বেসিস-আইপিডিসি অ্যাওয়ার্ডস বিজয়ীরা যাচ্ছে অ্যাপিকটায়

জমকালো পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে শেষ হলো বেসিস ন্যাশনাল আইসিটি অ্যাওয়ার্ডস ২০১৯ সৌজন্যে ছিলো আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড। রাজধানীর র‌্যাডিসন ব্লু ওয়াটার গার্ডেনের গ্র্যান্ড বলরুমে পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, এমপি।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন, এমপি এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্মেদ পলক, এমপি।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্যে বেসিস ন্যাশনাল আইসিটি অ্যাওয়ার্ডস ২০১৯ এর আহ্বায়ক ও বেসিস পরিচালক দিদারুল আলম বলেন, এবছরের পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠান অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডসের আদলে সাজানো হয়েছে। থাকছে বিগত বছরের বিজয়ীদের প্রকল্প প্রদর্শনী, লেজার শো, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। পাশাপাশি, নতুন আদলে বানানো আইসিটি অ্যাওয়ার্ড বিজয়ীদের হাতে তুলে দেওয়া হবে আজকের আয়োজনের মধ্য দিয়ে।

আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং সিইও মমিনুল ইসলাম বলেন, বেসিস ন্যাশনাল আইসিটি অ্যাওয়ার্ডের লক্ষ্য হলো ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে ব্যক্তি, ছাত্র, উদ্যোক্তা, এসএমই এবং বাংলাদেশে পরিচালিত তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানসমূহের অসাধারণ কৃতিত্বের জন্য স্বীকৃতি প্রদান করা। আমরা এ উদ্যোগের সাথে দীর্ঘমেয়াদে থাকতে চাই।

                                                          তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ সহ সর্ব ডানে আহ্বায়ক পরিচালক দিদারুল আলম

সভাপতির বক্তব্যে বেসিস সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবীর বলেন, বেসিস ন্যাশনাল আইসিটি অ্যাওয়ার্ডসের মাধ্যমে আমরা সারাদেশের উদ্ভাবনী এবং সম্ভাবনাময় তথ্যপ্রযুক্তি প্রকল্পগুলোকে বাছাই করি এবং উৎসাহ প্রদান করার লক্ষ্যে পুরষ্কার প্রদান করি। বিভিন্ন ক্যাটাগরির প্রকল্পগুলো আমাদের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের বিস্তৃত সম্ভাবনাগুলোই তুলে ধরছে। মনোনীত প্রকল্পগুলো আন্তর্জাতিক অঙ্গণে প্রতিযোগিতার জন্য মনোনয়ন দেওয়া হয়, যা বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের সক্ষমতাকেও তুলে ধরছে।

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন, এমপি বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণ সরকারের অঙ্গীকার। জনপ্রশাসনের প্রতিটি ক্ষেত্রই ডিজিটালাইজড করার কাজ চলছে। দেশীয় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানসমূহের হাত ধরেই এগিয়ে চলছে ডিজিটাল বাংলাদেশ। দেশীয় তথ্যপ্রযুক্তি খাতের প্রতিষ্ঠানসমূহকে সম্মানিত এবং উৎসাহিত করছে বেসিস ন্যাশনাল আইসিটি অ্যাওয়ার্ডস। আমি বেসিসের এ উদ্যোগকে স্বাগত জানাচ্ছি।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্মেদ পলক, এমপি বলেন, তথ্যপ্রযুক্তি খাতের অগ্রযাত্রায় বেসিস নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। সারাদেশ থেকে ৩৫টি ক্যাটাগরিতে প্রকল্প বাছাই করে পুরস্কার প্রদান আমাদের তথ্যপ্রযুক্তি খাত সংশ্লিষ্টদের জন্যে বিরাট সম্মানের। পাশাপাশি বিজয়ীরা আইসিটি অস্কারখ্যাত অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডসে যাওয়ার সুযোগ পাচ্ছে। যা নিঃসন্দেহে প্রতিযোগীদের উৎসাহিত করবে।

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, এমপি বলেন, বেসিসের উদ্যোগে ৩য় বারের মতো বেসিস ন্যাশনাল আইসিটি অ্যাওয়ার্ডস অনুষ্ঠিত হলো। আমি গর্বিত এটা জানতে পেরে যে, বাংলাদেশের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় দল এবার ভিয়েতনামে অনুষ্ঠেয় অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডসে অংশ নিতে যাচ্ছে। আমাদের দেশকে এ প্রতিযোগিতা নতুন উচ্চতায় নিয়ে যাবে বলে আমার বিশ্বাস। আমি বেসিস এর এ উদ্যোগকে সাধুবাদ জানাই ও উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করি।


এবারে বেসিস ন্যাশনাল আইসিটি অ্যাওয়ার্ডস ২০১৯ পেল-

১. বিজনেস সার্ভিসেস ফিন্যান্স অ্যান্ড অ্যাকাউন্টিংয়ে অ্যানালাইজেন বাংলাদেশ লিমিটেড
২. বিজনেস সার্ভিসেস আইসিটি সার্ভিস সল্যুশনসে হেলোটাস্ক লিমিটেড
৩. বিজনেস সার্ভিসেস মার্কেটিং সল্যুশনসে অ্যানালাইজেন বাংলাদেশ লিমিটেড
৪. বিজনেস সার্ভিসেস প্রফেশনাল সার্ভিসেসে অ্যান্ট বিজনেস নেটওয়ার্ক প্রাইভেট লিমিটেড
৫. কনজ্যুমার ব্যাংকিং, ইনস্যুরেন্স, ফিন্যান্সে লংকাবাংলা ইনফরমেশন সিস্টেম লিমিটেড
৬.কনজ্যুমার ডিজিটাল মার্কেটিংয়ে অ্যানালাইজেন বাংলাদেশ লিমিটেড
৭. কনজ্যুমার মিডিয়া অ্যান্ড এন্টারটেইনমেন্টে কনটেন্ট ম্যাটার্স লিমিটেড
৮. কনজ্যুমার রিটেইল অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশনে এটুআই, আইসিটি বিভাগ
৯. ইনক্লুশন অ্যান্ড কমিউনিটি সার্ভিসেস কমিউনিটি সার্ভিসেসে শাটল
১০. ইনক্লুশন অ্যান্ড কমিউনিটি সার্ভিসেস এডুকেশনে ইয়োডা
১১. ইনক্লুশন অ্যান্ড কমিউনিটি সার্ভিসেস হেলথ অ্যান্ড ওয়েলবিঙ্গয়ে এটিআই লিমিটেড
১২. ইনক্লুশন অ্যান্ড কমিউনিটি সার্ভিসেস ইনডিজিনিয়াস সার্ভিসেসে ব্যাবিলন রিসোর্স লিমিটেড
১৩. ইনক্লুশন অ্যান্ড কমিউনিটি সার্ভিসেস রিজিওনাল অ্যান্ড রিমোট সার্ভিসেসে এখনি ডট কম লিমিটেড (বাগডুম ডটকম)
১৪. ইনক্লুশন অ্যান্ড কমিউনিটি সার্ভিসেস সাস্টেইলিবিটি অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টে যুগ্ম জেনে ইনফোসিস লিমিটেড
১৫. ইনক্লুশন অ্যান্ড কমিউনিটি সার্ভিসেস সাস্টেইলিবিটি অ্যান্ড এনভায়রনমেন্ট যুগ্ম স্কিল ডেভেলপমেন্ট ফর মোবাইল গেম এবং অ্যাপ্লিকেশন প্রকল্প, আইসিটি বিভাগ
১৬. ইন্ডাস্ট্রিয়াল অ্যাগ্রিকালচার সূর্যমুখী লিমিটেড
১৭. ইন্ডাস্ট্রিয়াল ম্যানুফ্যাকচারিং প্রাইডসিস আইটি লিমিটেড
১৮. ইন্ডাস্ট্রিয়াল সাপ্লাইচেইন লজিস্টি সফটওয়্যার শপ লিমিটেড (এসএসএল ওয়্যারলেস)
১৯. ইন্ডাস্ট্রিয়াল ট্রান্সপোর্ট ডিঙ্গি টেকনোলজিস লিমিটেড
২০. পাবলিক সেক্টর অ্যান্ড গভর্নমেন্ট ডিজিটাল গভর্নমেন্ট বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল
২১. পাবলিক সেক্টর অ্যান্ড গভর্নমেন্ট অ্যান্ড সিটিজেন সার্ভিস প্যারালা·লজিক ইনফোটেক
২২. স্টুডেন্ট সিনিয়র ক্যাটাগরিতে আইডিইবি আইওটি এবং রোবটিক·গবেষণা ল্যাব
২৩. স্টুডেন্ট টারশিয়ারি ক্যাটাগরিতে এইচএমসফট
২৪. টেকনোলজির এআইপিএমে¯পায়ার লিমিটেড
২৫. টেকনোলজি বিগ ডেটায় ক্র্যামস্ট্যাক লিমিটেড
২৬. টেকনোলজি ইন্টারনেট অব থিংস বন্ডস্টেইন টেকনোলজিস লিমিটেড
২৭. ক্রস ক্যাটাগরি রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্টে পাইন সলিউশনস লিমিটেড
২৮. ক্রস ক্যাটাগরি স্টার্টআপ এআরকম
২৯. ক্রস ক্যাটাগরি স্টার্টআপ যুগ্ম সিগমাইন্ড

বেসিস ন্যাশনাল আইসিটি অ্যাওয়ার্ডস বিজয়ীরা অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস ২০১৯-এ বাংলাদেশের প্রতিযোগী হিসেবে মনোনীত হলেন। এ বছর অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস আগামী ১৮-২৩ নভেম্বর ভিয়েতনামের হা লং বেতে অনুষ্ঠিত হবে। বাংলাদেশ থেকে ৮০ সদস্যের প্রতিনিধিদল অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডস ২০১৯-এ অংশ নিচ্ছে।

বেসিসের উদ্যোগে এবং আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের সৌজন্যে তৃতীয়বারের মতো আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে ১ হাজার ১৭৫টি প্রকল্প জমা পড়েছিল। বেসিস ন্যাশনাল আইসিটি অ্যাওয়ার্ডসের তৃতীয় আসরে এবারে ৩৫টি ক্যাটাগরিতে ৬৯টি প্রতিষ্ঠান/প্রকল্পকে সম্মানিত করার পাশাপাশি ৩৭ জন বিচারক, আয়োজক কমিটির সদস্যদের সম্মাননা প্রদান করা হয়েছে।

-সিনিউজভয়েস/ডেক্স/১২অক্টো./১৯

 

Please Share This Post.