বিআইসি’র প্রথম আয়োজনে ইনোভেশন অ্যাওয়ার্ড পেল ১৯টি উদ্ভাবন

বাংলাদেশকে উদ্ভাবনের উচ্চ শিখরে নিয়ে যেতে বিআইসি (বাংলাদেশ ইনোভেশন কনক্লেভ) প্রথমবারের মতো আয়োজন করলো বাংলাদেশ ইনোভেশন অ্যাওয়ার্ড যেখানে দেশের সেরা ১৯টি উদ্ভাবনী কাজকে পুরষ্কৃত করা হয়। সম্প্রতি রাজধানীর লা মেরিডিয়ান হোটেলে এক জমকালো আয়োজনের মাধ্যমে এই পুরষ্কার তুলে দেয়া হয়। মাস্টারকার্ড এর পৃষ্ঠপোষকতায় অনুষ্ঠিত এই অ্যাওয়ার্ড এর আয়োজনে ছিলো বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম।

বাংলাদেশ ইনোভেশন অ্যাওয়ার্ড এর মূল লক্ষ্য ছিল এদেশের উদ্ভাবনী ক্ষেত্রে স্টার্টআপ কোম্পানি থেকে শুরু করে প্রতিষ্ঠিত সংস্থাগুলোর সাফল্য এবং সৃজনশীলতার উদ্দীপক হিসেবে কাজ করা।

বিভিন্ন ক্ষেত্রে সৃজনশীল উদ্ভাবনকে স্বীকৃতি প্রদানের মাধ্যমে উদ্ভাবনী শক্তিকে উদ্দীপ্ত করে বাংলাদেশের অর্থনীতির বিকাশের ক্ষেত্রে উদ্যোগটি একটি উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করবে।

এবারের ইনোভেশন অ্যাওয়ার্ড-এর প্রধান ক্যাটাগরিগুলো ছিলো ক্ষেত্র-ভিত্তিক যেখানে বিবেচিত হয়েছে আর্থিক খাত, পোশাক খাত, স্বাস্থ্যসেবা, এসডিজি অন্তর্ভুক্তকরণ, প্রক্রিয়া,পণ্য উন্নয়ন, স্টার্টআপ, সামাজিক ও প্রযুক্তি খাত। এছাড়া মাস্টার অব রিইনভেনশন নামে একটি বিশেষ ক্যাটাগরিতে পুরষ্কার প্রদান করা হয়েছে।

Innovation-Award

সেরা স্টার্টআপ ইনোভেশন হিসেবে পুরষ্কৃত হয়েছে সেবা এক্সওয়াইযেড। আর্থিক খাতে সেরা ইনোভেশন হিসেবে পুরষ্কৃত হয়েছে বিকাশ কাস্টমার অ্যাপ। এছাড়া সেরা টেকনোলজি ইনোভেশন ছিলো ব্রিলিয়ান্ট আইডিয়াস লিঃ এর ট্রাক লাগবে অ্যাপ।

এসডিজি অন্তর্ভুক্তকরণ খাতে সেরা ইনোভেশন হয়েছে ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকো বাংলাদেশ এর প্রবাহ যা একটি পানি বিশুদ্ধকরন প্রকল্প। বিএটি বাংলাদেশের ‘প্রবাহ’ এমন একটি সামাজিক দায়বদ্ধতা কর্মসূচী (সিএসআর) যেখানে আর্সেনিক প্রবণ এলাকাগুলোতে বিশুদ্ধ খাবারের পানি সরবরাহ করা হয়। এই ‘প্রবাহ’ প্রকল্পের মাধ্যমে দেশ জুড়ে এই পর্যন্ত ৭৩ টি বিশুদ্ধ পানির প্ল্যান্ট স্থাপণ করা হয়েছে। বিএটি বাংলাদেশ এই প্রকল্পের জন্যে সরকার অনুমোদিত কমিউনিটি ভিত্তিক প্রযুক্তি এসআইডিকেও ফিল্টারেশন ইউনিট ব্যবহার করছে।  ‘প্রবাহ’ টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের লক্ষ্য ১: দারিদ্র মুক্তকরণ, লক্ষ্য ৩: সুস্বাস্থ্য এবং ভাল থাকা এবং লক্ষ্য ৬: পরিচ্ছন্ন পানি এবং স্যানিটেশন এই তিনটি লক্ষ্য অর্জনে সাহায্য করে।

অনুষ্ঠানে উদ্বোধন করা হয় বিআইসি-এর উদ্যোগে দেশের চারটি বিভাগে চারটি ইনোভেশন সেন্টার এর কার্যক্রম ও বাংলাদেশ ইনোভেশন ব্লগ এর ওয়েবসাইট। এই উদ্বোধন কার্যক্রম সঞ্চালনা করে বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরামের পরিচালক নাজিয়া আন্দালিব প্রিমা।

অনূষ্ঠানের শুরুতে মাস্টারকারডের কান্ট্রি ম্যানেজার সাঈদ মোহাম্মদ কামাল তার উদ্বোধনী বক্তব্য প্রদান করেন। উক্ত অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ইনোভেশন কনক্লেভ এর প্রতিষ্ঠাতা শরিফুল ইসলাম।

-গোলাম দাস্তগীর তৌহিদ
Please Share This Post.