বাংলাদেশে তাক লাগানো স্মার্টফোন নিয়ে এলো ভিভো

তরুণ প্রজন্মের পছন্দের আন্তর্জাতিক স্মার্টফোন ব্র্যান্ড ভিভো, জনপ্রিয় ভি সিরিজের সর্বশেষ আকর্ষণ ভি১১ প্রো এবং ভি১১ বাংলাদেশের বাজারে উন্মোচন করেছে। শুক্রবার একটি জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে ফ্ল্যাগশিপ হ্যান্ডসেট দুটি উন্মোচন করা হয়।

ভিভো গ্লোবাল ব্র্যান্ড টিম-এর পক্ষ থকে ভিভো বাংলাদেশের ম্যানেজিং ডিরেক্টর ডিউক, গ্লোবাল ব্র্যান্ড টীমের ব্রেন্ট লরী এবং উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা উন্মোচন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

ভিভো ভি১১ প্রো-তে রয়েছে ডুয়াল ইঞ্জিন ফাস্ট চার্জিং টেকনোলজি যা সাধারণ ফাস্ট চার্জিং টেকনোলজির চেয়ে দুইগুণ বেশি দ্রুততর এবং ভি১১ এ রয়েছে ফাস্ট চার্জিং টেকনোলজি। ভিভো ভি১১ প্রো এর সাথে ভিভো নিয়ে আসছে ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট টেকনোলজি যা বাংলাদেশের মোবাইল ইন্ডাস্ট্রিতে এই প্রথম, এর মাধ্যমে ইন্ডাস্ট্রিতে ভিভোর ট্রেন্ডসেটার খেতাবটি সুসংহত হলো। নতুন দুটি ফোনের রয়েছে ২৫ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা, দুটি রিয়ার ক্যামেরা, মোট তিনটি ক্যামেরা, যা গ্রাহকদের সেরা ফটোগ্রাফির অভিজ্ঞতা দিতে ভিভোর প্রতিশ্রুতির প্রতিফলন। ভি১১ প্রো’তে আরো থাকছে হেলো ফুল ভিউ ডিসপ্লে।

ফোনগুলোতে রয়েছে ভিভোর নিজস্ব এন্ড্রয়েড ফর্ক ফানটাচ্‌ ৪.৫ যা এন্ড্রয়েড ৮.১ এর ওপর ভিত্তি করে তৈরি। ভিভো ভি১১ প্রো এবং ভি১১ এ রয়েছে যথাক্রমে ৬.৪১ ইঞ্চি এবং ৬.৩ ইঞ্চি ডিসপ্লে। ফোনগুলোতে রয়েছে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৬৬০ চিপসেট, সাথে ৬জিবি র‍্যাম এবং ১২৮জিবি পর্যন্ত ইন্টারনাল র‍্যাম, সাথে ট্রিপল কার্ডস্লটে ২৫৬জিবি পর্যন্ত বাড়তি মেমোরি ব্যবহারের সুবিধা। ভি১১ প্রো-তে রয়েছে রয়েছে ৩৪০০এমএএইচ ব্যাটারি এবং ভি১১-এ  রয়েছে ৩৩১৫এমএএইচ ব্যাটারি।

উন্মোচন অনুষ্ঠানে ভিভো কান্ট্রি সেলস ডিরেক্টর শ্যারন বলেন, ‘বাংলাদেশের স্মার্টফোনপ্রেমীদের জন্য ভি১১ প্রো এবং ভি১১ নিয়ে আসতে পেরে অত্যন্ত আনন্দিত। ডিভাইস দুটি সাজানো হয়েছে সর্বাধুনিক ফিচার দিয়ে, যা গ্রাহকদের ডিজিটাল লাইফস্টাইলে সহযোগিতা দিয়ে স্মার্টফোন ব্যবহারের অনন্য অভিজ্ঞতা তৈরি করবে। এটি বাংলাদেশের গ্রাহকদের মাঝে ইতিবাচক সাড়া ফেলবে বলে আমাদের বিশ্বাস’।

আগামী ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ তারিখ থেকে ভিভো বাংলাদেশ অনুমোদিত সকল স্টোরে স্ট্যারি নাইট এবং নেবুলা রঙে ৩৪,৯৯০ টাকা মূল্যে ভি১১ প্রো এবং ২৭,৯৯০ টাকা মূল্যে ভি১১ পাওয়া যাবে।

সিনিউজভয়েস//ডেস্ক/
Please Share This Post.