বিজ্ঞান আড্ডায় ‘চন্দ্রাভিযানের ৫০ বছর’

১৯৬৯ সালের ২০ জুলাই প্রথমবারের মত মানুষ চাঁদে পদার্পন করে।  এ বছর পালিত হচ্ছে এই বিশাল অর্জনের অর্ধশত বছর পালন হচ্চে এবার।  বাংলাদেশ বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণ সমিতি চন্দ্রবিজয়ের ৫০ বছর উদযাপন করছে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে। সোমবার রাজধানীর কাটাবনের দীপনপুরে ছিল চন্দ্র বিজয় উপলক্ষে আয়োজিত স্কুল কুইজের পুরস্কার বিতরণী ও চন্দ্রবিজয় নিয়ে আড্ডা।  তিনটি স্কুলে অংশ নেওয়া ৮০০ শিক্ষার্থীর মধ্য হতে ৩০ জন শিক্ষার্থীকে পুরস্কৃত করা হয়।

দীপনতলার  সোমবার বিকাল চারটায় প্রায় ৩০ জন স্কুল শিক্ষার্থীসহ ৫০ জন এই আয়োজনে অংশগ্রহণ করে। বিজ্ঞান আড্ডায় অংশ নেওয়া শিক্ষার্থীদের মনে ছিল নানা প্রশ্ন। মানুষ কি আসলেই চাঁদে গিয়েছিল? নাকি এরিয়া-৫১ এ যেয়ে চাঁদে অবতরণের শ্যুটিং করে তা বিশ্বব্যাপী চন্দ্রবিজয়ের এক নাটক বলে চালিয়েছিল?  আমেরিকা টেকনোলজির দিক থেকে রাশিয়ার চেয়ে অনেক পিছিয়ে ছিল, তাহলে রাশিয়া কেন আগে যেতে পারলো না? আমেরিকা আগে কীভাবে গেল? চাঁদে তো বাতাস নেই তাহলে পতাকা উড়ছে কিভাবে? চাঁদের আকাশে তারা নেই কেন? ১২ জনের পরে আর কেউ চাঁদে যেতে পারল না কেন? আচ্ছা, চন্দ্রবিজয়ের নাটকটি করে প্রেসিডেন্ট কেনেডি কি রাশিয়ার সাথে স্নায়ুযুদ্ধ জিততে চেয়েছিলেন? চাঁদ আসলে পৃথিবী থেকে কতদূরে? বাসের গতিতে গেলে চাঁদে যেতে কত দিন বা কত বছর লাগবে? আলোর বেগে গেলে কতক্ষণে চাঁদের পৌঁছানো যাবে? চাঁদের তাপমাত্রা আসলে কত? এসব প্রশ্নের উত্তর প্রদান করেন কোরিয়া অ্যাডভান্সড ইন্সটিটিউট অফ সাইন্স অ্যান্ড টেকনোলজির পদার্থবিজ্ঞানের শিক্ষার্থী ও ম্যাক্স প্লাংক ইন্সটিটিউট ফর অ্যাস্ট্রোনমির সাবেক ইন্টার্ণ ইশিতিয়াক আকিব ও বাংলাদেশ জুনিয়র সায়েন্স অলিম্পিয়াডের একাডেমিক কাউন্সেলর ইবরাহিম মুদ্দাসসের।

আড্ডার শেষে চন্দ্রবিজয়ের ৫০ বছর উদযাপন উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণ সমিতি ও ম্যাসল্যাবের আয়োজনে স্কুল কুইজ প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের বই ও সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়।  উল্লেখ্য, এই কুইজে গবর্নমেন্ট ল্যাবরেটরি হাইস্কুল, উদয়ন উচ্চ বিদ্যালয় এবং ইঞ্জিনিয়ারিং ইউনিভার্সিটি স্কুল এন্ড কলেজের প্রায় আট শতাধিক শিক্ষার্থী অংশ নেয়। চাঁদে মানুষের যাওয়ার নানা বিজ্ঞান নিয়ে এই কুইজটি আয়োজন করা হয়।

পুরো আয়োজনে সার্বিক সহায়তা প্রদান করে দীপনপুর ও বিজ্ঞানচিন্তা।

-সিনিউজভয়েস/জিডিটি/২৩জুলাই/১৯

Please Share This Post.