শ্রেষ্ঠ সিইও ডিজিটাল বাংলাদেশ এর প্রধানমন্ত্রী

কথায় আছে, যোগ্য বাবার যোগ্য সন্তান। ডিজিটাল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও বঙ্গবন্ধুর যোগ্য সন্তান এবং যোগ্য উত্তরসূরি হিসেবে দেশে তথা বিদেশেও জায়গা করে নিয়েছেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অধরা স্বপ্ন বাস্তবায়নে তিনি কাজ করছেন নিরলসভাবে। তার নিরলস পরিশ্রমের সুফলও পাচ্ছে বাংলাদেশ।

এমন প্রেক্ষাপটে প্রিয় বাংলাদেশকে উন্নত বিশ্বের কাতারে দাঁড় করাতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বলিষ্ঠ নেতৃত্ব ও অসাধারণ দায়িত্ববোধের ব্যাপক প্রশংসা করেছেন তথ্যপ্রযুক্তি খাতের সফল তরুণ উদ্যোক্তা ও আইটি প্রতিষ্ঠান ‘ফিফোটেক’- এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) তৌহিদ হোসেন। সুযোগ পেলে স্বার্থহীন পরিশ্রম ও দেশপ্রেমের জন্য স্বীকৃতিস্বরূপ প্রধানমন্ত্রীকে World’s Best CEO (পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ সিইও) পুরষ্কার দেয়ারও ইচ্ছা পোষণ করেছেন তিনি।

সেই লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর ভূয়সী প্রশংসা করে তথ্যপ্রযুক্তি খাতের জনপ্রিয় ও সফল এই উদ্যোক্তা ফেসবুকে একটি পোস্ট দিয়েছেন। যা ইতোমধ্যে ব্যাপক ভাইরাল হয়েছে। ফেসবুক পোস্টে বাংলাদেশকে সম্মানজনক রাষ্ট্রে উপনীত করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর দৃঢ় নেতৃত্বের প্রশংসা করে, তাকে বিশ্বের সবচেয়ে সফল সিইও হিসেবে ভূষিত করেছেন তৌহিদ হোসেন।

তৌহিদ হোসেনের মতে, বাংলাদেশ যদি একটি প্রতিষ্ঠান হিসেবে দেখা হয়, তবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেই প্রতিষ্ঠানের শ্রেষ্ঠ সিইও। এমনকি সারা বিশ্বের সবচেয়ে সফল সিইও হলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তার ঐকান্তিক প্রচেষ্টা ও শ্রমের কারণে বাংলাদেশ আজকে চূড়ান্ত সফলতা অর্জন করেছে বলেও বিশ্বাস করেন তৌহিদ হোসেন। সফলভাবে নেতৃত্ব দিয়ে বাংলাদেশকে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি এনে দেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সফল সিইও হিসেবে একটি পুরষ্কার দেয়ারও ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন ‘জয় বাংলা, জিতবে এবার নৌকা’ শীর্ষক একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ব্যাপক ভাইরাল হওয়া আওয়ামী লীগের জয়গানের প্রযোজক তৌহিদ হোসেন।

প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসায় তৌহিদ হোসেনের দেয়া ফেসবুকে দেয়া পোস্টটি পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হলো…

‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, নিজে না বললে কিছুই হয় না এখন আমাদের এই সোনার বাংলাদেশে। এই দেখুন, আমারই ছোট্ট একটা কোম্পানি ফিফোটেক। আমি আমার বিভিন্ন ডিপার্টমেন্টের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের সাথে মিলে চালাতে হিমশিম খাই। একটু এগিয়ে যাই তো একটু পিছিয়ে যাই।

আর সেখানে বাংলাদেশকে একটা কোম্পানি হিসেবে চিন্তা করলেই মনে হয়, কিভাবে ডিপার্টমেন্টের কিছু দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের সহযোগিতা ছাড়াই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এক হাতে এত বিশাল একটা কোম্পানি পরিচালনা করছেন। দেশকে উন্নতির দিকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। আল্লাহ আপনাকে দীর্ঘজীবী করুন।
আমার দেখা, শুধু বাংলাদেশের নয় পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ ‘CEO’ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আমি এবং আমার কোম্পানি ফিফোটেক- এর সকল কর্মকর্তার পক্ষ থেকে পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ ‘CEO’ এর পুরস্কারটি আপনাকে দিতে চাই।

-সিনিউজভয়েস/ডেক্স /১৮সেপ্টেম্বর/১৯

Please Share This Post.