বাংলা ভাষায় ই-লার্নিং বইয়ের উন্মোচন

বাংলাদেশে ই-লার্নিং, এম-লার্নিং, দূরশিক্ষণ বিষয়টি কার্যকর এবং জনপ্রিয় করতে ড. বদরুল এইচ. খান-এর বহুল সমাদৃত “খান’স ই-লার্নিং চেকলিস্ট” গ্রন্থটি এটুআই প্রোগ্রাম-এর উদ্যোগে বাংলা ভাষায় অনুবাদ করা হয়েছে। বাংলায় এর নামকরণ করা হয়েছে ‘ই-লার্নিংঃ উন্মুক্ত শিখন পরিবেশ’। একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রোগ্রাম-এর উদ্যোগে গ্রন্থটির মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠান সোমবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এসএসএফ ব্রিফিংরুমে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বর্তমানে বিভিন্ন দেশে আনুষ্ঠানিক শিক্ষার পাশাপাশি ই-লার্নিং, এম-লার্নিং, দূরশিক্ষণ ইত্যাদির মাধ্যমে শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ প্রদান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। এই বইটির মাধ্যমে ই-লার্নিং কী, এর উপাদান ও বৈশিষ্ট্য, গতানুগতিক শিক্ষাদান ও ই-লার্নিং, শিক্ষার্থী-কেন্দ্রিক ই-লার্নিং, অনলাইন লার্নিং পরিবেশ সম্পর্কিত নীতিমালা, শিখন সামগ্রী ব্যবহার করে কোর্স পরিকল্পনা ও পরিচালনাসহ আরও মূল্যবান বিষয় আলোচিত হয়েছে যা শিক্ষক, শিক্ষার্থী, শিক্ষা প্রশাসন ও ব্যবস্থাপনার সাথে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গ নির্বিশেষে সকলের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এছাড়া বাংলাদেশে ই-লার্নিং প্রবর্তন করার ক্ষেত্রে নীতি নির্ধারকসহ মাঠ পর্যায়ের সকল কর্মকর্তাদের ই-লার্নিং বিষয়ক পরিকল্পনা গ্রহণ ও সফল ভাবে বাস্তবায়ন করার জন্য বইটি সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।

ইতিমধ্যে এটুআই প্রোগ্রামের উদ্যোগে বাংলা ভাষায় নির্মিত উন্মুক্ত ই-লার্নিং প্লাটফর্ম “মুক্তপাঠ” চালু হয়েছে। ‘মুক্তপাঠ’-এ (www.muktopaath.gov.bd) শুরু হয়েছে শিক্ষকদের জন্য ‘মাল্টিমিডিয়া কনটেন্ট তৈরি’ নামক একটি অনলাইন কোর্স। বাংলা ভাষায় প্রস্তুতকৃত এই কোর্সের সহায়তায় বাংলাদেশের প্রায় ৮ লক্ষের অধিক শিক্ষকগণ তাদের ঘরে বসে সুবিধাজনক সময়ে বিনা পয়সায় এই প্রশিক্ষণ গ্রহণ করতে পারবেন। এই কোর্সের অন্তর্ভূক্ত বিভিন্ন কুইজ, এসাইনমেন্ট এবং পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে এবং অংশগ্রহণকারী নিজের মেধা যাচাই করতে পারবেন। এমনকি বাংলাদেশের সুবিধাবঞ্চিত ও প্রান্তিক জনগোষ্ঠীও ‘মুক্তপাঠ’ প্লাটফর্ম থেকে বৃত্তিমূলক শিক্ষা গ্রহণ করে আত্মকর্মসংস্থানের সুযোগ পাবেন। এছাড়া এটুআই পরিকল্পিত ই-লার্নিং কার্যক্রম জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ লোক প্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, বিসিএস এডমিন একাডেমী এবং পুলিশ স্টাফ কলেজ-এ চালু করা হয়েছে। ইতিমধ্যে এই প্লাটফর্ম থেকে প্রায় ২০০ সরকারী কর্মকর্তা প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেছেন।

মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. এম এ মান্নান, শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউট-এর পরিচালক ড. মোঃ আবদুল আউয়াল খান, জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. মিয়া ইনামুল সিদ্দিকী, ই-লার্নিং স্পেশালিষ্ট ড. বদরুল এইচ খান এবং এটুআই প্রোগ্রামের পলিসি এডভাইজর আনীর চৌধুরী। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক (প্রশাসন) এবং একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রোগ্রামের প্রকল্প পরিচালক জনাব কবির বিন আনোয়ার অনুষ্ঠানটি সভাপতিত্ব করেন।

সিনিউজভয়েস/তৌহিদ

Please Share This Post.