বাইকারদের নেকব্যান্ড এলিট ২৫ ই হেডফোন

চলতি পথে অথবা কাজের ব্যস্ততায় টানা ভাইব্রেশন কিংবা রিংটোন বেজে উঠলেও অনেক ক্ষেত্রেই ফোন রিসিভ করা হয়ে ওঠে না। আবার ফুরসত সময়ে কল ব্যাক করার কথাও ভ্রম হয়।

তেমনি কাজের ব্যস্ততায় যখন শরীর-মন অবসন্ন হয় আয়েস করে গান শোনা কিংবা অপেক্ষমান সময়ে স্মার্টফোনেই সোশ্যাল মিডিয়ার বন্ধুর শেয়ার করা ভিডিও, ইউটিউব কিংবা পছন্দের মুভি দেখা এখন আমাদের নৈমিত্তিক জীবনের অংশ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

সঙ্গত কারণেই স্মার্টফোন ফোন কিংবা পিসি’র সঙ্গে হেডফোন বা ইয়ারফোন ব্যবহার করে থাকেন। এক্ষেত্রে তারের জঞ্জালে দিন দিন আগ্রহ হারাচ্ছেন ব্যবহারকারীরা। একই ভাবে মাথায় উঠে বসা কিংবা কানে দুলের মতো ঝুলে থাকা নিয়েও অনেকের মধ্যেই দেখা যায় অস্বস্তি।

ব্যবহারকারীদের এমন অভিমতকে আমলে নিয়েই বাজারে রয়েছে উদ্ভাবনী প্রযুক্তির একটি এয়ার ফোন। হেডফোন ও ইয়ার বাডের সমন্বিত নকশার এই যন্ত্রটির নাম নেকব্যান্ড হেডফোন। অভিজাত নকশায় বনেদি এই নেকব্যান্ডটি নামের চেয়ে বেশি পরিচিতি পেয়েছে এর কার্যকারিতায়। বনেদী ব্র্যান্ড জাবরা’র এই নেকব্যান্ডের মডেল নম্বর এলিট ২৫ ই।

এলিট ২৫ ই এর সবচেয়ে বড় সুবিধা এর ১৮ ঘণ্টার ব্যাটারি ব্যাকআপ সুবিধা। আবার ঘণ্টা খানেকের মধ্যেই এটি পুরোপুরি চার্জ নেয়। সবমিলিয়ে চলতি পথে ঘরে-বাইরে ব্যস্ততায় অবসরে সপ্তাহজুড়েও যদি অবিরাম ফোনে কথোপকথোন কিংবা গান শোনা অথবা মুভি দেখা হয়; সেজন্য বন্ধ হয়ে যাওয়ার দুশ্চিন্তা থাকে না। আর কল এবং সংগীত শোনার ক্ষেত্রে সর্বোত্তম সমন্বয়ের জন্য এতে রয়েছে কার্যকর সুইচিং সুবিধা। কল আসলে ভাইব্রেটের মাধ্যমেও জানিয়ে দেয়। আবার অ্যপ ব্যবহার করলে ভয়েস কমান্ডেই কল রিসিভ করা যায়।

শুধু তাই নয়,বাংলাদেশের বাজারে টেক রিপাবলিক লিমিটেড পরিবেশিত এই নেকব্যান্ডটি ব্লু-টুথের মাধ্যমে সংযুক্ত করা যায় ৮টি ডিভাইস এবং মাল্টি ইউজের মাধ্যমে একইসময়ে দুইটি ডিভাইসে ব্যবহার করা যায়।

শব্দ ও পানি প্রতিরোধী হওয়ায় বৃষ্টি বাদল কিংবা রাস্তার ভেঁপু অথবা যেকোনো সোরগোল পরিস্থিতিতেও কথা চালিয়ে নেয়া যায় সাবলীল ভাবে।

সিরি ও গুগল নাও এর জন্য সুনির্দিষ্ট বাটন থাকায় সংযুক্ত স্মার্টফোন বা ডিভাইসে ইন্টারনেট সংযোগ থাকলেই কেবল প্রশ্ন করেই জেনে নেয়া যায় প্রয়োজনীয় তথ্য।

এর অ্যান্টি-নয়েজ প্রযুক্তি ব্যবহারকারীকে দেয় পারিপার্শ্বিক নিস্তব্ধতা। বাস বা ট্রেনের কিংবা এয়ার-কন্ডিশনের হুশশ আওয়াজটা কিছুটা হলেও নিয়ন্ত্রণ করতে পারে। নয়েজ-ক্যান্সেল প্রযুক্তির মাধ্যম কর্কশ শব্দের মধ্যে কথা বলার সময় ভয়েস বাড়িয়ে নেয়া যায়। অবশ্য পারিপার্শ্বিক শব্দ অনেকাংশে কমে যায় বলে ভলিউম কম থাকলেও কথা শোনা যায় পরিস্কার। ১০ মিটারের মধ্যে সাবলীল ভাবে তারহীন সংযোগে স্মার্টফোন বা ডিভাইসের সঙ্গে সংযুক্ত থাকে। বাধাহীন কথা বলায় প্রশান্তি দেয় জাবরা এলিট ২৫ ই। বিশেষ করে বাইকারদের জন্য একটি অনন্য হতে পারে নেকব্যান্ডটি। এর দাম ৪ হাজার ৯০০ টাকা।

-সিনিউজভয়েস/ডেক্স/২৫আগস্ট/১৯

Please Share This Post.