যশোরে শুরু হয়েছে বিডিনগের অষ্টম সম্মেলন


বাংলাদেশ নেটওয়ার্ক অপারেটরস গ্রুপের (বিডিনগ) আয়োজনে যশোর শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কে শুরু হয়েছে বিডিনগের অষ্টম সম্মেলন। ৪ মে সম্মেলনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, ‘বর্তমান সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের পথে ইন্টারনেট প্রযুক্তি অন্যতম একটি অনুসঙ্গ। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে ইন্টারনেট ব্যবহারের সুযোগকে এখন মানুষের মৌলিক অধিকার হিসেবে দেখা হচ্ছে। বাংলাদেশেও আমরা শতভাগ মানুষকে ইন্টারনেট ব্যবহারের সুযোগের মধ্যে আনতে কাজ করে যাচ্ছি। আমি আশা করছি এ কাজটি ২০১৮ সালের মধ্যেই সম্পন্ন করতে পারবো।’

তিনি বলেন, ‘ইন্টারনেট প্রযুক্তি এখন অর্থনীতির অন্যতম চালিকা শক্তি। ব্যবসা-বাণিজ্য, ব্যাংকিং, সরকারি বেসরকারি ই-সেবা, স্মার্ট সিটি, স্মার্ট হোম এ সবের মতো আরো অনেক নতুন নতুন সেবা বর্তমান সময়ে ইন্টারনেটের ব্যবহার অনেক বাড়িয়ে দিয়েছে এবং ভবিষ্যতে বাড়তেই থাকবে। এখন সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়ে যাচ্ছে এই অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষণের চ্যালেঞ্জও। ফলে ইন্টারনেটের প্রযুক্তিগত কাঠামো যথাযথভাবে বাস্তবায়ন করতে হলে সংশ্লিষ্ট প্রযুক্তিবিদ বা প্রকৌশলীদের পেশাগত উৎকর্ষতা বাড়াতে হবে। এর কোনো বিকল্প নাই।’

আইসিটি প্রতিমন্ত্রী পলক আরো বলেন, যেভাবে আমাদের ইন্টারনেট ব্যবহারকারী বৃদ্ধি পাচ্ছে তাতে আগামী কয়েক বছরের মধ্যে আমাদের ন্যাশনাল ইন্টারনেট ব্যাকবোন টেরাবাইট ক্যাপাসিটিতে চলে যাবে। আমাদের ইঞ্জিনিয়ারদেরও এই বিশাল ইন্টারনেট ট্রাফিক ম্যানেজ করার জন্য সে রকম সক্ষমতা অর্জন করতে হবে। বিডিনগ তাদের সম্মেলন ও কর্মশালার মাধ্যমে প্রযুক্তিবিদ ও প্রকৌশলীদের সক্ষমতা বৃদ্ধিতে প্রতিনিয়ত কাজ করছে তাই আমি সংশ্লিষ্ট সবাইকে কৃতঞ্জতা জানাই।’

তিনি বলেন, ‘২০১৪ সালে বিডিনগের প্রথম সম্মেলনে আমি উপস্থিত ছিলাম। আমি বলবো আজ বিডিনগ অনেক সংঘটিত। প্রত্যেক বছর নিয়মিতভাবে দুই বার করে এই সম্মেলন ও কর্মশালা আয়োজন করে আসছে তারা। এই আয়োজন আমাদের প্রকৌশলীদের পেশাগত দক্ষতা উন্নয়নে ব্যাপক ভূমিকা রাখছে।’

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যশোরের জেলা প্রশাসক মো. আবদুল আওয়াল। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিডিনগ বোর্ড অব ট্রাস্টির চেয়ারম্যান রাশেদ আমিন বিদ্যুৎ, ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (আইএসপিএবি) সভাপতি আমিনুল হাকিম, সাধারণ সম্পাদক ইমদাদুল হক, বিডিনগ ট্রাস্টি সুমন আহমেদ সাবির, বিডিনগ সাধারণ সম্পাদক বরকতুল আলম বিপ্লব প্রমুখ।

সম্মেলনের প্রথম দিন ‘ডেটা সেন্টার ডিজাইন, গাইডলাইন অ্যান্ড স্ট্যান্ডার্ডস’, ‘ক্যালকুলেটিং কুলিং রিকোয়েরমেন্টস ফর ডেটা সেন্টার’, ‘প্রিভেন্টিং ট্রাফিক উইথ ইস্পুপড সোর্স আইপি অ্যাড্রেস’, ‘ডেপলয়িং আইওটি: এ টেলকো প্রাসপেকটিভ’, ‘হান্ট ডাউন দ্য ইভিল অব ইওর ইনফ্রাস্ট্রাকচার’ শীর্ষক বিভিন্ন সেশন অনুষ্ঠিত হয়।

৫-৮ মে রাউটিং এবং ভার্চুয়ালাইজেশন বিষয়ে কর্মশালা অনুষ্ঠিত হবে।

এবারের আয়োজনের সহ-আয়োজক হিসেবে আছে ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (আইএসপিএবি)। আয়োজনের সহযোগিতায় আছে আইসিটি ডিভিশন এবং বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের আইসিটি বিজনেস প্রমোশন কাউন্সিল। আয়োজন সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যাবে: বিডিনগ ওয়েবসাইটে।

 

– সিনিউজভয়েস ডেস্ক