মাইক্রোসফটের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হলো ১৮ নারী

প্রযুক্তির মাধ্যমে নারীর ক্ষমতায়নের উদ্দেশ্যে ন্যাশনাল ইয়ুথ অ্যাসেম্বলি থেকে সারাদেশের ১৮ জন স্বেচ্ছাসেবীকে মাইক্রোসফট ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে ঘোষণা করেছে মাইক্রোসফট বাংলাদেশ।

১ ফেব্রুয়ারি বুধবার, কক্সবাজারে জাগো ফাউন্ডেশনের যুব অঙ্গ সংগঠন ভলান্টিয়ার ফর বাংলাদেশের আয়োজনে অনুষ্ঠিত ন্যাশনাল ইয়ুথ অ্যাসেম্বলি ২০১৭-তে এ ঘোষণা দেন মাইক্রোসফট বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সোনিয়া বশির কবির।

অনুষ্ঠানে বিশিষ্ট সব অতিথিদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এবং বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্সিয়া বার্নিক্যাট।

এ নিয়ে মাইক্রোসফট বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সোনিয়া বশির কবির বলেন, ‘মাইক্রোসফট বাংলাদেশ এই তরুণীদের হাতের কাছে প্রযুক্তি নিয়ে আসবে। প্রযুক্তি ব্যবসায় নারীদের উন্নয়নের ব্যাপারে আমি অত্যন্ত উৎসাহী এবং এরা যাতে সমস্যা সমাধানের ক্ষেত্রে প্রযুক্তি ব্যবহার করতে পারে এবং পরবর্তীতে এটাই যাতে ব্যবসায়িক ধারণায় পরিবর্তিত হয় এজন্য আমি ব্যক্তিগতভাবে এই ১৮ তরুণীকে প্রশিক্ষণ দিবো। বিশ্বের প্রযুক্তিখাতে এ মুহূর্তে যা হচ্ছে তার সবটাই আমরা তাদের সামনে তুলে ধরবো। এ বছর এপ্রিল মাসে মাইক্রোসফটের ইমাজিন কাপ নামে একটি বৈশ্বিক প্রতিযোগিতা রয়েছে। আমি এ তরুণীদের উৎসাহিত করবো বাংলাদেশে থেকে এ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করার জন্য। আর কে জানে, এদের মধ্যে থেকেই হয়তো কেউ বিজয়ী হয়ে যেতেই পারে।’

ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডরদের হাতে সনদ তুলে দেওয়ার সময় সোনিয়া বশির কবির আরও আলোচনা করেন কিভাবে প্রযুক্তি আমাদের দেশে নারীর ক্ষমতায়নে অগ্রগতি সাধনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে। মাইক্রোসফটের দূত হওয়ার এ সুযোগ নির্বাচিত তরুণীদের জন্য বিশ্বপ্রযুক্তির প্রবেশদ্বার হিসেবে কাজ করবে এবং তাদের সফলতা অর্জনের সম্ভাবনাকে ত্বরাণ্বিত করবে। তারা ‘উইন্ডোজ উইমেন’ দলে যোগ দিবে এবং মাইক্রোসফট কর্মীরা ইন্টার্নশিপে শেখানোর মাধ্যমে কিভাবে কাজ করে তা জানতে সক্ষম হবে।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে ডিজিটাল বাংলাদেশের রূপকল্প অর্জনে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। এ সময়ের মধ্যে আমরা অন্তর্ভুক্তিমূলক ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠন করতে চাই যেখানে নারী ও পুরুষ উভয়েরই সমান সুযোগ-সুবিধা থাকবে। সরকারের ‘একজন শিক্ষার্থী, একটি ল্যাপটপ’ উদ্যোগের অংশ হিসেবে আমি ১৮ জন তরুণীর জন্য ১৮ টি ল্যাপটপের ঘোষণা করছি।

জাগো ফাউন্ডেশনের আয়োজনে অনুষ্ঠিত ন্যাশনাল ইয়ুথ অ্যাসেম্বলি ২০১৭ একটি চার দিনব্যাপী আবাসিক কর্মশালা, যা দেশের ৮টি বিভাগ থেকে প্রায় ২শ’ তরুণ নেতৃত্বকে একসাথে নিয়ে এসেছে। অংশগ্রহণকারীদের দক্ষতা বাড়াতে এবং সমাজে তাদের অবদান রাখতে সহায়তা করতে এ অ্যাসেম্বলিতে বিভিন্ন বিষয়ের ওপর কর্মশালা, স্বেচ্ছাসেবীদের মধ্যে ইন্টার-অ্যাকটিভ সেশন এবং বিভিন্ন খাতে বিখ্যাত বক্তাদের বক্তৃতা অনুষ্ঠিত হয়।

Please Share This Post.