প্রপার্টি ভাড়া ও কেনা-বেচায় বিপ্রপার্টি ডটকম

২৩ মার্চ বৃহস্পতিবার থেকে বাংলাদেশ আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করেছে যুক্তরাজ্য ভিত্তিক ই-কমার্স রিয়েল এস্টেট সাইট বিপ্রপার্টি ডটকম।

রাজধানীর একটি হোটেলে এক প্রেস কনফারেন্সে বিপ্রপার্টি ডটকমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষণা করেন প্রতিষ্ঠানটির উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। এতে উপস্থিত ছিলেন বিপ্রপার্টি ডটকমের হেড অব এইচ আর তাজরিন জিনিয়া, হেড অব অপারেশন্স রেজবিন আহসান এবং মার্কেটিং ম্যানেজার মনজুর মোরশেদ।

এখন যে কেউই বিপ্রপার্টি ডটকমে (www.bproperty.com) গিয়ে বা বিপ্রপার্টি ডটকমের কল সেন্টার নম্বরে (০১৯৮১১১১৪৪৪) ফোন করে অথবা বিপ্রপার্টি ডটকমের কাস্টমার কেয়ার সেন্টারে গিয়ে বাসা এবং কমার্শিয়াল স্পেস ভাড়া নিতে পারবেন এবং কিনতে পারবেন।

বিপ্রপার্টি ডটকমের হেড অব এইচ আর তাজরিন জিনিয়া বলেন, ‘গত কবছর ধরেই আমরা বাংলাদেশে ই-কমার্স ভিত্তিক কোম্পানি সমূহের পদচারনা লক্ষ্য করছি। বাংলাদেশে ই-কমার্সের মাধ্যমে আমরা এখন অনলাইনে খাবার অর্ডার করতে পারি, বাসের টিকেট কিনতে পারি, অনলাইনে জিনিসপত্র কিনতে পারি।’

জিনিয়া আরও জানান, ‘ই-কমার্সের ক্ষেত্রে আমরা অনেক সেক্টরে এগিয়ে গেলেও, রিয়েল এস্টেট সেক্টরে আমরা পিছিয়ে ছিলাম। একটি বিশ্বস্ত, বিশেষায়িত এবং পরিপূর্ণ প্রপার্টি পোর্টাল আমাদের দেশে ছিল না। বিপ্রপার্টি ডটকম এই শুন্যস্থানটি পূরণ করতে চায়। বাসা/ কমার্শিয়াল স্পেস খোঁজা এবং কেনা আরো সহজ করার প্রত্যয় নিয়ে বিপ্রপার্টি ডটকম এমন একটি প্ল্যাটফর্ম দিচ্ছে যেখানে যেকেউ বাংলাদেশে প্রপার্টি ক্রয়, বিক্রয় এবং ভাড়া করতে পারবেন।’

বিপ্রপার্টি ডটকমের মূল বৈশিষ্ট্য বা সামর্থের জায়গা সম্পর্কে বলতে গিয়ে হেড অব অপারেশন্স রেজবিন আহসান বিপ্রপার্টি ডটকমের দুটি দিক তুলে ধরেন, তা হল- ‘সঠিক ও প্রমাণিত তথ্য’ এবং ‘দেশের সর্ববৃহৎ প্রপার্টি ডাটাবেইজ।’ তিনি বলেন, যেকোনো অ্যাপার্টমেন্ট বা কমার্শিয়াল স্পেস বিপ্রপার্টি ডটকমের দেয়ার আগে বিপ্রপার্টি ডটকম কর্তৃপক্ষ বাড়ির/ফ্ল্যাটের মালিকের সঙ্গে চুক্তি করেন এবং চুক্তিকৃত বাড়ি/ফ্ল্যাট সরেজমিনে পরিদর্শন করে ঐ বাড়ি/ফ্ল্যাটটিকে ভেরিফাই করেন।

তিনি আরও বলেন, “কোনো প্রপার্টি ভেরিফাই করার পর আমরা সেটাকে আমাদের ওয়েবসাইটে আপলোড করি। তখন এটিকে আমরা ‘ইউনিক লিস্টিং’ বলি। বর্তমানে আমরা ঢাকা, চট্টগ্রাম এবং সিলেটে কাজ করছি এবং আমাদের প্লাটফর্মে ৪০,০০০ এরও বেশি ‘ইউনিক লিস্টিং’ রয়েছে। ২০১৬তে আমরা বাংলাদেশে প্রাথমিক কাজ শুরু করি এবং এ পর্যন্ত ১ লাখেরও বেশি বাসা এবং কমার্শিয়াল স্পেসের সঙ্গে আমরা কাজ করেছি।”

মার্কেটিং ম্যানেজার মনজুর মোরশেদ জানান, ‘ব্যবহারকারির সুবিধার ওপর বিপ্রপার্টি ডটকম বেশ জোর দেয়। ওয়েবসাইটের পাশাপাশি একজন গ্রাহক আমাদের কাস্টমার কেয়ার সেন্টারে এসে বা কল সেন্টার নম্বরে ফোন করে বিপ্রপার্টি ডটকমের সুবিধাসমূহ নিতে পারবেন। বাংলাদেশে আমরাই একমাত্র ই-কমার্স কোম্পানি যাদের নিজস্ব কাস্টমার কেয়ার সেন্টার আছে। আমরা আমাদের গ্রাহকদের কেবলমাত্র বাসা/কমার্শিয়াল স্পেস খুঁজে দিচ্ছি, তা নয়। এর পাশাপাশি, আমরা তাদেরকে সবধরনের দরকারি তথ্য ও আইনি সহায়তা দিয়ে থাকি যাতে করে তারা সঠিক সিদ্ধান্তটি নিতে পারেন।’

তিনি আরো জানান, ‘বিপ্রপার্টি ডটকম অ্যাপ এবং বিপ্রপার্টি ডটকম ফেসবুকের পেজের মাধ্যমেও একজন গ্রাহক বাসা ভাড়া করতে পারবেন এবং কিনতে পারবেন । এছাড়াও বিপ্রপার্টি ডটকমের মাধ্যমে বাসা/কমার্শিয়াল স্পেস ভাড়া করতে এবং কিনতে একজন গ্রাহককে কোন ফি দিতে হয়না।’

বিপ্রপার্টি ডটকম ‘ইমারজিং মার্কেট প্রপার্টি গ্রুপ’ এর অন্তর্ভুক্ত একটি প্রতিষ্ঠান। ইমারজিং মার্কেট প্রপার্টি গ্রুপ এর রয়েছে ফ্রান্স, দুবাই সহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সফলভাবে প্রপার্টি পোর্টাল পরিচালনার অভিজ্ঞতা।

বৈশ্বিক অভিজ্ঞতা এবং দেশীয় জ্ঞানকে পুঁজি করে বিপ্রপার্টি ডটকম বাংলাদেশের রিয়েল এস্টেট সেক্টরকে ডিজিটালাইজড করার প্রয়াসে কাজ করছে। এর দ্বারা বাংলাদেশে বাসা/কমার্শিয়াল স্পেস খোঁজার এবং কেনার সবচাইতে নির্ভরযোগ্য মাধ্যম হতে চায় বিপ্রপার্টি ডটকম।

 

– সিনিউজভয়েস ডেস্ক

Please Share This Post.