বাজার মাতাতে এলো স্যামসাং গ্যালাক্সি এম১০

তরুণ প্রজন্মের জীবনধারার কথা মাথায় রেখে এবার  স্যামসাং বাংলাদেশ বাজারে নিয়ে এসেছে  গ্যালাক্সি এম১০। বহুল আলোচিত এ ফোনটির বিশেষ দিকগুলোর মধ্যে রয়েছে এর অত্যাধুনিক ইনফিনিটি-ভি ডিসপ্লে, দক্ষতাসম্পন্ন আল্ট্রা-ওয়াইড লেন্সের ডুয়েল রিয়ার ক্যামেরা, লং-লাস্টিং ব্যাটারি, ক্ষমতাসম্পন্ন প্রসেসর এবং সম্পূর্ণ নতুন স্যামসাং এক্সপেরিয়েন্স ইউএক্স।

স্যামসাং বাংলাদেশের হেড অব মোবাইল মো. মূয়ীদুর রহমান বলেন, “বর্তমান যুগের প্রযুক্তিপ্রেমী সহস্রাব্দের প্রজন্মের কাছে গ্যালাক্সি এম১০ ব্যাপকভাবে সাড়া পাবে বলে আমরা বিশ্বাস করি। এ প্রজন্মের চাহিদা হচ্ছে- দ্রুত কর্ম সম্পাদনে সক্ষম, দীর্ঘদিন ব্যবহারের সুবিধা এবং আধুনিক উদ্ভাবনী প্রযুক্তিসমৃদ্ধ স্মার্টফোন।”

চমৎকার ভিউইং অভিজ্ঞতা প্রদানের লক্ষ্যে গ্যালাক্সি এম১০-এ রয়েছে ৬.২ ইঞ্চির এইচডি+ ইনফিনিটি-ভি ডিসপ্লে। জনপ্রিয় সব অ্যাপের মাধ্যমে এইচডি ভিডিও কন্টেন্ট অবিচ্ছিন্নভাবে ষ্ট্রিমিং করার ক্ষেত্রে ডিভাইসটি ওয়াইডভাইন এল১ সনদপ্রাপ্ত।

ফোনটির  বাজার মূল্য মাত্র ১১,৯৯৯ টাকার গ্যালাক্সি এম১০ (২জিবি+১৬জিবি)। কিন্তু আজ থেকে পিকাবু ডট কম থেকে মাত্র ১০,৯৯৯ টাকায় ক্রয় করা যাবে। আর, ক্রেতারা বিকাশ দিয়ে পেমেন্ট করলে পাবেন সর্বোচ্চ ৫০০ টাকা পর্যন্ত ক্যাশব্যাক এবং পিকাবু ক্লাব পয়েন্ট। বিশেষ এই অফারের আওতায় আরো আছে ২ বছরের বর্ধিত ওয়ারেন্টি যার আনুমানিক মূলমান ১৫০০ টাকা। স্মার্টফোনটি ক্রয়ের ক্ষেত্রে রয়েছে সুবিধাজনক বিভিন্ন ধরনের পেমেন্ট অপশন, ক্যাশব্যাক, এক্সচেঞ্জ অফার এবং দেশব্যাপি হোম ডেলিভারি সুবিধা। এছাড়া সবকটি শীর্ষস্থানীয় মোবাইল অপারেটরদের কাছ থেকে পাওয়া যাবে আকর্ষণীয় ডাটা বান্ডল অফার।

ক্ষমতাসম্পন্ন ডুয়েল ক্যামেরা গ্যালাক্সি এম সিরিজের আরেকটি বিশেষ ফিচার। মিলেনিয়ালসরা পছন্দ করে চলার পথে যখন-তখন ছবি তুলতে ও ভিডিও ক্যাপচার করতে। আর তাই, এতে রয়েছে আল্ট্র-ওয়াইডসমৃদ্ধ ডুয়েল রিয়ার ক্যামেরা যার, একটি হচ্ছে এফ১.৯ অ্যাপারচারের ১৩ মেগাপিক্সেল লেন্স এবং অন্যটি আল্ট্রা-ওয়াইড ফিচারসম্পন্ন ৫ মেগাপিক্সেলের সেকেন্ডারি লেন্স। আল্ট্রা-ওয়াইড লেন্স দিয়ে ব্যবহারকারী সহজেই প্রশ্বস্ত জায়গা নিয়ে ল্যান্ডস্ক্যাপ, সিটিস্ক্যাপ, গ্রুপ ফটো ইত্যাদি ছবি তুলতে পারবেন মাত্র এক ক্লিকেই।

এছাড়া বাধাহীণ মিউজিক ও ভিডিও ষ্ট্রিমিং করতে গ্যালাক্সি এম১০-এ ব্যবহার করা হয়েছে ৩৪০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি। অন্যদিকে, কোনধরণের ল্যাগ ছাড়া বিনোদনের লক্ষ্যে গ্যালাক্সি এম১০-এ বসানো হয়েছে এক্সিনস ৭৮৭০ অক্টা-কোর প্রসেসর। দ্রুত এবং সাবলীল ইউজার এক্সপেরিয়েন্স নিশ্চিৎ করতে সফটওয়্যারে ব্যবহার করা হয়েছে সম্পূর্ন নতুন স্যামসাং এক্সপেরিয়েন্স ৯.৫ ইউএক্স।

নিরাপত্তার দিক থেকেও পিছিয়ে নেই গ্যালাক্সি এম১০। এতে রয়েছে আধুনিক প্রযুক্তির ফেস রিকোগনিশন আনলক ফিচার।

সিনিউজভয়েস/

Please Share This Post.