মালয়েশিয়ায় ফিউচার ইয়ুথ সামিটে ল্যাব পার্টনার ইনোভেশন হাব

বাংলাদেশ কমনওয়েলথ ইয়ুথ কাউন্সিল ও কমনওয়েলথ ইয়ুথ ইনোভেশন সেন্টারের যৌথ আয়োজনে মালয়েশিয়ার সানওয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠীত হতে যচ্ছে ‘ফিউচার ইয়ুথ সামিট-২০১৮’ আগামী ১৬-১৮ নভেম্বর।

ফিউচার ইয়ুথ সামিট-২০১৮’ এর ল্যাব পার্টনার হিসেবে ইনোভেশন হাব বাংলাদেশ যুক্ত হয়েছে। ইনোভেশন হাব বাংলাদেশ এর ফাউন্ডার ইমরান ফাহাদ এ বিষয়ে বলেন, “এটা আমাদের জন্যে খুবই আনন্দের ব্যপার, এই সামিট এ আমি ইনোভেশন উপর একটি মাস্টারক্লাস এবং ওয়ার্কশপ নিবো, পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের পাঁচ শতাধিক তরুণ নেতা, উদ্যোক্তা, সমাজকর্মী, শিল্প বিশেষজ্ঞ, সরকারি কর্মকর্তা, সমাজকর্মী এ সামিটে যোগ দেবেন।

চারটি থিমাটিক পিলারের ওপর এ সামিট হচ্ছে। এগুলো হলো, ডিজিটালাইজেশন, ইনক্লুসিভিটি, ক্রিয়েটিভিটি ও সাসটেইনেবিলিটি। চারটি থিমের ওপর আলাদা আলাদা ওয়ার্কশপ অনুষ্ঠিত হবে। ইমরান ফাহাদ আরো বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের ক্ষেত্রে ইনোভেশন হাবের অবদানও তুলে ধরা হবে এই ওয়াকশপে যা পৃথিবীর সামনে বাংলাদেশকে আরো শক্ত ভাবে প্রতিষ্ঠিত করবে বলে আমরা মনে করি।

অনুষ্ঠেয় এ সামিটের তথ্য ও প্রযুক্তি বিভাগের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন মালয়েশিয়ায় প্রফেসর বাংলাদেশি শিক্ষার্থী ও তরুণ উদ্যোক্তা পাভেল সারওয়ার। এবারের ইয়ুথ সামিটের লক্ষ্য হচ্ছে, বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের তরুণদের মধ্যে একটি প্লাটফর্ম তৈরি করে দেওয়া। যাতে তারা পরস্পরের সাথে নিজেদের অভিজ্ঞতা, জ্ঞান ও দক্ষতা শেয়ার করতে পারে।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশ নিয়ে মধ্যপ্রাচ্য ও মালয়েশিয়ার মতো দেশগুলোতে যে নেগেটিভ ধারণা রয়েছে আমরা আশা করি সামিটের পর তা কিছুটা হলেও কমে আসবে। দেশের প্রতি দায়বদ্ধ থেকে কাজ করলে লক্ষ্য অর্জন সম্ভব বলেও মত দেন তিনি। সামিটে কমনওয়েলথের সেক্রেটারি জেনারেল প্যাটরিসিয়া স্কটল্যান্ড, ভারতের প্রখ্যাত লেখক ও সমাজকর্মী বন্দনা শিভা ছাড়াও রাশিয়া, মালয়েশিয়া, পাকিস্তান, ইথিউপিয়াসহ বেশ কয়েকটি দেশের মন্ত্রীদের যোগ দেওয়ার কথা রয়েছে । ইনোভেশন হাবের সার্বিক সহোযোগিতায় আছেন, ফ্যামাক্যাশ, বেটেলকো, ইজিয়ার, রেজিস্ট্রো ডট কম, ইন্সপায়ারিং বাংলাদেশ, কোর গ্লোবাল, ট্রাক এয়ার ট্যুরস এন্ড ট্রাভেলস, এ আই রোবোটিক্স, ডিজিটাল এক্সপ্রেস, স্টার্ট আপ গ্রাইন্ড।

-গোলাম দাস্তগীর তৌহিদ
Please Share This Post.