বাংলাদেশে বিশ্বসেরা কোম্পানি তৈরিতে কাজ করছে ফেনক্স

যুক্তরাষ্ট্রের সিলিকন ভ্যালিভিত্তিক ভেঞ্চার ক্যাপিটাল কোম্পানি ‘ফেনক্স ভেঞ্চার ক্যাপিটাল’ এর আয়োজনে ‘নেক্সট বিলিয়ন ডলার কোম্পানিস- হোয়ার আরদে?’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ফেনক্সের গ্লোবাল জেনারেল পার্টনার শামীম আহসানের সভাপতিত্বে প্রতিষ্ঠানটির ঢাকাস্থ স্থানীয় কার্যালয়ে ২৬ জুন অনুষ্ঠিত এই বৈঠকে প্রধান অতিথি হিসেবে আইসিটি বিভাগের সচিব শ্যামসুন্দর সিকদার এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে এমসিসিআই এর প্রেসিডেন্ট সৈয়দ নাসিম মঞ্জুর  উপস্থিত ছিলেন।

ইনোটেক কর্পোরেশনের প্রধান তোসিহিকো অনো এবং ফেনক্স ভেঞ্চার ক্যাপিটালের পার্টনার আবুল নুরুজ্জামান মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।

গোলটেবিল বৈঠকে আইসিটি খাতের প্রতিনিধি ও নীতিনির্ধারকরা এ খাতে বিনিয়োগে বিদেশীদের আগ্রহী করে তোলার পাশাপাশি দেশীয় উদ্যোক্তাদের আন্তর্জাতিক অঙ্গনে যোগাযোগ বৃদ্ধি পরিচিত করে তোলার উপায় নিয়ে আলোচনা করেন।

গোলটেবিল বৈঠকে আইসিটি বিভাগের সচিব শ্যামসুন্দর সিকদার আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, ইনোটেক কর্পোরেশনের মতো বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যকে পূরণ করতে বাংলাদেশে তাদের বিনিয়োগ বৃহৎ পরিসরেও শুরু করবে। এই ধরনের প্রচেষ্টাকে আইসিটি বিভাগের পক্ষ থেকে সবধরনের সহযোগিতা করার আশ্বাস দেন তিনি।

তিনি বলেন, এ ধরনের উদ্যোগ দেশের অর্থনীতিতে ইতিবাচক প্রভাব সৃষ্টি করবে এবং অন্য বিদেশী বিনিয়োগকারীদেরও আকৃষ্ট করবে।

এমসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৈয়দ নাসিম মঞ্জুর বলেন, ফেনক্স বাংলাদেশের ব্যবসায়িক খাতে পাওয়া উল্লেখযোগ্য একটি অর্জন, যা কিনা উদ্যোক্তাদের বিনিয়োগ সমস্যা সমাধানে ইনোটেকের মতো বিনিয়োগকারীদের নিয়ে আসছে।

তিনি আরো উল্লেখ করেন, ৩০ বিলিয়ন ডলার রিজার্ভ নিয়ে আমরা বসে আছি কিন্তু দেশীয় কোম্পানিগুলো আন্তার্জাতিক বিনিয়োগে বাধার সম্মুখীন হচ্ছে।

ফেনক্স ভেঞ্চার ক্যাপিটালের জেনারেল পার্টনার শামীম আহসান বলেন, বাংলাদেশে উদীয়মান সৃষ্টিশীল ব্যবসায়িক খাতকে গতিশীল রাখতে নতুন নতুন বিনিয়োগ প্রয়োজন।দেশে আন্তর্জাতিক বিনিয়োগকারীদের নিয়ে আসতে চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। অ্যামাজন ও আলিবাবার মতো কোম্পানি বাংলাদেশে তৈরি হবে বলে তিনি বিশ্বাস করেন এবং এ লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছেন।

বাংলাদেশে ভেঞ্চার ক্যাপিটাল কোম্পানি হিসেবে বিনিয়োগ শুরু করার জন্য জাপানের কোম্পাানি ইনোটেক কর্পোরেশনের প্রধান তোসিহিকো অনো বলেন, ফেনক্স এর মাধ্যমে আমরা বাংলাদেশে বিনিয়োগের সুযোগ পেয়েছি, আমরা বাংলাদেশ নিয়ে অনেক আশাবাদী এবং ভবিষ্যতে আরো বড় আকারে বিনিয়োগের মাধ্যমে বাংলাদেশের স্টার্ট-আপ ইকোসিস্টেম তৈরিতে অবদান রাখতে চাই।

অনুষ্ঠানে ফেনক্স ভেঞ্চার ক্যাপিটালের পার্টনার আবুল নুরুজ্জামান চলতি প্রযুক্তির ধারা ও বাংলাদেশে বিনিয়োগের সুযোগ বর্ণনা করেন। তিনি বিশ্বের বিভিন্ন সফল প্রযুক্তি উদ্যোগের উদাহরণ উপস্থাপন করেন এবং আশা করেন বাংলাদেশের উদ্যোক্তারা এসব দেখে নতুন নতুন আইডিয়া দিয়ে বাংলাদেশে পরবর্তী প্রজন্মের বিলিয়ন ডলার কোম্পানি গড়ে তুলবে।

বৈঠকে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ব্যংকের পরিচালক ড. জামাল উদ্দিন আহমেদ, আইডিএলসি ফাইন্যান্স লি. এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক আরিফ খান, আইএফসির প্রোগ্রাম ব্যবস্থাপক এম মাসরুর রিয়াজ, একে খান গ্রুপের পরিচালক একে শামসুদ্দিন খান, রবি আক্সিয়াটা-ডিজিটাল সার্ভিসেসের কান্ট্রি প্রধান এম মঞ্জুর রহমান, প্রিয় ডটকমের সিইও জাকারিয়া স্বপন, সহজ ডটকমের সিইও মালিহা কাদির, বাগডুম ডটকমের সিইও সায়েদা কামরুন, এবং ইজেনারেশন লি.-ইনফ্রাসট্রাকচার বিজনেস বিভাগের উপদেষ্টা মোহাম্মদ জামান।

উল্লেখ্য, ফেনক্স ভেঞ্চার ক্যাপিটাল হচ্ছে সিলিকন ভ্যালিভিত্তিক ভেঞ্চার ক্যাপিটাল কোম্পানি।প্রতিষ্ঠানটি যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপ এবং এশিয়ার ৬৫টি কোম্পানিতে বিনিয়োগ করেছে। আইটি, হেলথ আইটি, কনজিউমার ইন্টারনেট, ক্লাউড, বিগডাটা, মোবাইল, পেমেন্ট সিস্টেম ও নেক্সট জেনারেশনে টেকনোলজির মতো খাতগুলোতে প্রায় দেড়শ কোটি ডলারের বিনিয়োগ করেছে ফেনক্স।

 

– সিনিউজভয়েস ডেস্ক

Please Share This Post.