মাইক্রোসফটের এয়ারব্যান্ড গ্রান্ট অনুদান পাচ্ছে বাংলাদেশী স্টার্টআপ

উদীয়মান স্টার্টআপের মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্র, আফ্রিকা ও এশিয়ার সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠীর কাছে ইন্টারনেট সুবিধা ও ক্লাউড সমাধান পৌঁছে দিতে মাইক্রোসফটের তৃতীয় বার্ষিক এয়ারব্যান্ড গ্রান্ট অনুদানের জন্য মনোনীত হয়েছে বাংলাদেশের এমই সোলশেয়ার।

বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের সুবিধাবঞ্চিত মানুষের কাছে সৌরবিদ্যুৎ পৌঁছে দেয়া এমই সোলশেয়ার এ ফান্ড পাওয়ার জন্য এশিয়ার একমাত্র প্রতিষ্ঠান হিসেবে মনোনীত হয়েছে।

মাইক্রোসফট নির্বাচিত এ স্টার্টআপগুলোর প্রকল্পে অর্থ বিনিয়োগ করবে পাশাপাশি তাদের প্রযুক্তি ব্যবহারের সুবিধা দিবে, প্রশিক্ষণ দিবে, নেটওয়ার্কিং -এর সুযোগ করে দিবে এবং তাদের কানেক্টিভিটি সল্যুশন সেবাকে গতিশীল করতে সার্বিক অন্যান্য সহায়তা প্রদান করবে।

এমই সোলশেয়ার বাংলাদেশে ওয়াই-ফাই টাওয়ার সংযুক্ত পিয়ার টু পিয়ার সোলার এনার্জি ট্রেডিং প্ল্যাটফর্ম নির্মাণে কাজ করে যাচ্ছে।

এ নিয়ে মাইক্রোসফট বাংলাদেশ, মিয়ানমার, নেপাল, ভুটান ও লাওসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সোনিয়া বশির কবির বলেন, মাইক্রোসফট এয়ারব্যান্ড গ্রান্ট ফান্ডের বিজয়ী হওয়া এমই সোলশেয়ার ও বাংলাদেশের জন্য অত্যন্ত গর্বের ডিজিটাল অন্তর্ভুক্তি ও ডিজিটাল ডিভাইডের মধ্যে সেতুবন্ধন প্রত্যন্ত জনগোষ্ঠীর মানুষদের ক্ষমতায়ন ঘটাতে সহায়তা করবে। আমাদের বিশ্বাস, উদ্যোক্তাদের নিয়ে একসাথে কাজ করার মাধ্যমে আমরা এটা করতে পারবো।

এমই সোলশেয়ার চিফ টেকনিক্যাল অফিসার হ্যানেস কেহফ বলেন, এমই সোলশেয়ার প্ল্যাটফর্ম প্রতিষ্ঠানের দিকে রূপান্তর প্রক্রিয়া চলছে। মাইক্রোসফট এয়ারব্যান্ড উদ্যোগের অংশ হওয়ার কারণে এ প্রক্রিয়া আরও গতিশীল হবে পাশাপাশি, আমরা উৎকর্ষের দিকে আগাবো।

এয়ারব্যান্ড গ্রান্ট মাইক্রোসফটের এয়ারব্যান্ড উদ্যোগেরই অংশ যা সাশ্রয়ী ইন্টারনেট সেবার পাওয়ার ক্ষেত্রে সকল প্রতিবন্ধকতা পেছনে ফেলে সামনে এগিয়ে যাওয়া নিয়ে কাজ করে।

-গোলাম দাস্তগীর তৌহিদ

 

Please Share This Post.