এসডিজি বাস্তবায়নে সব পর্যায়ে বিগ ডাটার কার্যক্রম হবে-মোস্তাফা জব্বার

গতকাল আগারগাঁওস্থ বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে “বিগডাটা ফর হেলথ” শীর্ষক আন্তর্জাতিক সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতা করছিলেন। ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, বাংলাদেশ সমগ্র বিশ্বে ডিজিটাল প্রযুক্তিতে নেত্বত্ব দেয়ার সক্ষমতা অর্জন করেছে। আমাদের আগে কোন দেশ নিজেদের ডিজিটাল ঘোষণা করতে পারেনি। প্রযুক্তিতে আমরা পিছিয়ে থাকব না।

তিনি বলেন, বিগ ডাটা আমাদের জন্য খুব বড় কোন চ্যালেঞ্জ নয়। ২০২১ থেকে ২০২৩ সালের মধ্যেই ৫জি চালু করার পরিকল্পনা রয়েছে।

তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ে আমাদের সরকার অত্যন্ত সচেতন উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন সকল নাগরিক সেবাকে ডিজিটাল পদ্ধতিতে রূপান্তর করা আমাদের মূল লক্ষ্য। সরকার টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা বাস্তবায়নে সকল পর্যায়ে বিগ ডাটা ভিত্তিক কার্যক্রম গ্রহণেও গুরুত্ব আরোপ করা হবে।

তিনি আরো বলেন, ইন্টারনেট সেবা প্রদানের মাধ্যমে গ্রাম এবং শহরের মধ্যে ডিজিটাল সেবার পার্থক্য দূরীকরণে বিভিন্ন কার্যক্রম গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করছে।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, আইসিটি বিভাগ, ইউএসএইড ও ইউএনডিপি এর সহায়তায় পরিচালিত এটুআই, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো, ডাটা ফর হেলথ ইনেশিয়েটিভ (ডিফরএইচ), ব্লুমবার্গ ফিলানথ্রোপিস, ইউনিসেফ, আইসিডিডিআরবি এবং মেজার ইভাল্যুইয়েশন এর যৌথ উদ্যোগে দুইদিনব্যাপী এ সম্মেলন আয়োজন করে।

এটুআই এর প্রকল্প পরিচালক মোঃ মোস্তাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তৃতা করেন প্রধানমন্ত্রীর এসডিজি বিষয়ক মুখ্য সমন্বয়ক আবুল কালাম আজাদ, স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব আসাদুল ইসলাম, পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব সৌরেন্দ্র নাথ চক্রবর্তী, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডাঃ আবুল কালাম আজাদ, ইউএনডিপির রেসিডেন্ট রিপ্রেজেন্টেটিভ সুদীপ্ত মুখার্জী এবং এটুআই এর পলিসি অ্যাডভাইজর আনীর চৌধুরী।

সিনিউজভয়েস/জিডিটি১২এফ/১৯

Please Share This Post.