‘বাংলালিংক স্টোর’ থেকে প্রতি ঘণ্টায় স্মার্টফোন জেতার সুযোগ

দেশের অন্যতম ডিজিটাল টেলিকম সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান বাংলালিংক গ্রাহকদের এক ছাদের নিচে সবধরনের উন্নতমানের সেবা প্রদানের লক্ষ্যে সম্প্রতি উদ্বোধন করেছে ‘বাংলালিংক স্টোর’।

স্মার্টফোনে আকর্ষণীয় অফারের সঙ্গে গ্রাহকদের ডিজিটাল অভিজ্ঞতা দিতেই দেশের গুরুত্বপূর্ণ জেলা ও থানা শহরগুলোতে ‘বাংলালিংক স্টোর’ চালুর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। গুলশানে বাংলালিংকের প্রধান কার্যালয় টাইগার্স ডেন-এর সামনে ফ্ল্যাগশিপ ‘বাংলালিংক স্টোর’ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলালিংকের সিইও এবং এমডি এরিক অস সহ উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ।

এই স্টোর উদ্বোধন উপলক্ষে, বাংলালিংক গ্রাহকদের জন্য নিয়ে এসেছে প্রতি ঘণ্টায় (সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত) আকর্ষণীয় স্মার্টফোন ও অ্যাকসেসরিজ জিতে নেওয়ার সুযোগ। গ্রাহকরা বাংলালিংক মনোনীত স্টোর থেকে নির্ধারিত প্রোমোশনাল অফরের সময়ে একটি স্মার্টফোন কিনে এই অফার উপভোগ করতে পারবেন। প্রতি ঘন্টায় প্রথম গ্রাহক পাবেন একটি স্মার্টফোন, দ্বিতীয় গ্রাহক পাবেন একটি সেলফি স্টিক, তৃতীয় গ্রাহক পাবেন একটি ব্যাকপ্যাক এবং বাকি গ্রাহকরা পাবেন ১০০ টাকা টকটাইম।

এই স্টোরগুলো থেকে বাংলালিংক গ্রাহকরা নতুন বাংলালিংক সংযোগ, সিম রিপ্লেসমেন্ট, পোস্ট পেইড সংযোগের বিল প্রদান, প্রিপেইড সংযোগ, রিচার্জ, মোবাইল অর্থ সেবা (এমএফএস) (অ্যাকাউন্ট খোলা, টাকা গ্রহণ বা পাঠানো), ভ্যালু অ্যাডেড সেবা, ইন্টারনেট সেবাসহ যাবতীয় সেবা পাবেন।

বাংলালিংক গ্রাহকরা এই স্টোর থেকে স্মার্টফোন এবং ইন্টারনেট ব্যবহারের সম্পর্কে নানা ধরনের তথ্য ও অভিজ্ঞতা অর্জনেরও সুযোগ পাবেন। স্টোরে থাকা ডিসপ্লেকৃত স্মার্টফোনের মাধ্যমে গ্রাহকরা ইন্টারনেট ব্যবহারেরও সুযোগ পাবেন। দেশব্যাপি বাংলালিংক স্টোরগুলো চালু হলে এসব কেন্দ্র থেকে ৩ কোটি ২০ লাখেরও বেশি বাংলালিংক গ্রাহক যাবতীয় ডিজিটাল ও টেলিকম সেবা গ্রহণ করতে পারবেন।

‘বাংলালিংক স্টোর’ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বাংলালিংক-এর সিইও এরিক অস্ বলেন, ‘বাংলালিংক-এ আমরা বিশ্বাস করি যে, গ্রাহকদের উন্নতমানের সেবা প্রদান এবং সেবাগুলো সহজলভ্য করতে গ্রাহকদের কাছাকাছি সেবা কেন্দ্র থাকা আবশ্যক। সে লক্ষ্যেই দেশব্যাপি ‘বাংলালিংক স্টোর’ চালুর মাধ্যমে আমরা বাংলালিংক-এর সব ধরনের সেবা গ্রাহকের দ্বোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে চাই। গ্রাহকরা বাংলালিংক স্টোর থেকে সব ধরনের টেলিকম চাহিদা পূরণ করতে পারবেন এবং ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ায় নিজেকে সম্পৃক্ত করতে পারবেন। বাংলালিংক সবসময় গ্রাহকদের সর্বোত্তম সেবা দিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।’

 

– সিনিউজভয়েস ডেস্ক

Please Share This Post.