মাইক্রোসফট এসকিউএল সার্ভার ২০১৬ তথ্য নিরাপত্তায় নেতৃত্ব দিবে

ঢাকা, এপ্রিল ২৫ (সোমবার) : তথ্য নিরাপত্তা ও বিশেষ সেবা – এসকিউএল সার্ভার বাংলাদেশে অবমুক্ত করলো মাইক্রোসফট ।

সোমবার রাজধানীর একটি  হোটলে এসকিউএল সার্ভার- ২০১৬ পণ্যটির আনুষ্ঠানিক ঘোষনা দেন মাইক্রোসফট বাংলাদেশ ও দক্ষিণএশিয় অঞ্চলের কর্মকর্তারা ।  প্রতিষ্ঠনের কর্মকর্তারা বলেন, মাইক্রোসফট এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলে তথ্য নিরাপত্তায় নেতৃত্বের প্রথম পদক্ষেপ হিসেবে বাংলাদেশের বাজারে এসকিউএল এর আপডেটেড সংস্করণ অবমুক্ত করেছে । তথ্য সমৃদ্ধ বিশ্ব প্রতিযোগিতায় এগিয়ে থাকতে স্থানীয় প্রতিষ্ঠানগুলো, তাদের তথ্য-উপাত্ত গবেষণায় নতুন পথের সন্ধান পাবে ।
আয়োজকরা জানান, দ্রুত তথ্য স্থানান্তর, উন্নত বিশ্লেষণ এবং সমন্বিত ক্লাউড ব্যবস্থা নিয়ে এসকিউএল সার্ভার এর ২০১৬ হালনাগাদ সংস্করণ বিস্তৃত তথ্য ব্যবস্থাপনাকে প্রতিনিধিত্ব করবে । অনুষ্ঠানে উদ্ভোধোনি বক্তব্যে মাইক্রোসফট বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সনিয়া বশির কবির, মাইক্রোসফট বাংলাদেশের তথ্য ভাণ্ডার এবং সকল কর্মপন্থা বিষয়ে এক ভিডিও বার্তায় এ্রই  প্রদান করেন  ।
অনুষ্ঠানে প্রধান অথিতির বক্তব্যে মাইক্রোসফট দক্ষিণপুর্ব এশিয়ার বিপণন ও পরিচলন প্রধান রেনাচাই বলেন, ‘আমরা এক নতুন যুগে প্রবেশ করেছি, যেখানে ‘তথ্য’ ব্যবসায়িক প্রজন্মের চালিকা শক্তি ‘বিদ্যুৎ’রূপে ভুমিকা রাখছে’। তিনি বলেন, অনেক বড় পরিসরে তথ্য বিশ্লেষণের মাধ্যমে ভবিষ্যৎসম্পর্কে ধারনা লাভের ক্ষমতা এক সময় বড় ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের ছিলো, এখন সেটা সবার নাগালে চলে এসেছে ।
বাংলাদেশে মাইক্রোসফটের প্রধান আরো বলেন-মাইক্রোসফটে আমাদের লক্ষ্য হলো ব্যবহারকারিদের ভুল পথ থেকে সঠিক পথে পরিচালিত করা । বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠানগুলোকে নেতৃ স্থানীয় ও তথ্য বিশ্লেষনে সর্বোত্তম ফলাফল প্রদানে এসকিউএল সার্ভার ২০১৬ সহায়তা করবে; পাশাপাশি এটি আমাদের সকলের লক্ষ্য ডিজিটাল বাংলাদেশ এর স্বপ্নকে তরান্বিত করবে ।
তিনি আরো বলেন-এসকিউএল সার্ভার ২০১৬ প্রথম ক্লাউড ভিত্তিক তথ্য সংরক্ষণ কেন্দ্র । তথ্য ভান্ডারের কর্মসঞ্চালনা এবং অতি গুরুত্বপুর্ন অনলাইন স্থানান্তর প্রক্রিয়া (ওএলটিপি) বাস্তবায়নে নতুনত্ব নিয়ে এসেছে এই সার্ভার।
মাইক্রোসফটের অ্যাজিউর সেবায় লক্ষাধিক ব্যবহারকারির কোটি কোটি আবেদনের প্রেক্ষিতে সার্ভারের দুটি পরীক্ষিত সুবিধার ফলাফল দিয়েছে -অলওয়েজ এনক্রিপ্টেড এবং রোল লেভেল । মাইক্রোসফটের নতুন এই তথ্য ব্যবস্থাপনা পদ্ধতি ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানকে ব্যপক আকারের জটিল তথ্যকে বিশ্লেষণ করে উপস্থাপন যোগ্য ফলাফলে রুপান্তর করে ।
মাইক্রোসফট বাংলাদেশের প্রধান স্থানীয় প্রতিষ্ঠানদের নিয়ে আশা প্রকাশ করে বলেন- এটা আমাদের জন্য আনন্দদায়ক যে স্থানীয় প্রতিষ্ঠানগুলো পর্যায়ক্রমে ‘বস্তুগত ইন্টারনেট’বা আইওটি কিংবা বৃহৎ তথ্য ব্যবস্থাপনার মত প্রযুক্তির সাথে খাপ খাওয়াচ্ছে এবং এগিয়ে যাচ্ছে । এই বাস্তবতা আমাদের বাংলাদেশে নতুন তথ্য সংস্কৃতির জানান দিচ্ছে এবং ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান গুলো বাস্তবিক ব্যপক পরিমান তথ্য নিয়ে কাজ করছে । এসকিউএলসার্ভার ২০১৬ একটি ভিন্নধর্মী তথ্য কেন্দ্র যা প্রতিষ্ঠানগুলকে সম্ভাবনাময় স্থায়িত্বশীল তথ্য সংস্কৃতিতে উন্নত করার প্রয়াস চালিয়ে যাবে ।
বিশ্বব্যাপী বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান এবং শিল্পগুলো তাদের ব্যবসায়ীক পরিবর্তনের জন্য তথ্যের বিশ্লেষণ আশাকরে । মাইক্রোসফট এসকিউএলসার্ভার আজকের দিনের এই বিশেষায়িত চাহিদা পূরণে অগ্রগামি ।
অনুষ্ঠানে মুল প্রবন্ধ উপস্থাপন করতে গিয়ে মাইক্রোসফট দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার বিক্রয় পরিচালক সঞ্জয় প্যাটেল বলেন- “ক্রেতার সর্বোচ্চ চাহিদার মূল্যায়ন এর মাধ্যমে কর্মদক্ষতা, নিরাপত্তা, উন্নতবিশ্লেষণ, এবং গতিশীলতা বিষয় গুলোই এসকিউএল এর হালনাগাত সংস্করণ এর উদযাপন” ।
প্যটেল বলেন – শুধু একটি তথ্য তালিকাই নয়, আগামী দিনের বুদ্ধি ভিত্তিকএবং সংকটপূর্ণ সফটওয়্যারকে সহযোগিতা করবে এই সমন্বিত তথ্য বিশ্লেষণ কেন্দ্র। এটি আপনাকে এবং আপনার প্রতিষ্ঠানকে আজকের দিনের তথ্য শক্তিতে ক্ষমতায়িত করবে । এই সার্ভারটি বাংলাদেশের ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান গুলোকে নতুন সম্ভাবনায় পৌছাতে সাহায্য করবে।
ইটিএল প্রক্রিয়া প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে মাইক্রোসফট এমন একটি প্লাটফর্ম ঘোষনা করলো যেখানে সূত্র থেকে তথ্য স্থানান্তরনা করেই তথ্য উপাত্ত জমা রাখা, পুনোরুদ্ধার এবংবিশ্লেষণ করা যায় । এই সার্ভারে বিশ্লেষণের জন্য বিশেষ উন্নত বুদ্ধিমত্তা দেয়া আছে যা প্রান্তিক ব্যবহারকারীদের ব্যবহারকে সহজ করে এবং খরচ কমায় ।
মাইক্রোসফট দক্ষিণপুর্ব এশিয়ার বিপণন ও পরিচলন প্রধান রেনাচাই বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তথ্য ব্যবস্থাপনা নিয়ে মাইক্রোসফটের লক্ষ্য তুলে ধরেন । অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মাইক্রোসফট বাংলাদেশের সলিউশন স্পেসালিস্ট এম জে ফেরদৌস এবং এসকিউএল এর সর্বশেষ সুবিধা উপস্থাপন করেন।

-গোলাম দাস্তগীল তৌহিদ/সিনিউজ

Please Share This Post.