মন্ত্রী হচ্ছেন মোস্তফা জব্বার

মন্ত্রিসভার সদস্য হিসেবে শপথ গ্রহণের জন্য তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ মোস্তফা জব্বারকেও ডাকা হয়েছে বঙ্গভবনে। তাকেও সরকারে পদে দেয়া হচ্ছে। তিনি বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তি বিষয়েই দায়িত্ব পেতে পারেন বলে জানিয়েছে আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা।

সোমবার (১জানুয়ারি) দুপুরে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে বেশ কয়েকজনকে ফোন করে মঙ্গলবার বঙ্গভবনে উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে। এদের মধ্যে একজন মোস্তফা জব্বার বলে নিশ্চিত করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সূত্র। মোস্তফা জব্বার বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অব সফটওয়ার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিস-বেসিসের সভাপতি জব্বার ডিজিটাল বাংলাদেশ করতে সরকারের নানা প্রকল্পের সঙ্গেও ছিলেন।

তিনি ডিজিটাল বাংলাদেশ টাস্কফোর্সের সদস্যও। নানা সময় তথ্য প্রযুক্তির উন্নয়নে সরকারের নানা উদ্যোগের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন মোস্তফা জব্বার। পাশাপাশি এই খাতে আর কী কী করা যায়, সে বিষয়েও নানা সময় সরকারকে পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

গত ৬ ডিসেম্বর তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ে মেলা ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডের এবারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানেও অন্যতম বক্তা ছিলেন মোস্তফা জব্বার। এই বক্তব্যে তিনি তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ে সরকারের চিন্তার সঙ্গে একমত পোষণ করে নানা দাবি তুলে ধরেন।

ওই অনুষ্ঠানেই প্রধানমন্ত্রী মোস্তফা জব্বারকে আরও বড় কোনো দায়িত্ব দেয়ার কথা বলেছিলেন। মন্ত্রিসভায় ডাক পাওয়ার বিষয়ে জানতে ফোন করে অভিনন্দন জানানো হলে মোস্তফা জব্বার ধন্যবাদ জানান। তবে এ বিষয়ে তিনি বিস্তারিত কিছু বলতে রাজি হননি।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে আপনাকে ফোন করা হয়েছিল কি না এমন প্রশ্নের জব্বার বলেন, ‘এ বিষয়ে আমি কিছুই বলব না, আমার মুখ বন্ধ, আপনারা মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে জেনে নেন।’মোস্তফা জব্বার বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির সাবেক সভাপতি। তাকে কম্পিউটারে বাংলা ভাষা যুক্ত করার পথপ্রদর্শক মনে করা হয়। তার প্রতিষ্ঠানের বিজয় বাংলা কিবোর্ড ১৯৮৮ সালে প্রকশিত হয় যা প্রথম বাংলা কিবোর্ড এবং ইউনিকোড আসার পূর্বপর্যন্ত বহুল ব্যবহৃত হয়েছে।

সিনিউজভয়েস//ডেস্ক/

 

Please Share This Post.