বিশ্বের সেরা নেতৃস্থানীয় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান মাইক্রোসফট

বিশ্বখ্যাত গণমাধ্যম সংস্থা থমসন রয়টার্স কর্পোরশেন সম্প্রতি ‘সেরা ১০০ আন্তর্জাতিক প্রযুক্তি নেতৃত্ব’ প্রতিষ্ঠানের তালিকা প্রকাশ করেছে। রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে, আন্তর্জাতিক প্রযুক্তি ইন্ডাস্ট্রিতে ‘আর্থিকভাবে সফল এবং সাংগাঠনিক প্রতিষ্ঠান’ চিহ্নিত করতে এই তালিকা তৈরি করা হয়েছে।

তালিকায় প্রথম স্থান অর্জন করেছে যুক্তরাষ্ট্রের বিশ্বখ্যাত সফটওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান মাইক্রোসফট কর্পোরেশন। এর পরের অবস্থানে রয়েছে চিপ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ইন্টেল।

২৮-ফ্যাক্টর অ্যালগরিদমের ওপর ভিত্তি করে এই ফলাফল তৈরি করা হয়েছে, যেখানে একটি প্রতিষ্ঠানের ৮টি মানদন্ড বিচার করে হয়েছে। সেগুলো হচ্ছে, ফিনান্সিয়াল, পিপল অ্যান্ড সোশ্যাল রেসপন্সিবিলিটি, ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড ইনভেসটর কনফিডেন্স, রিস্ক অ্যান্ড রিসিলিয়েন্স, লিগ্যাল কমপ্লায়েন্স, ইনোভেশন, এনভায়রনমেন্টাল ইমপ্যাক্ট এবং রিপুটেশন।

এসব মানদন্ডের বিচারে বিশ্বের সেরা নেতৃস্থানীয় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের খেতাব জিতেছে মাইক্রোসফট। সেরা ১০টি প্রতিষ্ঠানের তালিকা দেখে নিন: ১. মাইক্রোসফট, যুক্তরাষ্ট্র ২. ইন্টেল, যুক্তরাষ্ট্র ৩. সিসকো, যুক্তরাষ্ট্র

৪. আইবিএম, যুক্তরাষ্ট্র ৫. অ্যালফাবেট, যুক্তরাষ্ট্র ৬. অ্যাপল ৭. তাইওয়ান সেমিকন্ডাক্টর ম্যানুফ্যাকচারিং, তাইওয়ান ৮. স্যাপ, জার্মানি ৯. টেক্সাস ইন্সটুমেন্টস, যুক্তরাষ্ট্র এবং ১০. অ্যাকসেঞ্চার, আয়ারল্যান্ড।

এ বিষয়ে মাইক্রোসফট বাংলাদেশ, নেপাল, ভূটান এবং লাওসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সোনিয়া বশির কবিরের মন্তব্য জানাতে চাওয়া হলে তিনি সিনিউজ প্রতিবেদককে বলেন, ‘আমি খুবই আনন্দিত এরকম বিশ্বসেরা একটা প্রতিষ্ঠানে বাংলাদেশের হয়ে কাজ করতে পেরে। আমি চেষ্টা করে যাচ্ছি মাইক্রোসফটের নতুন নতুন প্রযুক্তি অতি দ্রুততার সঙ্গে সবাইকে পরিচয় করিয়ে দিতে। এ প্রচেষ্টা অব্যহত থাকবে।’

-গোলাম দাস্তগীর তৌহিদ

Please Share This Post.