বিকিকিনিতে জমজমাট ল্যাপটপ মেলার শেষ দিন

দর্শনার্থীদের বিপুল উৎসাহ, সমাগম আর বেচাবিক্রির মধ্যে দিয়ে দ্বিতীয় দিন শেষের পর শনিবার সকাল থেকেই ভিড় ছিল ল্যাপটপ মেলায়।

সেই ভিড় বিকেল শুরুর সময় থেকেই বেড়ে চলেছে। জমে উঠেছে শেষ দিনের ল্যাপটপ মেলার বেচাবিক্রিও।

শুক্রবার ল্যাপটপ কিনে বেশ কয়েকজন ক্রেতা বাইসাইকেল পেয়েছেন। পেয়েছেন টিভি। তাই শেষ দিনের মেলাতেও অনেকেই পছন্দের ল‍্যাপটপ কিনতে ভিড় করছেন। ক্রেতাদের আগ্রহের ভিত্তিতে শেষ দিনের মেলার সময় বাড়ানো হয়েছে এক ঘণ্টা।  তাই শেষ দিনের মেলা চলবে রাত নয়টা পর্যন্ত।

শনিবার অনেকের ছুটির দিন হওয়ায় সকাল থেকেই ভিড় করছেন।  দুপুর শুরু হতেই ভিড় রীতিমতো বড়সড় রূপ নেয়।

প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতিনিধিরা বলছেন, দ্বিতীয় দিনে খুব ভালো বেচা-বিক্রি হয়েছে। শেষ দিনে বিক্রির পরিমাণ আরো বাড়বে।

মেলায় এসে ল্যাপটপ কিনেছেন তাসফিয়া আফরোজা। তিনি ধানমন্ডি থেকে এসেছেন। জানতে চাইলে তিনি বলেন, রাস্তায় বাস না চললেও অন্য যানবাহন স্বাভাবিক চলাচল করছে। আসতে একটু কষ্ট হয়েছে। তবে ল্যাপটপ কিনে গিফট পেয়ে সেটি ভুলে গেছি।

এক্সপো মেকারের পরিচালক আমিরুল ইসলাম জানান, ক্রেতাদের আগ্রহের ভিত্তিতে শেষ দিনের মেলার সময় এক ঘণ্টা বাড়ানো হয়েছে। মেলা শেষ হবে রাত নয়টায়।

মেলায় বিশ্বখ্যাত কম্পিউটার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান এসার, আসুস, ডেল, এইচপি, লেনেভো ছাড়াও অংশ নিচ্ছে আমেরিকান ব্র্যান্ড আইলাইফ। দেশীয় একমাত্র কম্পিউটার নির্মাতা ব্র্যান্ড ওয়ালটনও থাকছে এবারের মেলায়।

পরিবেশক প্রতিষ্ঠান হিসেবে অংশ নিচ্ছে স্টার টেক, গ্লোবাল ব্র্যান্ড ও স্মার্ট টেকনোলজিস। মেলায় অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানগুলো সর্বশেষ প্রযুক্তির পণ্য প্রদর্শন ও বিক্রির সঙ্গে উপহার দিচ্ছে। রয়েছে স্ক্র্যাচ কার্ড, র‍্যাফেল ড্রতে উপহার জেতার সুযোগ।

মেলায় মোট ছয়টি প্যাভিলিয়ন, ১৪টি মিনি প্যাভিলিয়ন ও ২৭টি স্টল থাকছে। এছাড়াও, থাকবে মিডিয়া বুথ ও অরগানাইজার বুথ।

মেলায় প্রবেশ মূল্য ৩০ টাকা। তবে স্কুলের শিক্ষার্থীরা ইউনিফর্ম পরে কিংবা পরিচয়পত্র প্রদর্শন করে বিনামূল্যে প্রবেশ করতে পারবে। প্রতিবন্ধীরাও বিনামূল্যে প্রবেশের সুযোগ পাবেন।

সিনিউজভয়েস//ডেস্ক/
Please Share This Post.