বাংলাদেশে কার্যক্রম বাড়াবে এসার

তাইওয়ানের বিশ্বখ্যাত কম্পিউটার প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান এসার বাংলাদেশে বাজার সম্প্রসারণে স্থানীয় অংশীদারিত্ব বাড়ানোর নতুন পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে।

এসারের ভারতীয় অঞ্চলের প্রধান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক হরিশ কোহলি তার প্রথম বাংলাদেশ সফরে এসে গতকাল সন্ধ্যায় ঢাকায় এক ব্যাবসায়িক অংশীদার সম্মেলনে এসারের আগামী দিনের পরিকল্পনা তুলে ধরেন।

কোহলি বলেন, বাংলাদেশে প্রায় দশ বছরের বেশি সময় ধরে কাজ করে যাচ্ছে এসার। এবারই আমরা বাংলাদেশের স্থানীয় বাজার উন্নয়ন পরিকল্পনা ও ব্যবসায় উন্নয়ন নিয়ে দ্বিপাক্ষিক আলোচনায় ঢাকায় এসেছি। এসার বিশ্বাস করে বাংলাদেশের বাজার নতুন প্রযুক্তি গ্রহণের জন্য প্রস্তুত এবং এসারের নিত্য নতুন পণ্যগুলো সর্বশেষ উদ্ভাবন ও প্রযুক্তিতে পরিপূর্ণ। বাংলাদেশকে এশিয়া প্যসিফিক অঞ্চলের অন্যতম বাজার হিসেবে বাংলাদেশকে প্রাধান্য দিচ্ছি। এখানে তথ্যপ্রযুক্তি শিল্প খুবই গতিশীল। বাংলাদেশের সঙ্গে আমাদের পণ্যগুলো খুবই মানানসই।

এসারের নতুন পণ্যের বিষয়ে হারিশ কোহলি বলেন, আমরা বিশ্বের সর্বশেষ উদ্ভাবন নিয়ে আরো নতুন পণ্যের পরিচয় করিয়ে দিতে আশাবাদী। এস্পায়ার, সুইফট, স্পিন এবং সুইস সিরিজের ল্যাপটপগুলোতে অনন্য কিছু উদ্ভাবন আছে, যা ব্যবহারকারিকে অনেক ভালো অভিজ্ঞতা দিবে। গেমিং, ভার্চুয়াল রিয়েলিটি, আইওটি এবং ক্লাউড কম্পিউটিংয়ের সমন্বয়ে এইসব ল্যাপটপগুলোকে বাংলাদেশ বাজারে নেতৃত্ব দিতে সহায়তা করবে।

হারিশ কোহলি আরো বলেন, আমরা বাংলাদেশে বাজার সম্প্রসারণে নতুন বিনিয়োগ ও অংশীদার সম্পর্ক উন্নয়নে পরিকল্পনা নিয়েছি। ব্র্যান্ডের পরিচয় তৈরিতে আমাদের প্রতিশ্রুতিপূর্ণ কার্যক্রম এবং অসাধারণ প্রযুক্তি পরিচয়ই সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছানোর সফলতা এনে দিবে।

এসারের ভারতীয় ব্যবসায়িক প্রতিনিধি দলের সফর উপলক্ষে ঢাকার একটি পাঁচ তারকা হোটেলে ব্যবসায়িক সম্মেলনের আয়োজন করে এসার বাংলাদেশ। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন এসার ভারতের প্রধান বিপণন কর্মকর্তা চন্দ্রাহাস পানিগারহি, ভোক্তা ব্যাবসায় বিভাগের সহযোগী পরিচালক চন্দনা গুপ্ত, এসারের বাংলাদেশে বিক্রয় পরামর্শক এসএম সাকিব হাসান।

বাংলাদেশে এসারের ব্যবসায় কার্যক্রমের প্রধান পরামর্শক এসএম সাকিব হাসান বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্নপূরণে এসার এগিয়ে আসছে। বাংলাদেশের দ্রুততম বর্ধমান আইটি বাজারে নতুন প্রতিভা তৈরিতে অবদান রাখছে এসার বাংলাদেশ।

উল্লেখ্য, তাইওয়ানভিত্তিক প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান এসার ১৯৭৬ সাল থেকে প্রযুক্তিপণ্য নিয়ে কাজ করছে। এসার প্রতিনিয়ত হার্ডওয়্যার, সফটওয়্যার ও সার্ভিস খাতে মানুষের জীবনযাত্রার মানউন্নয়নে কাজ করছে।

 

– সিনিউজভয়েস ডেস্ক

Please Share This Post.