মাল্টিপ্ল্যান সেন্টারে ডিজিটাল আইসিটি ফেয়ার উদ্বোধন

আজ ১০ অক্টোবর মাল্টিপ্ল্যান সেন্টারে জাঁকজমকভাবে  ৫ দিনব্যাপী “ডিজিটাল আইসিটি ফেয়ার ২০১৯” এর শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। মেলার উদ্বোধন ঘোষণা করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। দশমবারের মতো আয়োজিত ডিজিটাল আইসিটি ফেয়ারের এবারের শ্লোগান- গো ডিজিটালি মেক ইয়োর লাইফ হ্যাসল ফ্রি।

প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত মেলা চলবে। মেলার সমাপনী আগামী ১৪ অক্টোবর। সম্পূর্ন শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত ১ম থেকে ১০ম তলা পর্যন্ত ১ লক্ষ ৬৫ হাজার বর্গফুট এরিয়া জুড়ে এ মার্কেটের ৭৪৬টি প্রতিষ্ঠান তথ্যপ্রযুক্তি শিল্পের সর্বাধুনিক প্রযুক্তিপণ্য ও কলাকৌশল এ মেলায় প্রদর্শন করবে।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মোস্তাফা জব্বার, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিকে সার্থকভাবে ব্যবহারের বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেন। তিনি বলেন, দক্ষিন এশিয়ার মধ্যে এত বড় মার্কেট নেই। এখানে ব্যবসায়িরা শুধু ব্যবসায় করে না। বাংলাদেশের মানুষকে কম্পিউটার পৌছে দিতে এবং দক্ষতা তৈরি করতে কাজ করছেন। বাংলাদেশ এখন বিশ্বদোয়ারে মাথা উঁচু করে দাড়িয়েছি। আমরা ২১ সালে ৫০ বছর পালন করব। বিশ্বকে দেখিয়ে দিব আমাদের ডিজিটাল বাংলাদেশ। ২০০৯ থেকে ২০১৯ পযন্ত যে রুপন্তার হয়েছে। তা আপনারা দেখেছেন। আমাদের এখন গ্রামের মানুষেরা এখন সম্মাটফোনের মাধ্যমে অ্যাপ ব্যবহার করতে শিখেছে। বাংলাদেশে ২০২১ সালের মধ্যে সব ইউনিয়নে ফাইবার অপটিক্স পৌছানো হবে। ইন্টারনেটের ক্ষতিকারক দিকও আছে কিন্ত আমরা বসে নেই গত বছর ডিসেম্বর থেকে চলতি বছর এই সময় পযন্ত ২২ হাজার পন সাইট বন্ধ করেছি। একই সাথে ভূয়া সাইটগুলোও বন্ধ করেছি।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির সভাপতি মো: হেলাল উদ্দিন, এফবিসিসিআই এর পরিচালক আবু মোতালেব,  হাফেজ হারুন, খন্দকার মঈনুর রহমান জুয়েল, ব্যবসায়ী ঐক্য ফোরামের সভাপতি আব্দুস সালাম, ১৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জসীম উদ্দিন আহমেদ উপস্থিত থেকে তাঁদের মূল্যবান বক্তব্য দেন। তাঁরা তথ্য প্রযুক্তি খাতে বাংলাদেশর অগ্রগতির চিত্র তুলে ধরেন।

অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন কম্পিউটার সিটি সেন্টারে সভাপতি ও মেলার আহ্বায়ক তৌফিক এহ্সোন।

এ মেলায় বিশ্বের স্বনামধন্য বিভিন্ন আইসিটি ব্র্যান্ড পৃষ্ঠপোষকতা করছে। প্লাটিনাম স্পন্সর হিসেবে রয়েছে- এসার, ডেল, এইচপি, ক্যাসপারস্কাই। গোল্ড স্পন্সর হিসেবে রয়েছে- আসুস, লেনোভো, এডাটা। সিলভার স্পন্সর হিসেবে রয়েছে- ডাহুয়া ও টিপি-লিংক। স্পন্সর হিসেবে রয়েছে- ইসেট, টেনডা, ট্রানসেন্ড, ওয়েব লিংক। গেমিং পার্টনার হিসেবে রয়েছে- গিগাবাইট।

প্রতি বছরের ন্যায় এবারও বিশেষ আয়োজন হিসেবে থাকবে শিশু কিশোর চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা, ফ্রি গেমিং ও ইন্টারনেট ব্রাউজিং প্রভৃতি সুবিধা। মেলায় স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী ও সাংবাদিকদের প্রবেশাধিকার উন্মুক্ত করা হয়েছে।

-সিনিউজভয়েস/ডেক্স/১০অক্টো./১৯

Please Share This Post.