মুক্তপাঠের মাধ্যমে প্রাথমিক শিক্ষায় ই-প্রশিক্ষণ কার্যক্রম শুরু

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অ্যাকসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রোগ্রাম এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে ১৪ ডিসেম্বর বুধবার, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের করবী হলে মুক্তপাঠের মাধ্যমে প্রাথমিক শিক্ষায় ই-প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয় এবং ই-প্রশিক্ষণ কোর্সের ওরিয়েন্টেশন কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

ই-প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী অ্যাডভোকেট মোস্তাফিজুর রহমান, এমপি। কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক (প্রশাসন) এবং এটুআই প্রোগ্রামের প্রকল্প পরিচালক কবির বিন আনোয়ার।

কর্মশালায় প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের নতুন নিয়োগপ্রাপ্ত ইন্সট্রাক্টরদেরকে ‘মাল্টিমিডিয়া কনটেন্ট তৈরি’ বিষয়ক প্রশিক্ষণ এবং মুক্তপাঠের মাধ্যমে অন্যান্য ই-প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিচালনার জন্য ফ্যাসিলিটেটর ও মাস্টার ট্রেইনার হিসেবে দায়িত্ব পালনের বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরা হয়েছে।

কর্মশালায় বিশেষজ্ঞগণ বলেন, মুক্তপাঠের মাধ্যমে ই-প্রশিক্ষণ প্রদান করা হলে প্রশিক্ষণের সময়, ব্যয় এবং যাতায়াত কমে যাবে এবং কম সময়ে সকল শিক্ষককে প্রশিক্ষণের আওতায় এনে শিক্ষার গুণগত মানন্নোয়নে ভূমিকা রাখা সম্ভব হবে। ই-প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দেশব্যাপী শিক্ষক প্রশিক্ষণের এটি প্রথম এবং নতুন একটি প্রয়াস। উক্ত কর্মশালায় প্রশিক্ষণার্থী ইন্সট্রাক্টরদের নিকট মুক্তপাঠকে পরিচিত করা এবং ই-প্রশিক্ষণের বিভিন্ন কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করার পদ্ধতি সম্পর্কে অবগত করা হয়। সারাদেশ থেকে প্রাথমিক শিক্ষা ইনস্টিটিউট (পিটিআই) এর ১০০ জন ইন্সট্রাক্টররা ওরিয়েন্টেশন কর্মশালায় অংশগ্রহণ করেন এবং পর্যায়ক্রমে সকল প্রশিক্ষক ও শিক্ষককে এর আওতায় আনা হবে।

উল্লেখ্য, উন্মুক্ত শিক্ষা উপকরণ, ই-লার্নিং, এম-লার্নিং, দূরশিক্ষণ ইত্যাদির মাধ্যমে শিক্ষা ও দক্ষতা উন্নয়নে এটুআই-এর একটি উদ্যোগ হলো বাংলা ভাষায় ই-লার্নিং প্লাটফর্ম ‘মুক্তপাঠ’। এ প্লাটফর্ম থেকে শিক্ষক, শিক্ষার্থী কিংবা আগ্রহী যে কেউ যে কোনো স্থান থেকে অনলাইন কোর্সে অংশগ্রহণের মাধ্যমে জ্ঞান ও দক্ষতা অর্জন করতে পারবেন। এই প্লাটফর্মে সাধারণ শিক্ষা, কারিগরি ও বৃত্তিমূলক শিক্ষা এবং জীবনব্যাপী শিক্ষার সুযোগ রয়েছে। এমনকি বাংলাদেশের সুবিধাবঞ্চিত ও প্রান্তিক জনগোষ্ঠীও ‘মুক্তপাঠ’ প্লাটফর্ম থেকে বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে আত্মকর্মসংস্থানের সুযোগ পাবে। শিক্ষকদের পেশাগত দক্ষতা উন্নয়নের পাশাপাশি শিক্ষার গুণগত মানোন্নয়নে মুক্তপাঠ গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে সক্ষম হবে বলে কর্মশালায় অংশগ্রহণকারীগণ মনে করেন।

দিনব্যাপী কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাননীয় সচিব মোহাম্মদ আসিফ-উজ-জামান এবং প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) মো. আলমগীর। এছাড়া এটুআই প্রোগ্রামের পলিসি অ্যাডভাইজার আনীর চৌধুরী, ই-লার্নিং স্পেশালিস্ট প্রফেসর ফারুক আহমেদ, পলিসি স্পেশালিস্ট মো. আফজাল হোসেন সারওয়ার; প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ এবং বিভিন্ন গণমাধ্যম কর্মী উপস্থিত ছিলেন।

 

– সিনিউজভয়েস ডেস্ক

Please Share This Post.