বাংলালিংক নেটওয়ার্ক বিশ্বের সবচেয়ে বড় ‘ভার্চুয়াল এসডিএম’ প্ল্যাটফর্ম

দেশের অন্যতম শীর্ষ ডিজিটাল কমিউনিকেশন সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান বাংলালিংক এবং আন্তর্জাতিক টেলিকমিউনিকেশন সেবাদাতা, ব্যক্তিগত এবং প্রাতিষ্ঠানিক পর্যায়ে ইন্টারনেট টেকনোলজি সলিশ্যানদাতা প্রতিষ্ঠান জেডটিই, বিশ্বের সবচেয়ে বড় ভার্চুয়াল সাবস্ক্রাইবার ডাটা ম্যানেজমেন্ট (ভিএসডিএম) প্ল্যাটফর্ম নির্মাণ করেছে।

৩৫ মিলিয়নেরও বেশি বাংলাদেশী গ্রাহকরা এই নতুন নেটওয়ার্ক-এর মধ্য দিয়ে লাভবান হয়েছেন, যার কারণে বাংলালিংকের নেটওয়ার্ক বিশ্বের সবচেয়ে বড় ভার্চুয়ালাইজেশন এসডিএম প্ল্যাটফর্ম হিসেবে স্বীকৃত হয়েছে।

ভিএসডিএম-এর মাধ্যমে বাংলালিংক গ্রাহকদের ডাটা ব্যবস্থাপনা আরও দ্রুততর হবে এবং সেবার পরিসরও বৃদ্ধি পাবে। অত্যাধুনিক এই নেটওয়ার্কটি তাৎক্ষনিক টুজি/থ্রিজি/ফোরজি/ভিওওয়াইফাই/ভিওএলটিই এবং অন্যান্য হাই টেক সেবাসমূহ দিতে সাহায্য করবে।

নেটওয়ার্ক-এর এই ভার্চুয়ালাইজেশন-এর মধ্য দিয়ে গ্রাহকরা দ্রুত মোবাইল ব্রডব্যান্ড, ভিডিও চ্যাট, মাল্টিমিডিয়া কনফারেন্স, মাল্টিমিডিয়া মেসেজ এবং অন্যান্য সেবা উপভোগ করতে পারবেন। এই প্রযুক্তিটি দ্রুত নেটওয়ার্ক নিশ্চিত করবে এবং এর নিরবিচ্ছিন্ন সংযোগের মধ্য দিয়ে গ্রাহকরা ডিজিটাল বিশ্বের সাথে সম্পৃক্ত থাকতে পারবেন।

বাংলালিংকের চিফ ডিজিটাল অফিসার সঞ্জয় ভাঘাসিয়া বলেন, ‘বাংলাদেশের মানুষেরা প্রতিনিয়ত ডাটা কেন্দ্রিক হয়ে উঠছে, আধুনিক বিশ্বে সবসময় সংযুক্ত থাকাটা অত্যন্ত জরুরি। অনলাইনে সংযুক্ত থাকার চাহিদা বৃদ্ধির সাথে সাথে, ডিজিটালাইজেশন অনিবার্য, আর এই জন্যই পূর্ণ ডিজিটাল সমাজ গড়ে তুলতে ইন্টারনেট পেনিট্রেশন বাড়ানো খুবই জরুরী, যার লক্ষে বাংলালিংক নিয়মিত কাজ করে যাচ্ছে। জেডটিই-এর সাথে আমাদের পার্টনারশিপ শুধুমাত্র ডিজিটাল কর্মপরিকল্পনাকে বাস্তবায়ন করবেনা বরং ভার্চুয়ালাইজেশন-এর গতিকেও দ্রুত অগ্রসর করবে যা নিরাপত্তার মান বজায় রেখে গ্রাহকদের দ্রুত সেবা নিশ্চিত করবে।’

জেডটিই কর্পোরেশন বাংলাদেশ লিমিটেড-এর সিইও ভিনসেন্ট লিউ বলেন, ‘ডিজিটালাইজেশন আধুনিক বিশ্বের একটি প্রধান অংশ। বাংলালিংকের সাথে আমরা এই যাত্রায় অংশীদার হতে পেরে অত্যন্ত গর্বিত, যা জনসাধারণকে ভিএসডিএম টেকনোলোজির আওতায় আনতে সাহায্য করবে।’

 

– সিনিউজভয়েস ডেস্ক

Please Share This Post.