোসফটের সফটওয়্যার আপডেটের পরীক্ষার অংশ হিসেবে। এটি তাদের ডাটা প্রসেসিং এবং অন্যান্য কাজের অংশ হিসেবে তৈরি করা।

এবার নিশ্চয় প্রশ্ন জাগছে যে, পরবর্তী সময়ে তো ব্যবহারকারীদের কাছে কম্পিউটার অনেক পরিচিত ও সহজ হয়ে ওঠেছে। তাহলে এত বছর ধরে কেন এই গেমগুলো উইন্ডোজ কম্পিউটারে রাখা হয়েছে? এর কারণ হচ্ছে, কম্পিউটারে বিনোদনের ক্ষেত্রে এই গেমসগুলো জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। মাইক্রোসফট কম্পিউটারের বিল্ট-ইন এই জনপ্রিয় গেমগুলো যেকোনো চাইলে বাদ দিতে পারতো এবং শেষ পর্যন্ত তা করেছেও।

২০১৫ সালে মাইক্রোসফট তাদের উইন্ডোজ ১০ অপারেটিং সিস্টেম থেকে বাদ দিয়েছে সলিটায়ার সহ বাকি গেমগুলো। আপনি যদি উইন্ডোজ ১০ ব্যবহারকারী হয়ে থাকেন তাহলে উইন্ডোজ স্টোর থেকে সলিটায়ার গেম ডাউনলোড করে ব্যবহার করতে পারেন।

যেহেতু গেমগুলো উইন্ডোজের নতুন ভার্সনে আর বিল্ট-ইন নাই, তাই এবার হয়তো ব্যবহারকারীদেরকে মাইক্রোসফটের শেখাতে হতে পারে যে, কিভাবে সলিটায়ার খেলবেন!

 

– সিনিউজভয়েস ডেস্ক